php glass

১৪ হাজার টাকায় ফিরতে পারবেন মালয়েশিয়ায় অবৈধ বাংলাদেশিরা

তৌহিদুর রহমান, ডিপ্লোম্যাটিক করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

মালয়েশিয়ায় কর্মরত বাংলাদেশি শ্রমিকদের সংগৃহীত ছবি

walton

ঢাকা: মালয়েশিয়া থেকে অবৈধ অভিবাসীদের ফেরাতে দেশটির সরকার নতুন কর্মসূচি চালু করেছে। যার নাম দেওয়া হয়েছে ‘ব্যাক ফর গুড’। আগামী পাঁচ মাসে এই কর্মসূচির আওতায় সেখান থেকে অবৈধ বাংলাদেশিরা দেশে ফিরতে পারবেন। এজন্য তাদের খরচ করতে হবে মাত্র ১৪ হাজার ৩০০ টাকা।

মালয়েশিয়ার বাংলাদেশ হাইকমিশন জানিয়েছে, যেসব বাংলাদেশির মালয়েশিয়ায় প্রবেশের কোনো তথ্য নেই বা যারা ভিসা ছাড়াই মালয়েশিয়ায় প্রবেশ করেছেন অথবা যাদের ভিসার মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে, তারা এই কর্মসূচির আওতায় দেশে ফেরার সুযোগ পাবেন।

সূত্র জানায়, আগামী ১ আগস্ট থেকে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত এই কর্মসূচি চালু থাকবে। মালয়েশিয়া ইমিগ্রেশনে পাসপোর্ট বা ট্রাভেল ডকুমেন্ট এবং প্লেন টিকিটসহ আবেদন করতে হবে। এই আবেদনপত্রের সঙ্গে মালয়েশিয়া সরকারকে ফি হিসেবে দিতে হবে ৭০০ রিংগিত (১৪ হাজার ৩০০ টাকা)। আবেদনপত্র জমা দেওয়ার পর মালয়েশিয়া সরকার অনুমতিপত্র দেবে। সেই অনুমতিপত্র পাওয়ার এক সপ্তাহের মধ্যেই তাদের দেশে ফিরতে হবে।

মালয়েশিয়ার সাবা, সারওয়াক ও লাবুয়ান প্রদেশ ছাড়া অন্য সব প্রদেশে থাকা অবৈধ বাংলাদেশিরা এই সুযোগ নিতে পারবেন। এর আগে অবৈধভাবে দেশটিতে অবস্থান করা বাংলাদেশিদের দেশে ফেরার জন্য মালয়েশিয়া সরকারকে তিন হাজার ১০০ রিংগিত দিতে হতো। সময় লাগতো দুই সপ্তাহ। তবে এবার ‘ব্যাক ফর গুড’ কর্মসূচির আওতায় আবেদনের পর অনুমতিপত্র পেতে সময় লাগবে মাত্র একদিন।

মালয়েশিয়ার বাংলাদেশ হাইকমিশনের প্রথম সচিব (শ্রম) হেদায়েতুল ইসলাম মন্ডল জানিয়েছেন, মালয়েশিয়ায় অবস্থানরত অবৈধ বাংলাদেশিদের কোনো ধরনের হয়রানি ও জেল জরিমানা ছাড়া নিজ দেশে ফেরাতে দেশটির কর্তৃপক্ষের সঙ্গে হাইকমিশন আলোচনা চালিয়ে আসছিলো। সেই আলোচনার পরিপ্রেক্ষিতেই বাংলাদেশে মালয়েশিয়া সরকার এই কর্মসূচি নিয়েছে। এর মধ্য দিয়ে অবৈধ বাংলাদেশিরা সহজেই দেশে ফিরতে পারবেন।

গত ১৮ জুলাই মালয়েশিয়ার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মুহাইদ্দিন ইয়াসিন বলেছেন, মালয়েশিয়া থেকে অবৈধ নাগরিকদের ফেরাতে সরকার ‘ব্যাক ফর গুড’ কর্মসূচি নিয়েছে। এর মধ্য দিয়ে অভিবাসীরা মাত্র ৭০০ রিংগিত খরচ করে দেশে ফেরার সুযোগ পাবেন।

মালয়েশিয়ার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, কর্মসূচির আওতায় মালয়েশিয়াজুড়ে ২০০ কর্মকর্তার সমন্বয়ে ৮০টি কাউন্টার করা হবে। সেসব কাউন্টার থেকে অবৈধদের ফেরত যাওয়ার জন্য সহায়তা করবে মালয়েশিয়া সরকার। এই সুযোগ যারা নেবে না, নতুন বছরের শুরুতে তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তবে নিজ দেশে ফেরার আগে অবৈধ অভিবাসীদের সঙ্গে কোনো কোম্পানির দেনা-পাওনা থাকলে, তা মীমাংসার দায়িত্ব নেবে না মালয়েশিয়া সরকার। কর্মীদের তাদের নিজ উদ্যোগেই কোম্পানির সঙ্গে আলোচনা করে দেনা-পাওনা মেটাতে হবে।

এর আগে ২০১৪ সালে ‘থ্রি প্লাস ওয়ান’ কর্মসূচি চালু করে দেশটির সরকার। তখন থেকে গত বছরের আগস্ট মাস পর্যন্ত সময়ে ৮ লাখ ৪০ হাজার অবৈধ অভিবাসী নিজ দেশে ফিরেছেন।

মালয়েশিয়ায় বৈধকর্মীর পাশাপাশি অনেক অবৈধ বাংলাদেশি অবস্থান করছেন। নতুন কর্মসূচির আওতায় তাদের এবার ফেরার সুযোগ তৈরি হলো।

বাংলাদেশ সময়: ১২৪০ ঘণ্টা, জুলাই ১৯, ২০১৯
টিআর/জেডএস

ksrm
মোজাফফর আহমদের মৃত্যুতে ওবায়দুল কাদেরের শোক
আইভী রহমানের প্রয়াণ
ইতিহাসের এই দিনে

আইভী রহমানের প্রয়াণ

শনিবার সংসদের দক্ষিণ প্লাজায় মোজাফফরের প্রথম জানাজা
স্থানীয় সরকার সচিব হেলালুদ্দীনের মা মারা গেছেন
ট্রান্সরেডিয়াল ইন্টারভেনশনের প্রথম আন্তর্জাতিক সম্মেলন 


দেশে সমাজতন্ত্র প্রতিষ্ঠা আন্দোলনের পুরোধা মোজাফফর
রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন ঠেকাতে উস্কানি দিচ্ছে কিছু এনজিও
রুমায় অপহরণের চারদিন পর জিপ চালক মুক্ত
মঞ্চনাটকেই যাত্রা শুরু আমির-কন্যার
ছয় ম্যাচ খেলতে পাকিস্তান সফরে যাচ্ছে শ্রীলঙ্কা