যৌন হয়রানি প্রতিরোধে আইন করা দরকার

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

অনুষ্ঠানে উপস্থিত অতিথিরা। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: যৌন হয়রানি প্রতিরোধ ও যৌন হয়রানি থেকে নারীদের সুরক্ষা দেওয়ার জন্য এ সংক্রান্ত একটি আইন পাস হওয়া উচিত বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার মো. ফজলে রাব্বী মিয়া।

বৃহস্পতিবার (২০ সেপ্টেম্বর) জাতীয় সংসদ ভবনের মিনিস্টার হোস্টেল সংলগ্ন আইপিডি সম্মেলন কক্ষে পার্লামেন্টারিয়ান ককাস অন চাইল্ড রাইটস এবং জাতীয় কন্যাশিশু অ্যাডভোকেসি ফোরাম-এর উদ্যোগে প্রস্তাবিত ‘যৌন হয়রানি প্রতিরোধ ও সুরক্ষা আইন ২০১৮’ হস্তান্তর স¤পর্কিত এক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ মন্তব্য করেন তিনি।
 
পার্লামেন্টারিয়ান ককাস অন চাইল্ড রাইটসের সভাপতি সংসদ সদস্য মীর শওকাত আলী বাদশার সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন- সংসদ সদস্য নাজমুল হক প্রধান, মনোরঞ্জন শীল গোপাল, জেবুন্নেসা আফরোজ, মো. আবুল কালাম, পঞ্চানন বিশ্বাস, মো. ইয়াসিন আলী, কাজী রোজী, অ্যাডভোকেট উম্মে কুলসুম, কামরুন্নাহার চৌধুরী, অ্যাডভোকেট নাভানা আক্তার, উম্মে রাজিয়া কাজল ও অ্যাডভোকেট হোসনে আরা। 

সভাটি সঞ্চালনা করেন জাতীয় কন্যাশিশু অ্যাডভোকেসি ফোরাম-এর সভাপতি ড. বদিউল আলম মজুমদার। এছাড়া সভায় চারজন সিনিয়র জজ এবং বিভিন্ন বেসরকারি সংস্থার নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
 
ডেপুটি স্পিকার বলেন, ‘যৌন হয়রানি প্রতিরোধ ও যৌন হয়রানি থেকে নারীদের সুরক্ষা দেওয়ার জন্য আমাদের দেশে এই সংক্রান্ত একটি আইন পাস হওয়া উচিৎ। সরকারিভাবে না হলেও বেসরকারিভাবে যে কোনো সংসদ সদস্য এ সংক্রান্ত একটি বিল সংসদে উত্থাপন করতে পারেন।’ 

সভায় উপস্থিত সংসদ সদস্যদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘আপনারা চাইলে আপনাদের মধ্য হতে একজন এই বিলটি সংসদে উত্থাপন করতে পারেন। আজকেই  সংসদ সচিবালয়ে এই বিষয়ে একটি নোটিশ দেন, যাতে আপনি পরবর্তী অধিবেশনের শুরুতেই বিলটি উত্থাপন করতে পারেন।’
 
মীর শওকাত আলী বাদশা বলেন, ‘আমি মনে করি, যৌন হয়রানি প্রতিরোধে এটি একটি ভালো বিলের খসড়া হয়েছে। বিল পাস হলে আমাদের নারীরা ও কন্যাশিশুরা উপকৃত হবেন।’ 

সুশাসনের জন্য নাগরিক-সুজন সভাপতি ড. বদিউল আলম মজুমদার বলেন, ‘বাংলাদেশের নারীরা অনেক দূর এগিয়েছে। কিন্তু একই সঙ্গে নারীরা এখনো বিভিন্নভাবে নির্যাতন ও বঞ্চনার শিকার হন। তাই নারীদের সুরক্ষা বিশেষ করে যৌন হয়রানি থেকে তাদের সুরক্ষা প্রয়োজন। 

‘প্রয়োজনে এই সম্পর্কিত একটি আইন প্রণয়ন। এমন অনুধাবন থেকে প্ল্যান ইন্টারন্যাশনালের সহায়তায় এবং জাতীয় কন্যাশিশু অ্যাডভোকেসি ফোরামের পক্ষ থেকে অনেকের মতামতের ভিত্তিতে এই সম্পর্কে একটি আইনের খসড়া প্রণয়ন করা হয়েছে। আমরা আশা করি, আইনটি দ্রুত সংসদে পাস হবে।’

বাংলাদেশ সময়: ০২৩৪ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৮
এসএম/এমএ

ইনজুরি নিয়ে মাঠ ছাড়লেন মেসি
রোনালদোর ৪০০ গোলের মাইলফলকেও জয়বঞ্চিত জুভেন্টাস
ব্যারিস্টার মঈনুল হোসেনকে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান
৭ প্রকল্পে মিলেছে সৌদি ঋণ, পাইপ লাইনে ৪ প্রকল্প
আলফ্রেড নোবেলের জন্ম
ইতিহাসের এই দিনে

আলফ্রেড নোবেলের জন্ম

শেষ মুহূর্তে ম্যানইউ’র হোঁচট, কোচের ধ্বস্তাধস্তি 
হেড-নেক ক্যান্সার প্রতিরোধে তামাক দ্রব্য পরিহার
গণতন্ত্র রক্ষায় সবকিছু করতে প্রস্তুত আ.লীগ
রাবিতে মাথাচাড়া দিয়েছে ভর্তি জালিয়াত চক্র
দুর্বল বার্নলিকে উড়িয়ে দিয়ে শীর্ষে গার্দিওলার সিটি