ঝালমুড়ি খাওয়ানোর লোভ দেখিয়ে শিশুকে ধর্ষণ!

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ধর্ষক সাদ্দাম

walton

নেত্রকোনা: ঝালমুড়ি খাওয়ানো লোভ দেখিয়ে শিশুটিকে ধর্ষণ করা হয় বলে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন ধর্ষক সাদ্দাম হোসেন (৩৫)।

রোববার (১৫ সেপ্টেম্বর) দিনগত রাতে জেলার জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক সাদিকুর রহমানের কাছে তিনি স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

সাদ্দাম আটপাড়া উপজেলার সুনই ইউনিয়নের ইছাইল গ্রামের দুলাল মিয়ার ছেলে। পেশায় তিনি একজন ঝালমুড়ি বিক্রেতা।

নেত্রকোনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মো. শাহজাহান মিয়া বাংলানিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

সাদ্দামের বিরুদ্ধে আটপাড়া থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে দায়েরকৃত মামলার বরাত দিয়ে পুলিশ কর্মকর্তা শাহজাহান জানান, শনিবার (২৪ আগস্ট) দুপুরে ঝালমুড়ি খাওয়ানো লোভ দেখিয়ে গ্রামের জঙ্গলে নিয়ে প্রতিবেশীর মেয়েকে ধর্ষণ করে সাদ্দাম।

পরবর্তীতে বিষয়টি জানাজানি হলে শিশুর বাবা সংশ্লিষ্ট থানায় মামলা করেন। তবে ঘটনার পর থেকেই সাদ্দাম আত্মগোপনে চলে যান। পরে সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার একটি গ্রাম থেকে তাকে গ্রেফতার করে রোববার (১৫ সেপ্টেম্বর) বিকেলে নেত্রকোনায় এনে দিনগত রাতে আদালতে পাঠানো হয়।

আদালতে বিচারকের কাছে সাদ্দাম তার অপরাধ স্বীকার করেন। বিচারক তার স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি গ্রহণ করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

বাংলাদেশ সময়: ১০০৮ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৯
আরএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: নেত্রকোণা
ডাক্তার হওয়ার স্বপ্ন কৃষক কন্যা মরিয়মের
বেনাপোলে সর্দারকে বেঁধে রাখলেন সাধারণ শ্রমিকরা
করোনা সন্দেহে মরদেহ রেখে উধাও স্বজনরা
বরিশালে আরও ৪০ জনের করোনা শনাক্ত
বাস ভাড়া হয়ে গেল প্রায় প্লেনের সমান!


জিপিএ ৫- এ মধুপুর শহীদ স্মৃতি উচ্চ মাধ্যমিক সেরা 
মৌলভীবাজারে আরও ৩০ জনের করোনা শনাক্ত 
অর্ধেক যাত্রী নিয়ে চললেও প্লেনের ভাড়া বাড়েনি
নাগরপুরের এসিল্যান্ড করোনায় আক্রান্ত
করোনা: চট্টগ্রামে নতুন আক্রান্ত ১১৮ জন