বিনা ভাড়ায় চিকিৎসকদের যাতায়াত সেবা দিচ্ছে ‘ক্র্যাক প্লাটুন’

গৌতম চন্দ্র ঘোষ ও শাওন সোলায়মান, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

০১ এপ্রিল থেকে যাত্রা করেছে ‘ক্র্যাক প্লাটুন’, ছবি: বাংলানিউজ

walton

ঢাকা: করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি মোকাবিলায় চলছে সাধারণ ছুটি। রয়েছে যান চলাচল বন্ধ। এ সংকটে চিকিৎসক, নার্সসহ স্বাস্থ্যকর্মীদের বিনা ভাড়ায় হাসপাতালে যাতায়াতের ব্যবস্থা করতে রাজধানীতে নেমেছে ‘ক্র্যাক প্লাটুন পরিবহন সেবা’। শহরের প্রায় ৪০টি হাসপাতাল আওতায় এনে ১২টি মাইক্রোবাস এবং চারটি বাস নিয়ে সেবাটি চালু করেছে প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান বন্ডস্টাইন এবং স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন দ্য আর্থ।

বুধবার (০১ এপ্রিল) থেকে রাজধানীজুড়ে আটটি গন্তব্য লক্ষ্য রেখে প্রতিটির জন্য দুইটি রুট হিসেবে মোট ১৬টি রুটে যাতায়াত শুরু করে ক্র্যাক প্লাটুনের পরিবহন বহর। এর আগে মঙ্গলবার (৩১ মার্চ) ক্র্যাক প্লাটুনের কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ডা. আবুল কালাম আজাদ এবং স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি ডা. জামাল উদ্দিন চৌধুরী। সেদিনই পুরো কার্যক্রমের পরীক্ষামূলক পরিবহন এবং সমন্বয় পরীক্ষা সম্পন্ন হয়।

সাধারণ ছুটির সময়ে চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের পরিবহনজনিত সমস্যা লাঘব করতে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অনুমোদন ও তত্ত্বাবধানে এ সেবা চলছে। বন্ডস্টাইন এবং দ্য আর্থ-এর এই উদ্যোগে পৃষ্ঠপোষকতা করছে ডিবিএল ফার্মাসিউটিক্যালস। এছাড়া এতে গ্লোবাল শেপার্স ঢাকা হাবের সহায়তা এবং স্বেচ্ছাসেবক ব্যবস্থাপনা রয়েছে করোনা প্রতিরোধ সংঘের।

বন্ডস্টাইন টেকনোলজিসের পরিচালক যাফির শাফিঈ চৌধুরী বাংলানিউজকে বলেন, আমাদের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মীর শাহরুখ ইসলাম এবং দ্য আর্থ-এর সহ-প্রতিষ্ঠাতা সাদেকুল আরেফিন মিলে একদিন চিকিৎসকদের যাতায়াতের সমস্যা নিয়ে ফেসবুকে আসা বিভিন্ন পোস্ট দেখতে পাই। গণপরিবহণ বন্ধ থাকায় অনেক চিকিৎসককেই বাসা থেকে হাসপাতাল এবং হাসপাতাল থেকে বাসায় যাতায়াতে ভোগান্তি পোহাতে হয়। আমরা ভাবতে শুরু করি, তাদের জন্য কী করা যায়। কারণ এই সময়ে হাসপাতালে চিকিৎসকদের সংকট কোনোভাবেই কাম্য নয়। তখন আমাদের মধ্যে প্রযুক্তি পরিচালিত বিনামূল্যে একটি পরিবহন ব্যবস্থার আইডিয়া আসে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় আমরা প্রকল্পটির নাম দিই ‘ক্র্যাক প্লাটুন’।

দ্য আর্থ-এর সাদেকুল আরেফিন বাংলানিউজকে বলেন, আমাদের এই আইডিয়া বাস্তবে সফল করতে সার্বিক পৃষ্ঠপোষকতা নিয়ে এগিয়ে এসেছে ডিবিএল ফার্মাসিউটিক্যালস। এছাড়া যেহেতু আমাদের গাড়িগুলোতে চিকিৎসকরা পরিবহন করবেন, তাই প্রতিবার পিক অ্যান্ড ড্রপের পর এগুলোকে জীবাণুনাশক দিয়ে যথাযথভাবে পরিষ্কার করা হবে। আর এই কাজে আমাদের সহায়তা দিচ্ছে বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরামের একটি উদ্যোগ গ্লোবাল শেপার্স ঢাকা হাব।

তিনি বলেন, আমরা ঢাকা শহরের প্রায় ৪০ থেকে ৫০টি হাসপাতালকে প্রথমে টার্গেট করেছি। এছাড়া প্রতিবার পরিবহনকালে যেন চিকিৎসকদের মাঝেও সামাজিক দূরত্ব বজায় থাকে, সেজন্য বাস ও মাইক্রোবাসের ধারণ ক্ষমতার তুলনায় কম যাত্রী আমরা পরিবহন করব। ১২ জন ধারণ ক্ষমতার প্রতিটি মাইক্রোতে পাঁচজন এবং ২৭ জন ধারণ ক্ষমতার প্রতিটি বাসে ১২ থেকে ১৪ জনকে পৌঁছে দেওয়া হবে। এ হিসেবে প্রতিবার ১০৮ থেকে ১১৬ জন চিকিৎসক পরিবহনের সক্ষমতা আছে আমাদের। আমরা আশা করছি আরও পৃষ্ঠপোষকতা পাব। পেলে ক্র্যাক প্ল্যাটুনে পরিবহন সংখ্যাও বাড়বে।

