শ্রীমঙ্গলে প্রাকৃতিক ছড়া দখলে ভোগান্তিতে সাড়ে ৩০০ পরিবার

ডিভিশনাল সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ডুবে গেছে মানুষের বসতভিটা। ছবি: বাংলানিউজ

walton

মৌলভীবাজার: মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল উপজেলায় প্রাকৃতিক ছড়ার জমি দখল করে দোকানপাট নির্মাণে বাঁধাগ্রস্ত হচ্ছে পানি নিষ্কাশন। এর ফলে পানিবন্দি হয়ে ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে সাড়ে ৩শ পরিবারকে। জলাবদ্ধতামুক্ত রাখতে জলপ্রবাহের প্রাকৃতিক ধারা হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে এ ছড়া।

ভুক্তভোগীরা বাংলানিউজকে জানান, বুধবার (৩ জুন) দিনগত রাত থেকে বৃহস্পতিবার (৪ জুন) সকাল পর্যন্ত ব্যাপক বৃষ্টিপাত হয়। ফলে পাহাড়ি ঢল প্রাকৃতিক ছড়া দিয়ে স্বাভাবিক গতিতে প্রবাহিত না হতে পেরে জলবদ্ধতার সৃষ্টি হয়।

জানা যায়, শ্রীমঙ্গলে সাতগাঁও বাজারে সরকারি ছড়ার জায়গা দখল করে অবৈধভাবে ঘরবাড়ি ও দোকানপাট নির্মাণ করায় পানি নিষ্কাশনে বিঘ্ন ঘটছে। এতে এলাকার প্রায় সাড়ে ৩শ’ পরিবার পানিবন্দি হয়ে পড়েছে।

এলাকাবাসীরা জানান, দীর্ঘ প্রায় ১৫ বছরেরও বেশি সময় ধরে এ ভোগান্তিতে আছেন তারা। বৃহস্পতিবার এলাকাবাসী বাজারের প্রবেশদ্বারে ব্রিজের ওপর বাঁশের বেরিকেট দিয়ে প্রতিবাদ জানায়। খবর পেয়ে দুপুরে শ্রীমঙ্গল প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক এম ইদ্রিস আলী সরেজমিন পরিদর্শন এসে পরিস্থিতি ভয়াবহতা দেখে মোবাইলে বিষয়টি উপজেলা প্রশাসনকে জানান।

এর পর পরিদর্শনে আসেন উপজেলা চেয়ারম্যান রণধীর কুমার দেব, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নজরুল ইসলাম, সহকারী কমিশনার (ভূমি) মাহমুদুর রহমান মামুন, শ্রীমঙ্গল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-তদন্ত) মো. সোহেল রানা, উপজেলা এলজিইডি ইঞ্জিনিয়ার সঞ্জয় মোহন সরকারসহ প্রশাসনের কর্মকর্তারা।

এসময় ইউএনও নজরুল ইসলাম বলেন, এ ঘটনায় একটি কমিটি গঠন করা হবে। এ কমিটির দ্বারা তদন্ত করা হবে ছড়ার পাশে কারা কারা সরকারি জমি দখল করে আছেন। সরকারি জায়গা ছেড়ে দিতে দখলদারদের নোটিশ দেওয়া হবে। স্বেচ্ছায় সরকারি জায়গা ছেড়ে না দিলে প্রশানের উদ্যোগে অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদ করা হবেও জানান তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ২১২২ ঘণ্টা, জুন ০৪, ২০২০
বিবিবি/ওএইচ/

Nagad
সাংবাদিক লাবলুকে হারানোর এক বছর
সিলেটে দুই চিকিৎসকসহ করোনায় আক্রান্ত আরো ৭৪ জন
রাজধানীতে মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে যুবক নিহত
দুই বন্ধুকে পোড়াচ্ছে এন্ড্রু কিশোরের ফেলে যাওয়া স্মৃতি
ঈদুল আজহাকে কেন্দ্র করে সক্রিয় জালনোট প্রতারক চক্র


সিঙ্গাপুর থেকে ফিরলেন আটকে পড়া ১৬২ বাংলাদেশি
 হেফাজতের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র বরদাশত করা হবে না: আল্লামা শফী
জার্মান বিনিয়োগকারীদের গুরুত্বপূর্ণ গন্তব্য হবে বাংলাদেশ
স্বাস্থ্যসুরক্ষায় ডিআরইউর নতুন সংযোজন অক্সিজেন কনসেনট্রেটর
নোয়াখালীতে করোনায় আরো একজনের মৃত্যু, মোট ৫৩