না’গঞ্জ কারাগারে ফোনে কথা বলার সুযোগ বন্দিদের

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

না’গঞ্জ কারাগারে ফোনে কথা বলার সুযোগ বন্দিদের।

walton

নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জ জেলা কারাগারের বন্দিদের সঙ্গে তাদের স্বজনদের ফোনে কথা বলার সুযোগ দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি কারাগারের গার্মেন্টসটিতে বন্দিদের তৈরি করা মাস্ক মাত্র ১০ টাকায় বিক্রি করছে কারা কর্তৃপক্ষ। 

বুধবার (২৫ মার্চ) রাতে জেলা কারাগারের জেল সুপার সুভাষ কুমার ঘোষ বাংলানিউজকে এ তথ্য জানান।

এর আগে সকালে জেল সুপার সুভাষ কুমার ঘোষ টেলিফোন বুথ উদ্বোধন করেন। এ বুথে মোট ১০টি টেলিফোন রয়েছে। সেখানে বন্দিদের কথোপকথন রেকর্ড করা হবে। প্রতি সপ্তাহে একবার একজন বন্দি তার পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে অনধিক পাঁচ মিনিট কথা বলতে পারবেন। এজন্য মিনিট প্রতি বন্দিকে দিতে হবে এক টাকা যা তার প্রিজন ক্যান্টিন (পিসি) অ্যাকাউন্ট থেকে কেটে নেওয়া হবে। মূলত এ পিসি অ্যাকাউন্টে বন্দিদের স্বজনরা বন্দির ব্যক্তিগত খরচের টাকা জমা রাখেন।

জেল সুপার সুভাষ কুমার ঘোষ জানান, সারাবিশ্বে মহামারি করোনা ভাইরাস প্রাদুর্ভাবে কারাবন্দির স্বজনরা যেমন তাদের নিয়ে চিন্তিত তেমনি স্বজনদের নিয়েও বন্দিরা দুশ্চিন্তা করেন। এর মধ্যে করোনা ভাইরাসের ঝুঁকি এড়াতে বন্দিদের সঙ্গে সাক্ষাতেও আমরা নিরুৎসাহিত করছি। এজন্য সরকার বন্দিদের এ কথা বলার সুযোগ দিয়েছে। তবে আমরা বন্দিদের এ কথোপকথনের ওপর নজর রাখবো।
 
তিনি বলেন, বন্দিরা  করোনা ভাইরাস প্রাদুর্ভাবে বাইরের সাধারণ মানুষের জন্য কারাগারের গার্মেন্টসে মাস্ক তৈরি করছেন। যা কারাগারের বাইরে ১০ টাকায় বিক্রি করা হচ্ছে। এছাড়া কারারক্ষী ও কারাবন্দিদের জন্য মাস্কের ব্যবস্থা করা হয়েছে। ভেতরে ও বাইরে হ্যান্ড স্যানিটাইজার, সাবান ও পানির পর্যাপ্ত ব্যবস্থা করা হয়েছে যেন কোনো সমস্যা না হয়। বন্দিদের সঙ্গে যারা সাক্ষাতে করতে আসবেন তারাও এ হ্যান্ড স্যানিটাইজার দিয়ে হাত ধোয়ার পর সাক্ষাৎ করতে পারবেন।

বাংলাদেশ সময়: ০৬৪৮ ঘণ্টা, মার্চ ২৫, ২০২০
আরআইএস/

Nagad
কণ্ঠশৈলীর জন্য অমর হয়ে থাকবেন এন্ড্রু কিশোর: রুনা লায়লা
এন্ড্রু কিশোরের মৃত্যুতে শোকে মুহ্যমান রাজশাহী
দেশব্যাপী উদীচীর প্রতিবাদ সমাবেশ
শেবাচিমে করোনা উপসর্গ নিয়ে ২ রোগীর মৃত্যু
আমার নিঃশ্বাস বন্ধ হয়ে আসছে: আলম খান


ঢাকার জেলা ও দায়রা জজ হলেন শওকত আলী চৌধুরী
দুবাইয়ে বিমানের ২ ফ্লাইট
আয়মান সাদিককে হত্যার হুমকি, তদন্তে পুলিশ
আমরা আজীবন আপনার অবদানের জন্য ঋণী হয়ে থাকবো: জয়া
শিক্ষার্থীদের বিনামূল্যে ইন্টারনেট প্যাকেজ দেওয়ার আহ্বান