শিক্ষার্থী আসে না, স্কুল যায় বাড়ি বাড়ি!

অফবিট ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

শিক্ষার্থীদের স্কুলে আনতে বাসটি যায় বাড়ি বাড়ি

walton

সাধারণত নাম ‘স্কুল বাস’ হলেও সরাসরি পড়াশোনার সঙ্গে কোনো সম্পর্ক নেই, শিক্ষার্থীদের আনা-নেওয়াটাই তার রোজকার কাজ। কিন্তু, সম্প্রতি ভারতের অরুণাচলে এমন এক বাস চালু হয়েছে, যা সত্যিকার অর্থেই ‘স্কুল বাস’। কারণ, এটি শুধু শিক্ষার্থীদের আনা-নেওয়া নয়, বরং বাসে বসিয়ে পড়ালেখাই শেখাচ্ছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানায়, অরুণাচলের অন্যতম বড় সমস্যা হচ্ছে স্থান সংকট। সেখানে স্কুলের জন্য পর্যাপ্ত জায়গার ব্যবস্থা করাই দায়। অনেক স্কুলে একাধিক শ্রেণির শিক্ষার্থীদের একই কক্ষ ভাগাভাগি করে বসতে হয়। একারণে আশঙ্কাজনক হারে কমে যাচ্ছিল শিক্ষার্থীর সংখ্যা।

এ সংকট ঠেকাতে অভিনব এক উদ্যোগ নেয় লোহিত জেলার প্রশাসন। তারা পুরনো একটি বাসে চেয়ার-টেবিল বসিয়ে ‘চলন্ত ক্লাসরুম’ তৈরি করে ফেলে। 

জেলা প্রশাসন জানায়, থোয়াং গ্রামে অনেক শিক্ষার্থীই স্কুলে আসা ছেড়ে দিয়েছিল। কিন্তু, নতুন এ স্কুল বাসে ক্লাস করার জন্য অনেকেই আকৃষ্ট হচ্ছে। এমনকি, ক্লাসের নির্ধারিত সময়ের চেয়েও বেশি সময় তারা বাসে থাকতে চাইছে।

লোহিত জেলার ডেপুটি কমিশনার প্রিন্স ধাওয়ান জানান, নতুন এ স্কুল বাসে আনন্দের সঙ্গে শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন বিষয়ে শিক্ষা নিচ্ছে। বাসের বাইরে ভারতের মানচিত্র, জাতীয় পশু ও মানবদেহের অঙ্গ-প্রত্যঙ্গের ছবি এঁকে সাজানো হয়েছে। ভেতরে বোর্ড, চেয়ার, টেবিল ও অন্য সরঞ্জামের সাহায্যে একটি শ্রেণিকক্ষের রূপ দেওয়া হয়েছে।

প্রথম উদ্যোগ সফল হওয়ায় এখন বিদ্যালয় থেকে শিশুদের ঝরে পড়া ঠেকাতে এধরনের আরও স্কুল বাস চালুর পরিকল্পনা করছে জেলা প্রশাসন।

বাংলাদেশ সময়: ১০০০ ঘণ্টা, অক্টোবর ২২, ২০১৯
এবি/একে

Nagad
লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশি হত্যা, মানবপাচারকারীর স্বীকারোক্তি
রাজশাহীতে বিদেশি পিস্তল, ম্যাগজিন ও গুলিসহ ব্যবসায়ী আটক
স্কুলছাত্রী ধর্ষণ মামলায় ছাত্রলীগ নেতা কারাগারে
মাদারীপুরে লিবিয়ায় মানব পাচার চক্রের এক নারী সদস্য গ্রেফতার
ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদককে গ্রেফতারে ফখরুলের নিন্দা


সরকারিভাবে শহীদ শেখ কামালের জন্মদিন উদযাপনের সিদ্ধান্ত
ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহর জন্ম
এন্টিবডি কিট থেকে পাটকল ll মুহম্মদ জাফর ইকবাল
যাত্রাবাড়ীতে ১০ হাজার পিস ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক
ব্রহ্মপুত্র-যমুনা-সুরমা-কুশিয়ারার পানি দ্রুত বাড়ার শঙ্কা