পাবনা ও নাটোর জেলার আয়োজনে ৬ দিনব্যাপী বইমেলা 

উপজেলা করসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ফিতা কেটে বইমেলা উদ্বোধন করছেন সংসদ সদস্য ও সাবেক ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ ডিলু

পাবনা: মহান একুশে ফেব্রুয়ারি ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে পাবনা ও নাটোর জেলার আয়োজনে ছয় দিনব্যাপী ২০তম  একুশে বইমেলার শুরু হয়েছে।  

php glass

শুক্রবার (২২ ফেব্রুয়ারি) রাত ৯টায় দুই জেলার সীমান্তবর্তী এলাকা পাবনার ঈশ্বরদীর মুলাডুলি ও নাটোরের বড়াইগ্রাম’র আয়োজনে রাজাপুর উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে এই মেলার উদ্বোধন হয়।  

অনুষ্ঠানটি উদ্বোধন করেন পাবনা-৪ আসনের সংসদ সদস্য ও সাবেক ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ ডিলু। 

মুলাডুলি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও বইমেলা উৎযাপন কমিটির সভাপতি সেলিম মালিথার সভাপতিত্বে মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন ঈশ্বরদী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আহমেদ হোসেন ভূঁইয়া, বড়াইগ্রাম উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা আনোয়ার পারভেজ, গোপালপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম খান, রাজাপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এবিএম আশরাফুজ্জমান স্বপন, একুশে গ্রন্থাগারের সাধারণ সম্পাদক শামসুর রহমান শাহিন প্রমুখ। 

অনুষ্ঠানে শামসুর রহমান শরিফ ডিলু বলেন, নিজেকে চিনতে হলে একুশের চেতনা ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ধারণ করতে হবে। কারণ একুশের ভাষা আন্দোলনই ’৭১ সালে এ দেশের মানুষকে স্বাধীনতা এনে দিয়েছে। পাকিস্তান দেশের মানুষকে ধর্মের ভয় দেখিয়ে রাখার চেষ্টা করেছিল। আর তাই পরবর্তীতে ভাষা আন্দোলনই স্বাধীনতা আন্দোলনের রূপ নেয়।

উদ্বোধনের পর মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। 

দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তর এই বইমেলায় পাবনা ও নাটোর জেলাসহ আশেপাশের জেলা ও থানার কয়েক হাজার বই প্রেমী মেলায় অংশ নেন। মেলা চলবে ২৭ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত।

বাংলাদেশ সময়: ০৬২৯ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০১৯
জেআইএম

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: বইমেলা
মাইগ্রেনের ব্যথায় 
সড়কে নৈরাজ্যের বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলবে ১৪ দল
এক্সিম ব্যাংকের কুমিল্লা অঞ্চলের গ্রাহক সমাবেশ 
বিআরটিএ’র বিভিন্ন পদে নিয়োগ
আফগানিস্তানে জোড়া বোমা হামলায় নিহত ৪


খাল দখল করে ভবন নির্মাণ করায় দণ্ড
মানবাধিকার সমুন্নত করতে সরকার কাজ করছে
সিরিয়ায় আইএসের ‘খেলাফতের সমাপ্তি’ ঘোষণা
মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ কংগ্রেসের
মুকসুদপুরে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু