জাতীয় অধ্যাপক সুফিয়া আহমেদের ইন্তেকাল

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

জাতীয় অধ্যাপক সুফিয়া আহমেদের ইন্তেকাল

walton

ঢাকা: প্রথম নারী জাতীয় অধ্যাপক, ভাষা সৈনিক একুশে পদকপ্রাপ্ত ড. সুফিয়া আহমেদ (৮৭) ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

বৃহস্পতিবার (০৯ এপ্রিল) রাতে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন বলে জানিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মো.আসাদুজ্জামান।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের সাবেক অধ্যাপক সুফিয়া আহমেদ ছিলেন তত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা ব্যারিস্টার সৈয়দ ইশতিয়াক আহমেদের স্ত্রী এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য ও বিচারপতি মুহাম্মদ ইব্রাহিমের কন্যা।

তিনি বাংলাদেশ ইতিহাস পরিষদের প্রতিষ্ঠাকালীন সদস্যসহ পরিষদের গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্বরত ছিলেন। এমন অবদানের জন্য মহান একুশে পদক লাভ করেন তিনি।

ভাষা সৈনিক এ প্রবীণ অধ্যাপকের মৃতুতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ও বাংলাদেশ ইতিহাস পরিষদের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অধ্যাপক ড. আখতারুজ্জামান ও ইতিহাস পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ও ঢাবি প্রক্টর অধ্যাপক ড. একেএম গোলাম রব্বানী গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।

অধ্যাপক ড. একেএম গোলাম রব্বানী বাংলানিউজকে বলেন, আমাদের পরম শ্রদ্ধেয় ভাষা কন্যা, একুশে পদকপ্রাপ্ত,বাংলাদেশের প্রথম মহিলা জাতীয় অধ্যাপক ড. সুফিয়া আহমেদের বাংলাদেশ ইতিহাস পরিষদ গভীর শোক প্রকাশ করছে। আমরা বিদেহী আত্মার মাগফিরাত ও শোকাহত পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জানাচ্ছি।

জানাজার বিষয়টি এখনো নির্ধারিত হয়নি বলে তিনি জানান।

‘৫২’র ভাষা আন্দোলনের এ সংগ্রামী মৃত্যুকালে এক ছেলে হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতি সৈয়দ রেফাত আহমেদ, এক মেয়ে ডা. রাইনা আহমেদ, জামাতা ব্যারিস্টার আনাতুল ফাতেহ এবং তিনজন নাতি নাতনি রেখে গেছেন।

বাংলাদেশ সময়: ২২৩১,এপ্রিল ০৯,২০২০
ইএস/ এসকেবি/এমএমএস

করোনার কারণে সংকুচিত হচ্ছে কর্মসংস্থান
ফ্লয়েড করোনা আক্রান্ত ছিলেন
কুড়িগ্রামে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে তরুণীর মৃত্যু
ইন্দুরকানীতে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ১০
আশুলিয়ায় বাসচাপায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত


রণবীরের ‘৮৩’ নিয়ে দীপিকার বিড়ম্বনা
করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৩৫ মৃত্যু, শনাক্ত ২৪২৩ জন
ভালুকায় এনআরবিসি ব্যাংকের উপশাখার কার্যক্রম শুরু
ভারতে করোনায় মৃত্যুহারে শীর্ষে মোদীর রাজ্য
মানুষকে সুরক্ষিত করতে প্রাণপণে চেষ্টা করছি: প্রধানমন্ত্রী