প্রতিদিন তিন সময়ে চিকিৎসকদের আনা-নেওয়া করা হবে জানিয়েছেন বন্ডস্টাইনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মীর শাহরুখ ইসলাম। প্রতিদিন সকাল ৮টা, দুপুর ২টা এবং রাত ৮টা; এই তিন শিফটে চলাচল করবে পরিবহনগুলো। ক্র্যাক প্লাটুনের পরিবহনগুলোর সঙ্গে চিকিৎসকদের যুক্ত করতে গুগলের পাশাপাশি কাজ করবে প্রতিষ্ঠানটির নিজস্ব প্রযুক্তি টুলস ‘ইয়েলো বক্স’ও।

শাহরুখ ইসলাম বলেন, চিকিৎসকরা গুগল ফর্মের মাধ্যমে নিবন্ধন করবেন। সেখানেই তারা তাদের পরিবহনে ওঠার এবং নামার স্থান নির্ধারণ করে দেবেন। তাদের সঙ্গে পরিবহনগুলোর সমন্বয় করিয়ে দিতে এবং পরিবহনগুলোকে লাইভ ট্র্যাকিং করার জন্য থাকবে ইয়েলো বক্স। এছাড়া এরইমধ্যে আমাদের এখানে ২৫০ জনের অধিক চিকিৎসক নিবন্ধন করেছেন।

শুধু রুটিন পরিবহনই না, বরং জরুরি প্রয়োজনেও, চিকিৎসকের সংখ্যা একজন হলেও তার যাতায়াতে থাকবে ক্র্যাক প্লাটুন। এরজন ২৪ ঘণ্টা সচল থাকা একটি হটলাইন নম্বর (০৯৬৩৯৫৯৫৯৫৯) এবং কল সেন্টারও নিজস্ব প্রযুক্তিতে পরিচালনা করবে বন্ডস্টাইন।

এদিকে, চালু হওয়ার প্রথমদিনেই ক্র্যাক প্লাটুনের সুফল পেতে শুরু করেছেন চিকিৎসকরা। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ফার্মেসি বিভাগের অধ্যাপক ডা. অজিত কুমার দাস বাংলানিউজকে বলেন, আমার খুব অসুবিধা হচ্ছিল যাতায়াতে। গতকাল আমি তাদের সঙ্গে যোগাযোগ (নিবন্ধন) করেছিলাম। এরপর গতকাল রাতেই তারা আমার সঙ্গে যোগাযোগ করে। আজ সকালে ঠিক সময়ে আমার জায়গায় গাড়ি চলে আসে। আমি একাই ছিলাম। আমাকে একাই ঢাকা মেডিক্যালে পৌঁছে দিয়েছে সকাল ৮টার মধ্যে।

‘আবার আমাকে ১১টা নাগাদ ফোন দিল যে, আমাকে কখন তুলে নেবে। আমি বললাম, দুটোর দিকে, দুটোর পরপর। ওরা বসেছিলেন গাড়ি নিয়ে, আমাকে ঠিক সময়ে নিয়ে চলে এসেছে। আমি তো খুবই খুশি, এরকম একটা সার্ভিস দিচ্ছে। আরেকটা জিনিস আমার রিফ্লেকশন হচ্ছে। আমার মধ্যে মনে হয়, এরা যে সার্ভিসটা আমাদের জন্য দিচ্ছে, সেটা আমরা মানুষের সেবা করছি বলে। তাই দায়িত্ববোধটা আমাদের বেড়ে যাচ্ছে। মনে হচ্ছে যেন সত্যি আমাদের আরও বেশি করার আছে। যেটা আমাদের করা উচিত। সবমিলে সার্ভিসটা খুব সুন্দর। আমি আমার কলিগদেরও এ ব্যাপারে শেয়ার করেছি। ওরা যেন যোগাযোগ করে।’

ক্র্যাক প্লাটুনে চিকিৎসক হিসেবে নিবন্ধনের লিঙ্ক এটা- bit.ly/crackplatoontransport

আর পরিবহণগুলোর রুট এবং সর্বশেষ তথ্য দিতে থাকছে আরও একটি ওয়েবসাইট। bit.ly/crackplatoonroutes এই লিঙ্ক থেকে চিকিৎসক নিজের জন্য প্রযোজ্য রুটও দেখতে পারবেন।

দেখুন বাংলানিউজকে দেওয়া বন্ডস্টাইন টেকনোলজিসের পরিচালক যাফির শাফিঈ চৌধুরীর সাক্ষাৎকার 

বাংলাদেশ সময়: ১৯০৮ ঘণ্টা, এপ্রিল ০১, ২০২০
জিসিজি/এসএইচএস/টিএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: চিকিৎসাসেবা করোনা ভাইরাস
করোনার কারণে সংকুচিত হচ্ছে কর্মসংস্থান
ফ্লয়েড করোনা আক্রান্ত ছিলেন
কুড়িগ্রামে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে তরুণীর মৃত্যু
ইন্দুরকানীতে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ১০
আশুলিয়ায় বাসচাপায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত


রণবীরের ‘৮৩’ নিয়ে দীপিকার বিড়ম্বনা
করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৩৫ মৃত্যু, শনাক্ত ২৪২৩ জন
ভালুকায় এনআরবিসি ব্যাংকের উপশাখার কার্যক্রম শুরু
ভারতে করোনায় মৃত্যুহারে শীর্ষে মোদীর রাজ্য
মানুষকে সুরক্ষিত করতে প্রাণপণে চেষ্টা করছি: প্রধানমন্ত্রী