php glass

দুর্বৃত্তায়ন রোধে রাজনৈতিক দলগুলোর ঐক্যমত প্রয়োজন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

বক্তব্য রাখছেন সুজন সম্পাদক বদিউল আলম মজুমদার, ছবি: বাংলানিউজ

walton

ফেনী: দেশে এখন দুর্বৃত্তায়ন চলছে। এ দুর্বৃত্তায়ন রোধে সব রাজনৈতিক দলের ঐক্যমত প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেছেন সুশাসনের জন্য নাগরিকের (সুজন) সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদার।

তিনি বলেন, সারাদেশে ছোট-বড় অনেক সম্রাট তৈরি হয়েছে। সম্রাট শুধু আওয়ামী লীগে নয়, সব দলেই রয়েছে। এমন সম্রাটদের প্রতিহত করতে হলে প্রয়োজন সব দলের রাজনৈতিক ঐক্যমত।

সোমবার (১৪ অক্টোবর) ফেনীর একটি মিলনায়তনে আয়োজিত ‘বাংলাদেশের রাজনৈতিক সংস্কার ও নাগরিক ভাবনা শীর্ষক’ এক গোলটেবিল বৈঠকে এসব কথা বলেন তিনি। সুজন ফেনী জেলা কমিটি এ গোলটেবিল বৈঠকের আয়োজন করে।

সুজন সম্পাদক বলেন, ২০১৪ এবং ২০১৮ সালের নির্বাচন জনগণের সম্মতির আলোকে হয়নি। তাই বর্তমান সরকারের জনগণের প্রতি দায়বদ্ধতা নেই। জনগণের সম্মতির শাসন সৃষ্টি করতে হবে। সম্রাটদের সরকার নয়, জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে।

বদিউল আলম বলেন, সুজনের সংস্কার প্রস্তাবের উদ্দেশ্য সব দলের সম্মিলিত ঐক্য, দেশকে এগিয়ে নিতে এর প্রয়োজনীয়তা অপরিসীম। দেশের বর্তমান যে অবস্থা এতে সর্বক্ষেত্রে সংস্কার প্রয়োজন। আর তার জন্য প্রয়োজন একটা জাতীয় সনদ। যে সনদটিতে সাক্ষর করবে দেশের সব রাজনৈতিক দল। সব রাজনৈতিক দল সদিচ্ছা পোষণ করলে এ জাতীয় সনদ প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব।

ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধ প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বদিউল আলম বলেন, ছাত্রদের রাজনীতি করা সাংবিধানিক অধিকার। এ অধিকার খর্ব করা উচিৎ নয়। তবে লেজুড়ভিত্তিক ছাত্ররাজনীতি বন্ধ হওয়া প্রয়োজন।

গোলটেবিল বৈঠকে বাংলাদেশের রাজনৈতিক সংস্কারের জন্য ২০টি প্রস্তাব উত্থাপন করে সুজন। প্রস্তাবগুলো হলো- রাজনৈতিক সংস্কৃতিতে পরিবর্তন, নির্বাচনী সংস্কার, কার্যকর জাতীয় সংসদ, স্বাধীন বিচার বিভাগ, নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশন, সাংবিধানিক সংস্কার, গঠনতান্ত্রিক ও স্বচ্ছ রাজনৈতিক দল, স্বাধীন বিধিবদ্ধ প্রতিষ্ঠান, দুর্নীতি বিরোধী সর্বাত্বক অভিযান, যথাযথ প্রশাসনিক সংস্কার, বিকেন্দ্রীকরণ ও স্থানীয় সরকার, গণমাধ্যমের স্বাধীনতা, শক্তিশালী নাগরিক সমাজ, মানবাধিকার সংরক্ষণ, একটি নতুন সামাজিক চুক্তি, পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা, আর্থিকখাতে সুশাসন প্রতিষ্ঠা, শিক্ষাব্যবস্থা ও শিক্ষার মানোন্নয়ন ও নারীর ক্ষমতায়ন।

সুজন ফেনী জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ শাহাদাত হোসেনের সঞ্চালনায় ও সভাপতি অ্যাডভোকেট লক্ষন চন্দ্র বনিকের সভাপতিত্বে বৈঠকে আরও বক্তব্য রাখেন-ফেনী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুর রহমান বিকম, বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও সাহিত্যিক প্রফেসর রফিক রহমান ভূইঁয়া, ফেনী ইউনিভার্সিটির ট্রেজারার প্রফেসর তায়বুল হক, ফেনী সিটি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর উৎপল কান্তি বৈদ্য, বিএনপির জাতীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য অ্যাডভোকেট মেজবাহ উদ্দিন, ফেনী পল্লীবিদ্যুৎ সমিতির সভাপতি সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আবদুল মোতালেব, ফেনী জেলা বিএনপির সদস্য সচিব আলাল উদ্দিন আলাল, ফেনী শহর ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক ফারভেজুল ইসলাম হাজারী, ফেনী শহর ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির সভাপতি ইকবাল আলম, সাংবাদিক রবিউল হক রবি, যতন মজুমদার ও ফেনী সরকারি কলেজছাত্র সংসদের ভিপি তোফায়েল আহমেদ তপু প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১৫২০ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৪, ২০১৯
এসএইচডি/ওএইচ/

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: ফেনী সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন)
নূর হোসেন নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্যে দুঃখ প্রকাশ রাঙ্গা’র  
ট্রেন দুর্ঘটনায় আহতদের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান ফখরুলের
বেগমগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় যুবদল নেতা নিহত
হংকংয়ে ব্যাপক সহিংসতা, অধিকাংশ স্কুল বন্ধ
আওয়ামী লীগ নেতা মাসুমকে কারাগারে প্রেরণ


কসবা ট্রেন দুর্ঘটনায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী-আইনমন্ত্রীর শোক
এসএ গেমসের জন্য শিগগিরই দল ঘোষণা করবে বিসিবি
কসবায় ট্রেন দুর্ঘটনায় সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রীর শোক
প্রয়োজন নেই তারপরও কেনাকাটা করা হয়! 
কক্সবাজার বেড়ানো হলো না রুবেলের