সিরাজগঞ্জে বাড়ছে যমুনার পানি, প্লাবিত হচ্ছে নিম্নাঞ্চল

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

যমুনার পানি। ছবি: বাংলানিউজ

walton

সিরাজগঞ্জ: উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢল ও কয়েকদিনের টানা বর্ষণের ফলে দ্রুতগতিতে বেড়ে চলেছে যমুনা নদীর পানি। এতে সিরাজগঞ্জের যমুনা অধ্যুষিত চরাঞ্চলের নিম্নভূমি প্লাবিত হয়ে তলিয়ে যাচ্ছে শত শত একর ফসলি জমি।

শুক্রবার (২৯ মে) বিকেলে সিরাজগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী এ কে এম রফিকুল ইসলাম বাংলানিউজকে বলেন, গত কয়েক বছরে যমুনায় এত দ্রুতগতিতে পানি বাড়তে দেখা যায়নি। এক সপ্তাহের ব্যবধানে ৩ দশমিক ৭৭ মিটার পানি বেড়েছে।  

শুক্রবার সকালে সিরাজগঞ্জ শহররক্ষা বাঁধের হার্ডপয়েন্ট এলাকায় যমুনার পানি প্রবাহ রেকর্ড করা হয়েছে ১১ দশমিক ৭৯ মিটার। এক সপ্তাহ আগে শুক্রবার (২২ মে) যেখানে পানি প্রবাহ রেকর্ড করা হয়েছিল ৮ দশমিক ০২ মিটার। 

তিনি আরও বলেন, এখনো বিপদসীমার এক দশমিক ৫৬ মিটার নিচ দিয়ে যমুনার পানি প্রবাহিত হচ্ছে। তবে আরও দু-তিন দিন পানি বাড়ার আশঙ্কা রয়েছে। এরপর থেকে আবার কমতে পারে।   

এদিকে দ্রুতগতিতে যমুনার পানি বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে তলিয়ে গেছে নিম্নাঞ্চলের শত শত একর ফসলি জমি। যমুনা অধ্যুষিত জেলার ৫টি উপজেলার প্রায় ২০টি ইউনিয়নের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। শাহজাদপুর উপজেলার সোনাতনী, জালালপুর কৈজুরী, সদর উপজেলার কাওয়াকোলা, মেছড়া, কাজিপুরের খাসরাজবাড়ী, মাইজবাড়ী, তেকানি, নাটুয়ারপাড়া, চর গিরিশ ও নিশ্চিন্তপুর এবং চৌহালীর স্থল, ঘোড়জান, সদিয়া চাঁদপুর ইউনিয়নের নিম্নভুমি প্লাবিত হয়েছে। 

সিরাজগঞ্জ কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক (ডিডি) মো. হাবিবুল হক জানান, চরাঞ্চলের ৯০ একর জমির পাট, ৫০ একর জমির তিল সম্পূর্ণরূপে তলিয়ে গেছে। এছাড়াও টানা বৃষ্টির ফলে ৫৮০ একর জমির সবজি সম্পূর্ণ নষ্ট হয়ে গেছে। অনেক জমির পাকা ধান তলিয়ে গেছে। পানির মধ্যে থেকেই কৃষকেরা ধান কেটে ঘরে তুলছেন। 

বাংলাদেশ সময়: ১৮৩২ ঘন্টা, ২৯ মে, ২০২০
আরএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: সিরাজগঞ্জ
Nagad
সাংবাদিক লাবলুকে হারানোর এক বছর
সিলেটে দুই চিকিৎসকসহ করোনায় আক্রান্ত আরো ৭৪ জন
রাজধানীতে মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে যুবক নিহত
দুই বন্ধুকে পোড়াচ্ছে এন্ড্রু কিশোরের ফেলে যাওয়া স্মৃতি
ঈদুল আজহাকে কেন্দ্র করে সক্রিয় জালনোট প্রতারক চক্র


সিঙ্গাপুর থেকে ফিরলেন আটকে পড়া ১৬২ বাংলাদেশি
 হেফাজতের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র বরদাশত করা হবে না: আল্লামা শফী
জার্মান বিনিয়োগকারীদের গুরুত্বপূর্ণ গন্তব্য হবে বাংলাদেশ
স্বাস্থ্যসুরক্ষায় ডিআরইউর নতুন সংযোজন অক্সিজেন কনসেনট্রেটর
নোয়াখালীতে করোনায় আরো একজনের মৃত্যু, মোট ৫৩