php glass

সন্ত্রাসবাদবিরোধী লড়াইয়ে নেমেছে চীন 

তৌহিদুর রহমান, ডিপ্লোম্যাটিক করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

চীনের সহিংস সন্ত্রাসবাদী হামলা এক্সিবিশন সেন্টার। ছবি:বাংলানিউজ

walton

শিনজিয়াং প্রদেশ (চীন) থেকে: বিশ্বের বিভিন্ন দেশে সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াই চলছে। সন্ত্রাস ও উগ্রবাদের বিরুদ্ধে কঠোর ভূমিকা পালন করছে অনেক দেশ। আর সেই লড়াইয়ে যোগ দিয়েছে চীনও। 

চীনের পশ্চিমাঞ্চল শিনজিয়াং প্রদেশে একের পর এক সন্ত্রাসী হামলা ঘটেছে। দেশটির পশ্চিমে বেল্ট অ্যান্ড রোডের প্রবেশদ্বার হিসেবে শিনজিয়াং প্রদেশ চীনের কাছে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তবে এই প্রদেশে একের পর এক সন্ত্রাসী হামলা ঘটে চলেছে। ১৯৯০ সাল থেকে এই পর্যন্ত এখানে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় প্রায় ২০০ লোক মারা গেছেন। এক হাজার ৭০০ লোক আহত হয়েছেন। ৩৩১টি দোকান জ্বালিয়ে দেয়া হয়েছে। গাড়ি পুড়েছে এক হাজার ৩২৫টি। শিনজিয়াংয়ে এসব হামলার ঘটনায় চীন সরকার থেকে ইস্ট তুর্কিস্তান ইসলামিক পার্টিকে দায়ী করছে। এই গ্রুপটি শিনজিয়াংয়ের ভেতর ও বাইরে থেকে সন্ত্রাসী হামলা ঘটিয়েছে বলে মনে করে চীন।

শিনজিয়াংয়ে একের পর এক হামলার ঘটনায় বসে থাকেনি চীন সরকার। সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে নানা ধরনের পদক্ষেপ নিয়েছে। এই পদক্ষেপের মধ্যে অন্যতম হলো 'সহিংস সন্ত্রাসবাদী হামলা এক্সিবিশন সেন্টার' প্রতিষ্ঠা। দুই বছর আগে বিশাল এই সেন্টারটি শিনজিয়াংয়ের উরুমসি শহরে গড়ে তোলা হয়েছে। শিনজিয়াংয়ে শত শত সন্ত্রাসী হামলার চিত্র দিন তারিখসহ সেখানে তুলে ধরা হয়েছে। একই সঙ্গে হামলাকারীদের কাছ থেকে উদ্ধার করা 
হাজার হাজার অস্ত্র প্রদর্শনী করা হচ্ছে। সন্ত্রাসী হামলায় নিহত ও আহতদের ছবিও রয়েছে সেখানে। এই সেন্টার প্রতিষ্ঠার অন্য অন্যতম উদ্দেশ্য হলো জনসচেতনতা বাড়ানো। এই কাজে সফলও হচ্ছে চীন। প্রতিদিন দেশ বিদেশের শত শত লোক এই সেন্টার দেখতে আসছেন। 

সোমবার (২২ এপ্রিল) শিনজিয়াংয়ে বিদেশি গণমাধ্যম কর্মীদের সেন্টারটি দেখানো হয়। ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলার চিত্র দেখে অনেকেই অবাক হয়েছেন। এদিকে সোমবার শিনজিয়াংয়ের ভাইস গভর্নর এরিকেন তুনিয়েজ বিদেশি সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় কালে বলেন, চীনের জনগণ দেশের সংবিধান ও আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। সে কারণেই সন্ত্রাসবাদের স্থান এ দেশে নাই। 
সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে চীন সব সময় সচেষ্ট থাকবে বলেও জানান তিনি। 

বাংলাদেশ সময়: ২২৫৬ ঘণ্টা, এপ্রিল ২২, ২০১৯
টিআর 

ksrm
জয়পুরহাটে ট্রাকচাপায় স্কুলছাত্র নিহত
সাবেক কর্মকর্তা পপির বিরুদ্ধে সিটি ব্যাংকের মামলা
ইডিইউতে উচ্চশিক্ষায় আগ্রহীদের মিলনমেলা
নায়করাজের চলে যাওয়ার দুই বছর
পাকুন্দিয়ায় ভাইয়ের হাতে ভাই খুন


ফতুল্লায় নৈশপ্রহরীকে গলা কেটে হত্যা
তারেকের সর্বোচ্চ শাস্তির জন্য উচ্চ আদালতে যাবো: কাদের
ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি গুলিবিদ্ধ অবস্থায় গ্রেফতার
প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়ে ঢাকা ছাড়লেন জয়শঙ্কর 
গ্রেনেড হামলায় নিহতদের স্মরণে খুলনায় শোক র‌্যালি