php glass

হিলি সীমান্তে দুই বাংলার সম্প্রীতির মিলন মেলা

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

এপার বাংলা ওপার বাংলা ভাষাপ্রেমীদের মিলন মেলা

walton

দিনাজপুর: অমর একুশে শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে দিনাজপুরের হিলি সীমান্তের শূন্য আঙিনায় (মুক্তিযোদ্ধা স্কয়ার) বসেছে এপার বাংলা ওপার বাংলা ভাষাপ্রেমীদের সম্প্রীতির মিলন মেলা।

বৃহস্পতিবার (২১ ফেব্রুয়ারি) ভোর থেকে দিনব্যাপী এ মেলার আয়োজন করা হয়।

২০১৫ সাল থেকে হয়ে আসছে মিলন মেলার এ আয়োজন। এরই মধ্যেই সীমান্তের চেকপোস্ট সংলগ্ন শূন্য আঙিনায় রেললাইন ঘেঁষে স্থাপন করা হয়েছে ‘সম্প্রীতির অমর একুশের মঞ্চ এবং অস্থায়ী শহীদ মিনার’।

প্রতি বছরের মতো এবারও হাকিমপুর পৌরসভাসহ বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের সহযোগিতায় উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড এবং সাপ্তাহিক আলোকিত সীমান্ত দিবসটির আয়োজন করেছে।

এবার ভারতের পশ্চিমবঙ্গের দক্ষিণ দিনাজপুরের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন উজ্জীবন সোসাইটি, বালুরঘাট ছন্দম, বালুরঘাট উত্তরের এবং বালুরঘাট-হিলি-বাংলাদেশ-মেঘালয় করিডোর কমিটির নেতা ও শিল্পীরা অংশগ্রহণ করছেন। একইসঙ্গে হাকিমপুর শিল্পকলা একাডেমি এবং স্থানীয় শিল্পীরা যৌথভাবে অংশগ্রহণ করেছে।

উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার লিয়াকত আলী বাংলানিউজকে বলেন, সকালে অস্থায়ী শহীদ বেদিতে ফুল দিয়ে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হয়। এরপরে আলোচনা সভা, কবিতা আবৃত্তি, ছড়া, গল্প ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে দিনের কার্যক্রম শুরু হয়। 

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে ছিলেন সংসদ সদস্য শিবলী সাদিক। এছাড়া অনুষ্ঠানে প্রশাসনের কর্মকর্তা, আওয়ামী লীগ, পৌরসভা, স্থলবন্দরের ব্যবসায়ী সংগঠন, সামাজিক সংগঠন ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধি, বীর মুক্তিযোদ্ধা ও সংবাদকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

সাপ্তাহিক আলোকিত সীমান্ত’র সম্পাদক ও আয়োজক কমিটির অন্যতম উদ্যোক্তা জাহিদুল ইসলাম জাহিদ বাংলানিউজকে বলেন, এ মিলন মেলার মাধ্যমে আমরা ‘সম্প্রীতির একুশের মঞ্চ’ থেকে ঐক্যপ্রীতির বার্তা বিশ্ব দরবারে পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্যে কাজ করছি। আমরা যারা বাংলা ভাষাভাষী আছি, আমাদের মধ্য থেকে যেন মৈত্রীর বন্ধন এবং সম্প্রীতি হারিয়ে না যায়, সেই লক্ষ্যে ২০১৫ সাল থেকে এ আয়োজন চলছে।

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ-ভারত দু’টি রাষ্ট্র হলেও আমরা মনে ও প্রাণে কেউ আলাদা নয়। তাই সীমান্তের প্রাচীর ও কাঁটাতারের বেড়া দিয়ে আমাদের প্রাণের বন্ধনকে আটকানো যাবে না। এ দিনটির জন্য যথেষ্ট আগ্রহ ও উৎসাহ নিয়ে দুই বাংলার মানুষেরা অপেক্ষায় থাকেন। 

সংশ্লিষ্টরা সূত্রে জানা যায়, এবার-ওপার বাংলার বালুরঘাট, মালদা ও কলকাতা থেকে ২০ জনের মতো অতিথি, শিল্পী ও কবি-সাহিত্যিকরা এ মিলন মেলায়  অংশগ্রহণ করছেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৮০৭ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২১, ২০৪১৯
জিপি

‘রনির মতো ৫ জন এগিয়ে এলে রিফাত বাঁচতো’
ফতুল্লা থানা যুবদলের আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা
রিফাত হত্যায় জড়িতদের যতো দ্রুত সম্ভব গ্রেফতার
উপ-নির্বাচন: পশ্চিম বাকলিয়ায় ভোট ২৫ জুলাই
সুশাসন নিশ্চিত করতে নিরলসভাবে কাজ করছে দুদক


সেপ্টেম্বরে ঘরের মাটিতে ত্রিদেশীয় সিরিজ খেলবে টাইগাররা
ঠাকুরগাঁওয়ে বখাটের ছুরিকাঘাতে আহত নার্সের মৃত্যু
পূর্ণাঙ্গ কম্পিউটার ইনস্টিটিউট হবে চসিকে
‘নারীদের কাছে এখন দুঃসাধ্য বলতে কিছু নেই’
ইন্টারনেট ব্যান্ডউইডথের দাম কমিয়ে ১৮০ টাকা নির্ধারণ