মোবাইল গেম-ফেসবুক থেকে শিশুদের মাঠে নিতে হবে

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

শিশু অধিকার সপ্তাহের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান।

walton

ফেনী: শিশুরা যখন বাসায় থাকে তখন তাদের অধিকাংশ সময় কাটে মোবাইলে গেম ও ফেসবুক নিয়ে। তাদের মাঠে নিয়ে খেলার ব্যবস্থা করে দিতে হবে। শিশুরা একটি ঘরের প্রাণ। ওরা প্রথমে শিখবে পরিবার, তারপর সমাজ থেকে। তবেই শিশুদের মানসিক বিকাশ ঘটবে।

ফেনী সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় মিলনায়তনে বৃহস্পতিবার (১০ অক্টোবর) বাংলাদেশ শিশু একাডেমি ফেনী জেলা শাখার আয়োজনে ও জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় শিশু অধিকার সপ্তাহের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ফেনী জেলা প্রশাসক মো. ওয়াহিদুজজামান একথা বলেন।

তিনি অভিভাবকদের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনারা আপনাদের শিশুদের সাহসী হিসেবে গড়ে তুলুন। তাদের স্বাস্থ্যের প্রতি নজর দিন। ইদানীং অনেক শিশু পুকুরের পানিতে ডুবে মারা যাচ্ছে। একটি শিশুর পরিপূর্ণ বয়সেই তাদের সাঁতার শেখাতে হবে।

অনুষ্ঠানে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোছা. সুমনী আক্তারের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুর রহমান বিকম, ফেনী সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সুব্রত নাথ। ফেনী শিশু একাডেমির আবৃত্তি বিভাগের প্রশিক্ষক পৃথ্বীরাজ চক্রবর্তীর সঞ্চালনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন জেলা শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা নুরুল আবছার ভূঁঞা।

‘আজকের শিশু আনবে আলো, বিশ্বটাকে রাখবে ভালো’- এই প্রতিপাদ্য বিষয় সামনে রেখে শুরুতেই ফিতা কেটে শিশু অধিকার সপ্তাহের উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথিসহ অন্য অতিথিরা। শেষে শিশুদের পরিবেশনায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১২৫৬ ঘণ্টা, অক্টোবর ১০, ২০১৯
এসএইচডি/এফএম/এএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: ফেনী
বিক্ষোভে সমর্থন দিলেন বুশ-ক্লিনটন-ওবামারা
‘আমার জীবন, আমার যোগ– বাংলাদেশ’ অনলাইন প্রতিযোগিতা
করোনা দেখালো সংক্রামক রোগ সীমান্ত চেনে না
গাজীপুরে করোনা নিয়েই কাজে যোগ দিলেন শ্রমিক!
বর্ণ বৈষম্যের প্রতিবাদ করে ট্রলের শিকার কারিনা


ইনজুরিতে পড়েননি মেসি, খেলবেন 'শুরু' থেকেই
ভূমিমন্ত্রীর নির্দেশে আইসোলেশন সেন্টার হচ্ছে আনোয়ারায়
সুন্দরবনে অপহৃত সেই ঝিনুক শ্রমিক উদ্ধার
লাল-হলুদ-সবুজ অঞ্চল ব্যবস্থাপনায় নীতিমালা দাবি
আশপাশে করোনা রোগী থাকলে জানান দেবে অ্যাপ