php glass

শেষ পর্যন্ত সাকিবের ব্যাটেই হাসলো বাংলাদেশ

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি-সংগৃহীত

walton

ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজের ফাইনালের আগে দুর্দান্ত জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। নিয়ম রক্ষার ম্যাচটিতে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ৬ বল হাতে রেখে ৪ উইকেটের জয় তুলে নিয়েছে টাইগাররা। এই জয়ে অবশেষে টি-টোয়েন্টিতে আফগান জুজু কাটালো বাংলাদেশ।

২০১৪ সালের ১৬ মার্চ। ঢাকায় আফগানিস্তানের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টিতে প্রথম সাক্ষাতে ৯ উইকেটে জিতেছিল বাংলাদেশ। কিন্তু এরপর আফগান মানেই যেন একটা আতঙ্ক ঘিরে ধরেছিল টাইগারদের। গত বছর দেরাদুনে তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজেও হোয়াইটওয়াশ হতে হয়েছে বাংলাদেশকে। 

কেবল তাই নয়, চট্টগ্রামে একমাত্র টেস্টে সবাইকে অবাক করে দিয়ে আফগানদের কাছে হেরে বসে বাংলাদেশ। এমনকি ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজেও নিজেদের প্রথম সাক্ষাতে রশিদ খানদের কাছে পরাজয় বরণ করতে হয়েছে সাকিবদের। 

তবে এবার আরেকবার সাকিব নৈপুণ্যে হাসলো বাংলাদেশ। তার ৪৫ বলে ঝড়ো ৭০ রানের ইনিংসে ভর করে জয় পায় স্বাগতিকরা। এছাড়াও ৪ ওভারে ২৪ রান দিয়ে একটি উইকেটও নিয়েছেন সাকিব। 

অবশ্য আফগানিস্তানের দেওয়া ১৩৯ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুতে দুই ওপেনার লিটন দাস (৪) ও নাজমুল হোসেন শান্তকে (৫) হারিয়ে বিপদে পড়েছিল বাংলাদেশ। তবে ধাক্কাটা সামাল দেন সাকিব ও মুশফিকুর রহীম।

দলীয় ৭০ রানের মাথায় বাউন্ডারি হাঁকাতে গিয়ে করিম জানাতের বলে শফিকউল্লাহর হাতে বন্দী হোন মুশফিক। এই উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান সাজঘরে ফেরার আগে করেছেন ২৫ বলে ২৬ রান। 

মুশফিকের পরপরই মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (৬), সাব্বির রহমান (২) ও আফিফ হোসেনকে (২) হারিয়ে কিছুটা বিপদে পড়ে টাইগাররা। তবে একলাই ঢাল হয়ে লড়ে যান সাকিব। মোসাদ্দেক হোসেনকে (১৯) নিয়ে দলকে নিয়ে যান জয়ের বন্দরে। সাকিবের অপরাজিত ৭০ রানের ইনিংসটি সাজানো ছিল ৮ চার ও ১ ছক্কায়। বাংলাদেশ ৭ উইকেট হারিয়ে ১৯ ওভারে করে ১৩৯ রান।

এর আগে ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টির সিরিজের ফাইনালের আগে নিয়মরক্ষার ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করা আফগানিস্তান ২০ ওভার শেষে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৩৮ রান সংগ্রহ করে।

আফিফ হোসেনের কল্যাণে প্রথম উইকেটের দেখা পায় বাংলাদেশ। পরে এই স্পিনার একই ওভারে দ্বিতীয় উইকেট তুলে টাইগারদের ম্যাচে ফেরান। হজরতউল্লাহ জাজাইকে ৪৭ রানে ফেরানোর পর আসগর আফগানকে (০) তুলে নেন তিনি। জাজাই ৩৫ বলে ৬টি চার ও দুটি ছক্কায় নিজের ইনিংস সাজান। ওভারটিতে দুই উইকেট নিয়ে কোনো রান দেননি আফিফ।

উদ্বোধনী জুটিতে ৭৫ রান তুললেও বাংলাদেশের বোলারদের দাপটে ১০০ রানের আগেই ৫ উইকেট হারায় আফগানিস্তান। এরপর আর কেউ তেমন হাল ধরতে পারেনি আফগানদের। শেষদিকে শফিকউল্লাহ ২৩ ও রশিদ খান ১১ রানে অপরাজিত থাকেন। 

আফিফ দুটি ও মোস্তাফিজ, সাকিব, শফিউল, সাইফউদ্দিন একটি করে উইকেট পান।

ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজে ইতোমধ্যে ফাইনাল নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ ও আফগানিস্তান। ফলে গ্রুপ পর্বে নিজেদের মধ্যে শেষ ম্যাচটি নিয়মরক্ষার হয়ে রইল। শনিবার (২১ সেপ্টেম্বর) চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় মাঠে নামে দু’দল। টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন সাকিব।

বাংলাদেশ সময়: ২২২০ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৯
ইউবি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: ক্রিকেট
ksrm
আখাউড়ায় রেলস্টেশনের পাশ থেকে এক ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার
হাইকোর্টে এনামুল বাছিরের জামিন আবেদন
প্রকৌশল গবেষণা কাউন্সিল আইন অনুমোদন মন্ত্রিসভায়
ব্যক্তিগত অস্ত্র অন্যের নিরাপত্তায় ব্যবহার নিষিদ্ধ
স্মিথের ঘাড়ে নিঃশ্বাস ফেলছেন কোহলি, এগিয়েছেন সাকিব


তিনদিনের সফরে কাতার যাচ্ছেন সেনাপ্রধান
বগুড়ায় অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ
দিল মনোয়ারা মনুর মৃত্যুতে আর্টিকেল নাইনটিনের শোক
নাম করা হাউসের শর্মা এবার ঘরেই হবে 
পেঁয়াজের দামে লাগাম টানতে ফের অভিযান: ডিসি