মানচিত্রকে অস্বীকারকারীদের বাদ দিয়ে ঐক্য

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

যুক্তফ্রন্ট ও জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার বৈঠক শেষে নেতারা-ছবি-বাংলানিউজ

ঢাকা: যুক্তফ্রন্ট চেয়ারম্যান ও সাবেক রাষ্ট্রপতি এ কিউ এম অধ্যাপক বদরুদ্দোজা চৌধুরী বলেছেন, আমি বিশ্বাস করি, আমাদের ঐক্যের ভিত্তি ভারসাম্যের রাজনীতি। যারা মুক্তিযুদ্ধের মানচিত্রকে এখনও অস্বীকার করে, তাদের বাদ দিয়ে বাংলাদেশের সবার সঙ্গে আমরা ঐক্য কামনা করি।

মঙ্গলবার (২৫ সেপ্টেম্বর) রাতে রাজধানীর বারিধারার নিজ বাসভবনে যুক্তফ্রন্ট ও জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের একথা বলেন তিনি।

তিনি আরও বলেন, দেশের সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করেছি। ভবিষ্যৎ প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে বিএনপির সঙ্গে আমরা অনেক কাছাকাছি এসেছি। তারই অংশ হিসেবে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বৈঠকে তার প্রতিনিধি পাঠিয়েছেন। তিনি বৈঠকে জানিয়েছেন, ২৯ সেপ্টেম্বর বিএনপির সমাবেশ আছে। সেই সমাবেশে ঐক্য প্রক্রিয়ায় যোগদানের বিষয়ে দিক নির্দেশনা থাকবে। তাই লিয়াঁজো কমিটি গঠন যেন পিছিয়ে দেওয়া হয়। আশা করি, ভবিষ্যতে আমরা আরও কাছাকাছি হতে পারবো।

যুক্তফ্রন্ট চেয়ারম্যান আরও বলেন, এই সরকার স্বেচ্ছাচারী সরকার। জনগণ আর স্বেচ্ছাচারী সরকার চায় না। ভবিষ্যতেও যাতে আর কোনো স্বেচ্ছাচারী সরকার ক্ষমতায় আসতে না পারে এজন্য জাতীয় ঐক্যপ্রক্রিয়া ভারসাম্যমূলক সরকার চায়। 

এসময় সাংবাদিকরা জানতে চান, বিএনপির সমাবেশে বদরুদ্দোজা চৌধুরী যাবেন কী না? জবাবে তিনি বলেন, আমাকে তো এখনও দাওয়াতই দেওয়া হয়নি।

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু বলেন, বি (বদরুদ্দোজা) চৌধুরী স্যার সব বলে দিয়েছেন। ২৯ সেপ্টেম্বর আমাদের সমাবেশ আছে। ওই সমাবেশ থেকে আমাদের পরিকল্পনা জনগণের কাছে তুলে ধরবো। 

তিনি আরও বলেন, গত ২২ সেপ্টেম্বর সমাবেশের মধ্য দিয়ে যে ঐক্য তৈরি হয়েছে, আমরা ঐক্য প্রক্রিয়া যাতে সফল হয়, সে চেষ্টা করব।

যুক্তফ্রন্টের শরিক দল নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, বর্তমান স্বৈরাচারী সরকারের বিরুদ্ধে জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়া নিয়ে ব্যাপক আগ্রহের সৃষ্টি হয়েছে। আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর ময়মনসিংহে সমাবেশের মাধ্যমে আমরা ঐক্য প্রক্রিয়ার গণসংযোগ শুরু করবো।

বিকল্প ধারার যুগ্ম মহাসচিব মাহী বি চৌধুরী বলেন, বিকল্প ধারার পক্ষ থেকে আমরা রেজুলেশন নিয়ে জাতীয় নেতাদের স্পষ্টভাবে জানিয়ে দিয়েছি, স্বাধীনতাবিরোধী কোনো দল বা ব্যক্তিকে শরিক দলে রাখলে বিএনপিকে জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ায় সম্পৃক্ত করা যাবে না।

বৈঠকে জেএসডি সভাপতি আ স ম আবদুর রব, জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার সদস্য সচিব আ ব মোস্তফা আমিন, বিএনপির পক্ষে সাবেক প্রতিমন্ত্রী দলের ভাইস চেয়ারম্যান ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু,  জেএসডির সহ-সভাপতি তানিয়া রব, সাধারণ সম্পাদক আবদুল মালেক রতন, বিকল্পধারার সাংগঠনিক সম্পদক ব্যারিস্টার ওমর ফারুক, গণস্বাস্থ্যের ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, গণফোরামের পক্ষে আ.উ.ম শফিক উল্লাহ ও জগলুল হায়দার আফ্রিক ও জেএসডির শহীদ উদ্দিন মাহমুদ স্বপন বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন। 

গণফোরাম সভাপতি ও জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার আহ্বায়ক ড. কামাল হোসেন অসুস্থতাজনিত কারণে সভায় যোগ দিতে পারেননি বলে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়।
 
বাংলাদেশ সময়: ০১০৩ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৬, ২০১৮
এমএইচ/আরআর

ইনজুরি নিয়ে মাঠ ছাড়লেন মেসি
রোনালদোর ৪০০ গোলের মাইলফলকেও জয়বঞ্চিত জুভেন্টাস
ব্যারিস্টার মঈনুল হোসেনকে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান
৭ প্রকল্পে মিলেছে সৌদি ঋণ, পাইপ লাইনে ৪ প্রকল্প
আলফ্রেড নোবেলের জন্ম
ইতিহাসের এই দিনে

আলফ্রেড নোবেলের জন্ম

শেষ মুহূর্তে ম্যানইউ’র হোঁচট, কোচের ধ্বস্তাধস্তি 
হেড-নেক ক্যান্সার প্রতিরোধে তামাক দ্রব্য পরিহার
গণতন্ত্র রক্ষায় সবকিছু করতে প্রস্তুত আ.লীগ
রাবিতে মাথাচাড়া দিয়েছে ভর্তি জালিয়াত চক্র
দুর্বল বার্নলিকে উড়িয়ে দিয়ে শীর্ষে গার্দিওলার সিটি