ফতুল্লায় পৃথক ধর্ষণের অভিযোগে আটক ৩

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: প্রতীকী

নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় পৃথক তিনটি এলাকা থেকে তিন শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ।

সোমবার (২২ অক্টোবর) রাতে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। আটককৃতরা হলেন- কোচিং সেন্টারের শিক্ষক তাপস (৪০), মিজান (১৯) ও মনির হোসেন (৪৫)।

ফতুল্লা মডেল থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) ইলিয়াছ হোসেন বিষয়টি বাংলানিউজকে জানান।

তিনি বলেন, ১৯ অক্টোবর দুপুরে ফতুল্লার দেলপাড়া টাওয়ারপাড় এলাকায় ১০টাকা দিয়ে নিজের মুরগির খামারে নিয়ে সাড়ে ছয় বছরের এক শিশুকে ধর্ষণ করে মনির হোসেন। ভয়ভীতির কারণে থানায় তাৎক্ষণিক অভিযোগ করেনি শিশুর পরিবার। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় থানায় অভিযোগ করলে মনিরকে আটক করা হয়।

উপ পরিদর্শক (এসআই) মোফাজ্জল করিম খান জানান, সস্তাপুর কাঠেরপুল এলাকায় পান্না মিয়ার বাড়িতে ভাড়াটিয়া মিজানুর রহমান (১৯) ২০ অক্টোবর সন্ধ্যায় ১২ বছরের এক শিশুকে খাবারের প্রলোভন দেখিয়ে টয়লেটে নিয়ে ধর্ষণ করে। এ ঘটনায় শিশুটির মা থানায় অভিযোগ করলে মিজানুরকে আটক করা হয়েছে।

উপ পরিদর্শক (এসআই) মিজান জানান, দাপা ইদ্রাকপুর এলাকায় একটি কোচিং সেন্টারে রোববার দুপুরে ১০ম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ করে শিক্ষক তাপস (৪০)। এ ঘটনায় অভিযোগ পেয়ে তাপসকে আটক করা হয়েছে।

ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ মো. মঞ্জুর কাদের বাংলানিউজকে জানান, অভিযোগের ভিত্তিতে মামলা দায়েরের পর তিনজনকে পৃথক এলাকা থেকে আটক করা হয়েছে। আটকদের জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।

বাংলাদেশ সময়: ০১২৬ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৩, ২০১৮
এএটি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: ধর্ষণ আটক
উরুগুয়েকে ১-০ গোলে হারালো ব্রাজিল
প্রেস দিবস উপলক্ষে আগরতলায় আলোচনা সভা
অবরুদ্ধ সময়ের কবিতায় মানবতার সুর
রাঙ্গাবালীতে পোকা মারার ট্যাবলেট খেয়ে ২ শিশুর মৃত্যু
রাঙ্গাবালীতে পোকা মারার ট্যাবলেট খেয়ে ২ শিশুর মৃত্যু
বরিশালে রান্না বিষয়ক কর্মশালা
আলোর উৎসবে হাজার হৃদয় রাঙিয়ে দিলেন শংকর-এহসান-লয়
বাম দলগুলোর নির্বাচনী প্রস্তুতি
স্বজনদের কাছে ফিরলো পুলিশ হেফাজতে থাকা শিশু আবির
দ্বিতীয়দিন রঘু দীক্ষিত-মমতাজ'র পরিবেশনায় মাতোয়ারা দর্শক