php glass

দগ্ধ নারীর মৃত্যুর ঘটনায় ৪ আসামির রিমান্ড

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: প্রতীকী

walton

 

 

লক্ষ্মীপুর: স্ত্রীর স্বীকৃতি আদায়ে চট্টগ্রাম থেকে লক্ষ্মীপুরে এসে অগ্নিদগ্ধ হয়ে শাহিন আক্তারের মৃত্যুর ঘটনায় গ্রেফতার চার আসামিকে দু’দিনের রিমান্ড দিয়েছেন আদালত।


 

বুধবার (২৪ এপ্রিল) দুপুরে আসামিদের লক্ষ্মীপুর চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হয়।

এ সময় মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও কমলনগর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) আলমগীর হোসেন আসামিদের পাঁচদিনের রিমান্ডের জন্য আবেদন করেন। পরে ম্যাজিস্ট্রেট তারেক আজিজ আসামিদের দু’দিনের রিমান্ডের আদেশ দেন।

লক্ষ্মীপুর জেলা জজ আদালতের সরকারি কৌঁসুলী (পিপি) জসিম উদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) চারজনকে গ্রেফতার দেখিয়েছে আদালতের মাধ্যমে তাদের কারাগারে পাঠায় পুলিশ। 

আসামিরা হলেন-প্রধান আসামি সালাউদ্দিনের ভাই আলাউদ্দিন, আব্দুর রহমান, স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সদস্য হাফিজ উদ্দিন ও গ্রামপুলিশ আবু তাহের। অভিযুক্ত প্রধান আসামি সালাউদ্দিন পলাতক রয়েছেন। তিনি চর ফলকন গ্রামের মহর আলীর ছেলে।

সোমবার (২২ এপ্রিল) রাতে নিহতের বাবা জাফর উদ্দিন বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা করেন। মামলায় সালাউদ্দিনসহ পাঁচজনকে আসামি করা হয়। অজ্ঞাতপরিচয় আরও সাত থেকে আটকজনকে আসামি করা হয়েছে।

রোববার (২১ এপ্রিল) বিকেলে স্থানীয়রা কমলনগর উপজেলার চরফলকন ইউনিয়নের চার নম্বর ওয়ার্ডের আইয়ুবনগর এলাকার একটি সয়াবিনক্ষেতের ভেতর থেকে শাহিনকে গায়ে আগুন লাগা অবস্থায় দৌড়ে বের হতে দেখেন। স্থানীয়রা দগ্ধ শাহিনকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে রাতেই ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাকে। সোমবার সকাল ১১টার দিকে তার মৃত্যু হয়। 

নিহত শাহিন চট্টগ্রামের রাউজান উপজেলার সোনাগাজী গ্রামের জাফর উদ্দিনের মেয়ে। তিনি পোশাক কারখানায় কাজ করতেন।

মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) সকাল ১১টার দিকে তার বাবা জাফর উদ্দিনের কাছে শাহিনের মরদেহ ময়নাতদন্ত সম্পন্নের পর হস্তান্তর করা হয়। রাতে জানাজা পর মরদেহ পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।

লক্ষ্মীপুর সদর হাসপতালে চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় শাহিনের অভিযোগ, স্ত্রীর স্বীকৃতি চাওয়ায় আমার গায়ে আগুন লাগিয়ে দিয়েছেন সালাউদ্দিন।

স্থানীয়রা জানান, ওই নারী সালাউদ্দিনের শ্বশুরবাড়িতে এসে সালাউদ্দিনের কাছে স্ত্রীর স্বীকৃতি চান। কিন্তু সালাউদ্দিন বিয়ে করার কথা অস্বীকার করেন। এসময় শাহিনের কাছে বিয়ের কাবিননামা চাওয়া হয়। তিনি দিতে পারেননি। কাবিননামা দেখাতে না পারায় তাকে সেগুলো আনতে বলা হয়। তাকে একটি ইজিবাইকে করে চট্টগ্রামে যাওয়ার জন্য হাজিরহাট বাসস্ট্যান্ডে পাঠিয়ে দেয় স্থানীয়রা। কিন্তু যাওয়ার পথে ওই নারী ইজিবাইক থেকে নেমে যান। ফের সালাউদ্দিনের বাড়ির কাছে যান। কিছু সময় পর গায়ে আগুন নিয়ে সয়াবিনক্ষেত থেকে দৌড়ে বের হন ওই নারী।

বাংলাদেশ সময়: ০৯০৭ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৫, ২০১৯
এসআর/এএটি

***লক্ষ্মীপুরে এসে দগ্ধ সেই তরুণীর মৃত্যু, মামলা

***স্ত্রীর স্বীকৃতি চাওয়ায় তরুণীর গায়ে আগুন

ঢাকায় ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জয়শঙ্কর
যতদিন বাংলাদেশ থাকবে, ততদিন বঙ্গবন্ধুর আদর্শ পথ দেখাবে
খুলনায় বাস-ট্রাক সংঘর্ষে নিহত ১
প্রবাসীদের বন্ডে বিনিয়োগে আইনি বাধা নেই
নেইমার বিশ্বের সেরা পাঁচ প্রতিভার মধ্যে একজন: ক্রুইফ


সৈয়দপুরে ‘স্মৃতিঅম্লান’ ভাঙচুরের প্রতিবাদে মানববন্ধন
সংকট কাটিয়ে উঠেছেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়
আত্মীয় বাড়িতে বেড়াতে এসে গণধর্ষণের শিকার তরুণী 
দ্বি-পক্ষীয় বৈঠকে অংশ নিতে ভারতে ৫২ কর্মকর্তা
ঝিলপাড় বস্তির আগুনে আতঙ্কিত মাহফুজ, হতে চায় ক্রিকেটার