ঢাকা, শনিবার, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৭, ০৮ আগস্ট ২০২০, ১৭ জিলহজ ১৪৪১

জাতীয়

তেঁতুলিয়ায় চা বাগান থেকে দেহবিহীন মাথা উদ্ধার

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০১০৭ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৩, ২০১৯
তেঁতুলিয়ায় চা বাগান থেকে দেহবিহীন মাথা উদ্ধার

পঞ্চগড়: পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়া উপজেলায় মাথাবিহীন দেহ উদ্ধারের পাঁচদিন পর চা বাগান থেকে একটি মাথা উদ্ধার করেছে পুলিশ। 

মঙ্গলবার (২২ অক্টোবর) বেলা ১১টার দিকে পঞ্চগড়-বাংলাবান্ধা মহাসড়কের পাশে আজিজনগর গ্রামের নুরুল ইসলাম নুরুর চা বাগান থেকে দেহ বিহীন মাথাটি উদ্ধার করা হয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, চা বাগান মালিক সদর ইউপির আজিজনগর গ্রামের নওশের আলীর ছেলে নুরুল ইসলাম নুরু সকাল ৯টার দিকে কাচা চা পাতা তুলতে বাগানে গেলে দুর্গন্ধ পান।

গন্ধের কারণ জানতে চেষ্টা করলে দেহবিহীন মাথাটি দেখতে পায়। তাৎক্ষণিক থানা পুলিশকে খবর দেন। পুলিশ ঘটনাস্থলে মাথা উদ্ধার করে পঞ্চগড় সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

এসময় পঞ্চগড় পুলিশ সুপার মোহামদ ইউসুফ আলী, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুদর্শন কুমার রায়সহ মডেল থানা পুলিশ, ডিবি পুলিশের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

তেঁতুলিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-তদন্ত) আবু সাঈদ চৌধুরী বাংলানিউজকে জানান, দেহবিহীন মাথাটি ৫ দিন আগে মাথাবিহীন দেহেরই হতে পারে এমনটিই ধারণা করা যাচ্ছে। তবে উদ্ধারকরা মাথা ও দেহ ডিএনএ পরীক্ষা এবং পুলিশের তদন্ত ছাড়া নিশ্চিত ভাবে বলা যাচ্ছে না।

গত ১৮ অক্টোবর (শুক্রবার) তিরনইহাট ইউপির ব্রহ্মতোল গ্রামের ঝিকধুয়া খালের স্লুইচ গেটের ডোবা থেকে উদ্ধার করা মাথাবিহীন একটি দেহ। ওই দেহেরই মাথা হতে পারে বলে প্রাথমিক ধারণা  করছে পুলিশ। এ ঘটনায় এসআই শাহাদাত হোসেন বাদী হয়ে হত্যার অভিযোগে অজ্ঞাতনামাদের নামে মামলা করেন। মামলার পর হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহে  তিরনইহাট ইউনিয়নের যোগীগছ গ্রামের আজিমুদ্দিনের ছেলে রুবেল ও ব্রহ্মতোল গ্রামের নাজিম উদ্দীনের ছেলে আব্দুল বারেকে আটক করে ডিবি পুলিশ।  

মাথাবিহীন দেহটি নোয়াখালী জেলার বেগমগঞ্জ উপজেলার লক্ষ্মী নারায়ণপুর গ্রামের আব্দুর রউফ বলে শনাক্ত করে ডিবি পুলিশ।  

বাংলাদেশ সময়: ২১০৩ ঘণ্টা, অক্টোবর ২২, ২০১৯
এসএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

জাতীয় এর সর্বশেষ

Alexa