মাঠে সতীর্থকে মেরে বড় শাস্তির মুখে শাহাদাত

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ফাইল ফটো

walton

লর্ডসের অনার্স বোর্ডে বাংলাদেশি ক্রিকেটার হিসেবে শাহাদাত হোসেন রাজিবের নামটা এখনও সকলের চোখে ভাসে। কিন্তু, একের পর এক বিতর্কিত কাণ্ডে জড়াচ্ছেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের এই পেসার। জাতীয় দলের দরজাটা তার জন্য দূরের বাতিঘর হলেও ঘরোয়া ক্রিকেটে খেলছেন নিয়মিত।

শাহাদাত হোসেনের আগ্রাসী মানসিকতা নতুন কিছু নয়। কদিন আগে ট্রাফিক সিগন্যাল অমান্য করে উল্টোপথে গাড়ি চালিয়ে নেতিবাচক খবরের শিরোনাম হয়েছিলেন শাহাদাত। এরই মাঝে আবার বিতর্কের জন্ম দিয়েছেন গৃহকর্মীর গায়ে হাত তুলে হাজতবাস করা শাহাদাত। 

৩৩ বছর বয়সী এই পেসার এতদিন মাঠের বাইরে অপকর্মে জড়িত থাকলেও এবার মাঠেই পেটালেন সতীর্থকে। চলমান জাতীয় লিগের ম্যাচ চলাকালীন সতীর্থকে মারধর করে আলোচনায় ঢাকা বিভাগের এই পেসার। 

খুলনায় স্বাগতিকদের বিপক্ষে ঢাকা বিভাগের মধ্যকার জাতীয় লিগের ম্যাচে সতীর্থ আরাফাত সানিকে (জুনিয়র) মাঠে পিটিয়েছেন শাহাদাত। ম্যাচ চলাকালীন সময়ে এই কাণ্ডে শাহাতাদকে মাঠ থেকে বের করে দেওয়া হয়েছিল। জানা যায়, শাহাদাত বলের একটি অংশে শাইন দিতে সানিকে নির্দেশ দেন। সানি তাতে অনীহা প্রকাশ করলে মাঠেই ক্ষোভ প্রকাশ করেন শাহাদাত। এ সময় তিনি সানিকে চড়-থাপ্পড়-লাথি মারেন। পরিস্থিতি সামাল দিতে সতীর্থ এবং আম্পায়াররা এগিয়ে আসেন।

ষষ্ঠ রাউন্ডের এই ম্যাচের তৃতীয় দিন খুলনার বিপক্ষে ১০ জন নিয়ে খেলতে হচ্ছে ঢাকা বিভাগকে। চলমান ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ করা হয়েছে শাহাদাতকে। বড় শাস্তি অপেক্ষা করছে ঢাকা বিভাগের পেসার শাহাদাতের জন্য।

গতকাল ম্যাচ রেফারি আখতার আহমেদ তার প্রতিবেদনে শাহাদাতের অপরাধকে ‘লেভেল-৪’ বলে উল্লেখ করেছেন। নিয়মানুযায়ী এই অপরাধের শাস্তি সর্বনিম্ন এক বছর থেকে পাঁচ বছরের নিষেধাজ্ঞা। এছাড়া, ম্যাচ ফি’র পুরোটা জরিমানা করা হবে। ম্যাচ রেফারির প্রতিবেদনটি এখন টেকনিক্যাল কমিটি প্রধান মিনহাজুল আবেদীনের হাতে পৌঁছেছে। তবে, এ ব্যাপারে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড থেকে এখনও কোনো আনুষ্ঠানিক বক্তব্য দেওয়া হয়নি।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৫১ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৮, ২০১৯
এমআরপি

Nagad
গোপালগঞ্জে বৃদ্ধার মরদেহ উদ্ধার
সাবেক অধ্যক্ষ আব্দুল মান্নান আর নেই
ধামইরহাটে গৃহবধূর আত্মহত্যা
অনলাইন শিক্ষায় সেরা দশে নর্থ ওয়েস্টার্ন ইউনিভার্সিটি
করোনা আক্রান্ত চিত্রনায়িকা তমা মির্জা


চিলাহাটি-হলদীবাড়ি রেললাইন স্থাপন শুরু
সব সঞ্চয় হারিয়ে ফ্লাট বিক্রি করেছিলেন এন্ড্রু কিশোর
জন্মদিনে ৩৫ শিশুর অস্ত্রোপচারের দায়িত্ব নিলেন গাভাস্কার
মালদ্বীপ থেকে ফিরলেন আটকে পড়া ১৫৭ বাংলাদেশি
বাংলানিউজের শারমীনা ও শিমুলের বাবা আর নেই