php glass

সে সাংবাদিক না, কেনো ছবি তুললো: মিন্নির বাবা

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

...

walton

বরগুনা: সাংবাদিক না হয়েও বোরকা পরে নারী সেজে মিন্নির ছবি তোলা মানুষটি কে? পুলিশ প্রশাসনের কাছে জানতে চেয়েছেন মিন্নির বাবা। তিনি মনে করেন, তার মেয়ে ও পরিবারের সবাইকে শেষ করে দিতে ছক এঁকেছে তার শত্রুরা।

বুধবার (১৮ সেপ্টেম্বর) রিফাত হত্যা মামলার অভিযোগপত্রের শুনানির দিন আদালতের কার্যক্রম শুরুর আগে বরগুনা জেলা কারাগারে থাকা এ মামলার অপর সাত অভিযুক্তকে আদালতে হাজির করে পুলিশ। সকালে অভিযোগপত্রের শুনানি অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও মামলার মূল নথি বরগুনা জেলা ও দায়রা জজ আদালতে থাকায় শুনানি শুরু হতে বিলম্ব হয়। এ অবস্থায় বেলা ১১টার দিকে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মো. সিরাজুল ইসলাম গাজী অভিযোগপত্র শুনানির জন্য দুপুর ২টায় নির্ধারণ করেন।

এর আগে আদালতে হাজির হতে সকাল ৯টার দিকে মিন্নি তার বাবা মোজাম্মেল হোসেন কিশোরের মোটরসাইকেলে চড়ে আদালতে আসেন। আদালতের কার্যক্রম শুরু হওয়ার আগ পর্যন্ত বাবার সাথেই আদালতের একটি কক্ষে অবস্থান করেন মিন্নি। এসময় অভিযোগপত্র শুনানির জন্য বিচারক দুপুর ২টায় সময় নির্ধারণ করায় বেলা ১১টার দিকে বাবা মোজাম্মেল হোসেন কিশোরের সঙ্গে মোটরসাইকেলে বাসায় যান মিন্নি।

আদালত থেকে বেরিয়ে বাবার মোটরসাইকেলে ওঠার আগ পর্যন্ত মিন্নির ছবি সংগ্রহ করেন স্থানীয় সংবাদকর্মীরা। মামলার শুনানিকে ঘিরে আদালত প্রাঙ্গন নিরাপত্তা জোরদারের জন্য সকাল থেকে পুলিশ ও সাদা পোশাকে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা দায়িত্ব পালন করেছেন। এরআগেও রিফাত হত্যা মামলার আসামিদের গ্রেফতারের পর আদালতে সোপর্দ, রিমান্ড শুনানি, স্বীকারোক্তি প্রদানসহ মামলার জামিন শুনানির দিন বরগুনার আদালত প্রাঙ্গণ ছিল নিরাপত্তাবেষ্টনীতে মোড়ানো।

নিরাপত্তার মধ্যে আদালত প্রাঙ্গণে দাড়িয়ে যখন সাংবাদিকরা যখন মিন্নির ছবি তুলছিলেন তখন মোবাইল হাতে মিন্নির ছবি তুলতে হাজির হন এক বোরকা পরিহিত নারী। সংবাদকর্মীদের পাশাপাশি মিন্নির ছবি তুলছেন ওই নারী। বিষয়টি নিয়ে সন্দেহ হয় স্থানীয় সাংবাদিকদের। সর্বাঙ্গ ঢেকে মিন্নির ছবি তোলা ওই ব্যক্তি ‘নারী নয় বরং পুরুষ’এমনটিও বলেছেন কেউ কেউ। তবে ওই ব্যক্তির পরিচয় জানা যায়নি।

আদালতে পেশাগত দায়িত্ব পালনে থাকা কয়েকজন সাংবাদিক বলেন, অভিযোগপত্রের শুনানি থাকায় বুধবার সকাল ৯টার দিকে আদালতে উপস্থিত হন মিন্নি। আদালতের কার্যক্রম শুরু না হওয়ায় এজলাসের পাশের একটি কক্ষে বাবার সঙ্গে বসে থাকেন তিনি। এ সময় হাত-পায়ে মোজা ও বোরকা পরিহিত এক ব্যক্তি মিন্নির কক্ষের বাইরে ঘোরাফেরা করেন। তবে বিষয়টি তখন আমরা গুরুত্ব দেইনি।
এরপর আদালত প্রাঙ্গণে ছবি তোলার সময় সাংবাদিকদের সঙ্গে ধাক্কাধাক্কি করে মিন্নির ছবি তুলেছেন ওই ব্যক্তি। তাকে দেখে মনে হয়েছে, ‘তিনি নারী নয়, পুরুষ।’

বরগুনা প্রেস ক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা কাদের জানান, বোরকা পরিহিত নারীকে মনে হয়েছে তিনি পুরুষ। কারণ তিনি সকল পুরুষের মাঝে গিয়ে অনায়াসে ছবি তুলছিলেন। এতে মিন্নিসহ মিন্নির পরিবার আরো ভীত হয়ে যাচ্ছে। বোরকা পরিহিত ব্যক্তিকে খুঁজে বের করতে পারলে জানা যাবে আসলে সে কে?।

মিন্নির বাবা মো. মোজাম্মেল হোসেন কিশোর বাংলানিউজকে জানান, বোরকা পরিহিত নারী সেতো সাংবাদিক না, কেনো ছবি তুললো, আমি জানতে চাই বোরকা পরিহিত মহিলা কে?। আমার পরিবারকে বাঁচতে দিন। পুলিশের কাছে এমন অনুরোধ তিনি বলেন, মিন্নিকে নিয়ে আদালত থেকে তারাতারি বের হবার কারণে বোরকা পরিহিত নারীকে দেখেও আমি তাকে কিছু বলতে পারিনি। তাছাড়া ওই নারী সেজে ছবি তোলা ব্যক্তি আমার পরিবারের সদস্য নয়। তাকে খুঁজে বের করুন।

বরগুনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবির মোহাম্মদ হোসেন বাংলানিউজকে জানান, ঘটনাটি সাংবাদিকদের মাধ্যমে আমরা জেনেছি। বোরকা পরিহিত ওই নারীর খোঁজ নিতে মাঠে নেমেছে পুলিশ।

বাংলাদেশ সময়: ০০১৮ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৯
এমএমএস

সদরঘাটে লঞ্চে সহকর্মীর বটির কোপে নিহত ১
আবারও ফোল্ডিং ফোন আনছে মটোরোলা
নানিকে হত্যা করে নাতির আত্মসমর্পণ
‘দেশের শিশুদের অনুপ্রেরণা শেখ রাসেল’
খুলনায় রিকশা সঙ্কটে জনজীবনে দুর্ভোগ


সাভারে সুতার গোডাউনে আগুন, নিয়ন্ত্রণে ৫ ইউনিট
বাংলাদেশ আজ বিনিয়োগের উর্বর ভূমি
উন্নয়নের গণতন্ত্রের নাম অন্য কোথাও শুনিনি: রব
শিশু নির্যাতন রোধে ইসলামের নির্দেশনা
লিভারের সমস্যা নিয়ে হাসপাতালে অমিতাভ বচ্চন