নদীর পাড়ে ঈদ বিনোদন

ইমতিয়াজ আহমেদ, ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

নদীর পাড়ে ঈদ বিনোদন

walton

মাদারীপুর: ঈদের বিনোদনের একটা অন্যতম জায়গা দখল করে নিয়েছে নদ-নদীর পাড়। নদী শাসন বাঁধ, পদ্মাসেতু সংলগ্ন এলাকা, এক্সপ্রেসওয়ে। মাদারীপুর জেলার শিবচর উপজেলা ও আশেপাশের এলাকায় দেখা যায় এ চিত্র।

ঈদ বিনোদনের অংশ হিসেবে বিকেলের সময় কাটানোর জন্য নানা বয়সী মানুষের পদচারণায় মুখোর থাকছে এ সব এলাকা। 

মঙ্গলবার (২৬ মে) বিকেলে জেলার শিবচর উপজেলার পদ্মা ও আড়িয়াল খাঁ নদীর পাড় এবং পদ্মাসেতুর টোল প্লাজা থেকে ভাঙা পর্যন্ত এক্সপ্রেসওয়ে ঘুরে ঈদ বিনোদনে মেতে উঠতে দেখা গেছে বিভিন্ন এলাকার মানুষকে।

কাঁঠালবাড়ী সংলগ্ন পদ্মাসেতু এলাকা, অ্যাপ্রোচ সড়ক, আড়িয়াল খাঁ নদের হাজী শরিয়তউল্লাহ সেতুর নদী শাসন বাঁধ, কাওড়াকান্দি ঘাটের পদ্মানদীর শাসন বাঁধ, ভাঙ্গা উপজেলার পুলিয়া এলাকার এক্সেপ্রেসওয়ের সংলগ্ন নদীশাসন বাঁধ এলাকায় শতশত মানুষের আনাগোনা রয়েছে। শিশু-কিশোর, উঠতি বয়সী তরুণ-তরুণী আবার পরিবার-পরিজন নিয়েও অনেকে এসেছেন ভ্রমণে। করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় সামাজিক দূরত্ব মানার কথা থাকলেও ঘুরতে আসা এসব মানুষের মধ্যে তেমন কিছুই দেখা যায় নি। 

ভাঙ্গা উপজেলার আজিমনগর এলাকা থেকে আসা হাফিজুল ইসলাম বাংলানিউজকে বলেন, বাড়িতে বসে থাকতে থাকতে ভালো লাগছিল না। পরিবারের সবাইকে নিয়ে একটু ঘুরতে বেরিয়েছি। নদীর পাড়ের এলাকাটা বেশ চমৎকার। প্রচুর বাতাসও রয়েছে। বিকেলটা ভালো কাটছে।

স্থানীয় সাইফুল নামের এক যুবক বলেন, বিকেলে নদীর পাড়ে ঘুরতে ভালো লাগে। বিভিন্ন এলাকার লোকজন আসে। ঈদের সময় মানুষের ভিড় বেশি হয়। দূর-দূরান্ত থেকে লোকজন আসে সময় কাটাতে। আসলে আশেপাশে কোনো বিনোদনকেন্দ্র না থাকায় পদ্মা-আড়িয়াল খাঁ নদী কেন্দ্রিক এলাকা, পদ্মাসেতু আর মহাসড়কের আশেপাশেই লোকজন ঘোরাফেরা করে।

শিবচরের উৎরাইল এলাকার যুবক শাজাহান হাওলাদার বলেন, করোনা ভাইরাসের সময়টায় মূলত বাড়ি থেকে বের হইনি। ঈদকে কেন্দ্র করে একটু ঘুরতে আসলাম। দীর্ঘ আড়াই মাস পরে বাইরে আসা। সূর্যনগর থেকে পুলিয়া পর্যন্ত নদীড় পাড়ের শাশনবাধ আর পাশের দৃষ্টিনন্দন এক্সপ্রেসওয়ে দেখতে ভালোই লাগে।

সরেজিমনে ঘুরে দেখা যায়, ইজিবাইক, ভ্যান, মোটরসাইকেলে করে নানা বয়সী লোকজন এসব এলাকায় ঘুরতে এসেছে। কেউ নদীর পাড়ে বসে বাদাম খাচ্ছে আবার কেউ নদীর পানিতে পা ভিজিয়ে বসে আসে। এছাড়া নদীর পাড় ধরে অলস ভঙ্গিতে হেঁটে বেড়াচ্ছে। এদিকে লোকজনের জটলা ভঙ্গ করতে কিছুক্ষণ পরপরই হাইওয়ে পুলিশের তৎপরতা দেখা গেছে। সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে এবং মহাসড়কে ঘুরে বেড়ানো ঝুঁকিপূর্ণ হওয়ায় বিনোদন প্রেমীদের ফিরে যেতে অনুরোধ করছেন তারা।

শিবচর হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অহিদুজ্জামান জানান, ঈদের সময় মহাসড়কে, আড়িয়াল খাঁ সেতুতে সাধারণ মানুষের প্রচুর ভিড় থাকে। যেটা অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ। আমরা চেষ্টা করছি সড়কে-সেতুতে ভিড় নিয়ন্ত্রণের। মহাসড়কে আমাদের টহল অব্যাহত রয়েছে।

করোনা ভাইরাসের কারণে অনেকটাই থমকে আছে জনজীবন। এবারের ঈদের আনন্দ তাই ভাটা পড়েছে অনেকটাই। একটানা বাড়ি থেকে বোরিং হয়ে ওঠা কাটাতে বিকেলে একটু ঘুরতে বের হওয়া। দর্শণীয় তেমন কোনো স্থান না থাকায় সেতু সংলগ্ন এলাকাতেই বারবার আসতে হয়। নদীর স্নিগ্ধ বাতাস বিকেলের সময়টায় এনে দেয় অন্যরকম প্রশান্তি-ফুরফুরে মেজাজ এমনটাই অভিমত ঘুরতে আসা বিনোদন প্রেমীদের।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৫৯ ঘণ্টা, মে ২৬, ২০২০
এনটি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: ঈদ
Nagad
উন্নত ও টেকসই ভবিষ্যৎ নির্মাণই হুয়াওয়ের লক্ষ্য
১৫ জেলার নিম্নাঞ্চল বন্যায় প্লাবিত
ব্যবসায়ীর অর্ধগলিত মরদেহ: একজনের স্বীকারোক্তি
সাহারা খাতুনের মৃত্যুতে জাতিসংঘের আবাসিক সমন্বয়কের শোক
এটিএম কার্ড সংকটে গ্রাহকের ভোগান্তি


রাজশাহী ফিরেছেন এন্ড্রু কিশোরের মেয়ে
সাতক্ষীরায় করোনা রোগীসহ ২ জনের মৃত্যু
নগরের দৃষ্টিনন্দন স্থাপনায় পরিণত হবে সনদ দত্ত মহাশশ্মান
দিনে উন্মুক্ত স্থানে বর্জ্য না ফেলতে তাপসের অনুরোধ
তিনটি করে গাছ লাগানোর নির্দেশ নিবন্ধন অধিদপ্তরের