গোপালগঞ্জে বাস ও ট্রাকের সংঘর্ষে নিহত ৪, আহত ১১

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

উদ্ধার কার্যক্রম চালাচ্ছে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা

walton

গোপালগঞ্জ: গোপালগঞ্জে যাত্রীবাহী বাস ও ট্রাকের সংঘর্ষে চারজন নিহত ও অন্তত ১১ জন আহত হয়েছেন। যাত্রীবাহী বাসটি ঢাকা থেকে পিরোজপুরের নাজিরপুর যাচ্ছিল।

শনিবার (২১ সেপ্টেম্বর) ভোর রাত তিনটার দিকে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার শোনাশুর নামক স্থানে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। গোপালগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের কর্মী ও পুলিশ হতাহতদের উদ্ধার করে গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে পাঠিয়েছে।

ঘটনাস্থলে নিহতরা হলেন- নারায়ণ হাওলাদারের ছেলে বিজন হাওলাদার (২৫), নুর ইসলামের ছেলে রাসেল (২৪) এবং যশোরথ মন্ডলের ছেলে কমল মণ্ডল (২৫)। তারা সবাই পিরোজপুর জেলার নাজিরপুর উপজেলার বিভিন্ন স্থানের বাসিন্দা।

ফরিদপুরের ভাঙ্গা হাইওয়ে থানার ওসি আতাউর রহমান ও গোপালগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক মো. জানে আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

গোপালগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক মো. জানে আলম জানান, রাত তিনটার দিকে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা ইমাদ পরিবহনের পিরোজপুরের নাজরপুরগামী একটি নৈশ কোচ (ঢাকা মেট্রো-ব-১৫-৩৮৫৫) ঘটনাস্থলে পণ্যবাহী একটি দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাকের (ঢাকা মেট্রো-ট-২০-৭০৮৪) পিছনে এসে সজোরে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই বাসের তিন যাত্রী নিহত ও আরও ১২ যাত্রী আহত হন। এদের মধ্যে কয়েক জনের অবস্থা গুরুতর।

মারাত্মক আহত অবস্থায় গোপালগঞ্জ পুলিশের লাইন্সের এসআই আব্দুর রশিদকে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হলে তিনি সেখানে  মারা যান।

বাকি গুরুতর আহতদের গোপালগঞ্জ ২৫০শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ০৭০৫, সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৯
জেআইএম

ডাক্তার হওয়ার স্বপ্ন কৃষক কন্যা মরিয়মের
বেনাপোলে সর্দারকে বেঁধে রাখলেন সাধারণ শ্রমিকরা
করোনা সন্দেহে মরদেহ রেখে উধাও স্বজনরা
বরিশালে আরও ৪০ জনের করোনা শনাক্ত
বাস ভাড়া হয়ে গেল প্রায় প্লেনের সমান!


জিপিএ ৫- এ মধুপুর শহীদ স্মৃতি উচ্চ মাধ্যমিক সেরা 
মৌলভীবাজারে আরও ৩০ জনের করোনা শনাক্ত 
অর্ধেক যাত্রী নিয়ে চললেও প্লেনের ভাড়া বাড়েনি
নাগরপুরের এসিল্যান্ড করোনায় আক্রান্ত
করোনা: চট্টগ্রামে নতুন আক্রান্ত ১১৮ জন