ছেলেধরা সন্দেহে নারীকে গণপিটুনি, রক্ষা করতে পুলিশ আহত

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

গণপিটুনির শিকার মানসিক প্রতিবন্ধী নারী, ছবি: বাংলানিউজ

walton

লালমনিরহাট: লালমনিরহাটে ছেলেধরা সন্দেহে মানসিক প্রতিবন্ধী এক নারীকে (৫০) স্থানীয়দের গণপিটুনি থেকে রক্ষা করতে গিয়ে আহত হয়েছেন জিল্লুর রহমান নামে এক পুলিশ কর্মকর্তা।

শনিবার (২০ জুলাই) দিবাগত রাত ৯টার দিকে জেলা শহরের কলাবাগান কলোনি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

লালমনিরহাট সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-তদন্ত) এরশাদুল আলম বাংলানিউজকে বলেন, মানসিক ভারসাম্যহীন (পাগল) এক বৃদ্ধা নারী শহরের কলাবাগান কলোনি এলাকায় পরিত্যাক্ত রেললাইনে বসেছিলেন। এ সময় স্থানীয়রা ছেলেধরা সন্দেহে তাকে গণপিটুনি দিতে শুরু করে। পরে খবর পেয়ে সদর থানা পুলিশ ওই নারীকে উদ্ধার করতে গেলে স্থানীয়দের ছুড়ে মারা পাথরের আঘাতে আহত হন উপ পরিদর্শক (এসআই) জিল্লুর রহমান।

তিনি বলেন, স্থানীয়দের মোকাবিলা করে ওই নারীকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহত নারীর পরিচয় পাওয়া না গেলেও অনেকেই তাকে দীর্ঘদিন ধরে শহরের বিভিন্ন গলিতে দেখেছেন বলে জানতে পেরেছি।

সবাইকে আহ্বান জানিয়ে লালমনিরহাট পুলিশ সুপার এসএম রশিদুল হক বাংলানিউজকে বলেন, অপরিচিত কাউকে কোনো প্রকার সন্দেহ হলে আইন হাতে তুলে না নিয়ে নিকটস্থ পুলিশকে খবর দিন। সন্দেহ হলেই কেউ অপরাধী নয়। মাথা কাটা বা ছেলেধরা এটা একটি গুজব মাত্র। গুজবে কান না দিতে সবার প্রতি আহবান জানান তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ০৪৪৭ ঘণ্টা, জুলাই ২১, ২০১৯
টিএ

Nagad
বগুড়ায় তাজ ফার্মেসিকে এক লাখ টাকা জরিমানা
বরিশালে ফ্লাইট চালু হচ্ছে রোববার
করোনা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে অমিতাভ বচ্চন
বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থায় নিয়োগ পেলেন বাংলাদেশের সেঁজুতি
নাটোরে ইউএনওসহ আরও ১৩ জনের করোনা শনাক্ত


করোনা: রাজশাহীতে সুস্থতার হার তুলনামূলক কম
লোহাগাড়ায় ৬ হাজার ইয়াবাসহ গ্রেফতার চার
বিমানের দুবাই-আবুধাবিগামী যাত্রীদের ভ্রমণে সতর্কবার্তা
মা ও শিশু হাসপাতালে অক্সিজেন কনসেনট্রেটর প্রদান
ক্রেতা সেজে অভিযান, স্যানিটাইজার কারখানা সিলগালা