ঢাকা, বুধবার, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৭, ১২ আগস্ট ২০২০, ২১ জিলহজ ১৪৪১

জাতীয়

১৪ ডিসেম্বর বান্দরবান মুক্ত দিবস

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৭০৬ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৪, ২০১৯
১৪ ডিসেম্বর বান্দরবান মুক্ত দিবস

বান্দরবান: ১৯৭১ সালের ১৪ ডিসেম্বর হানাদার মুক্ত হয় পার্বত্য জেলা বান্দরবান। জেলা শহরের বর্তমান পানি উন্নয়ন বোর্ডের অফিসে মুক্তিযোদ্ধারা প্রথম লাল-সবুজের বিজয়ের পতাকা উড়িয়ে জানিয়ে দেন বান্দরবান হানাদার মুক্ত করা হয়েছে।

দেশের অন্য স্থানের মত বান্দরবানে বড় ধরনের যুদ্ধ না হলেও সেসময় বান্দরবানের রোয়াংছড়ি উপজেলার নোয়াপতং ইউনিয়নের ক্যানাইজু পাড়ায় পাকিস্তানি হানাদারের সঙ্গে যুদ্ধে শহীদ হন মুক্তিযোদ্ধা টিএম আলী।
 
রাজাকাররা বান্দরবান সদরের বালাঘাটার চড়ুই পাড়া এলাকায় আলী আহম্মদ, কাশেম আলীসহ তিনজনকে হত্যা করে।

এছাড়া কোর্ট দারগা মনমোহন ভট্টচার্য্য ও তার শিশু সন্তান রতনকেও মেঘলা এলাকায় নিয়ে হত্যা করে।  

যুদ্ধের সময় রোয়াংছড়ির নোয়াপতং ইউনিয়নের ক্যানাইজু পাড়া এলাকায় পাকিস্তানি হানাদারের সঙ্গে মুক্তিযোদ্ধাদের যুদ্ধ হয়। সেখানে শহীদ হন মুক্তিযোদ্ধা টিএম আলী। এরপরই মুক্তিযোদ্ধাদের তীব্র প্রতিরোধের মুখে সেখান থেকে হানাদাররা পিছু হটতে শুরু করে।
 
১৯৭১ সালের ১৪ই ডিসেম্বর হানাদার মুক্ত হয় পার্বত্য জেলা বান্দরবান। ওই দিন বান্দরবানের মুক্তিকামী জনগণ জয়বাংলা বলে আনন্দ উল্লাস করে বিজয়ের পতাকা উত্তোলন করে। তৎকালীন মহুকুমা প্রশাসক আবদুর শাকুরের নেতৃত্বে মুক্তিযোদ্ধা এবং স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতারা সেদিন বিজয়ের পতাকা উত্তোলন করেন।

বাংলাদেশ সময়: ০২০৬ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৪, ২০১৯
জেআইএম/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

জাতীয় এর সর্বশেষ

Alexa