ফ্লয়েড করোনা আক্রান্ত ছিলেন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

পুলিশের হাঁটুচাপায় জর্জ ফ্লয়েড, ছবি: সংগৃহীত

walton

যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে করোনা ভাইরাসের এই কঠিন সময়েও যার মৃত্যু নিয়ে বর্ণবাদবিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল, সেই কৃষ্ণাঙ্গ যুবক জর্জ ফ্লয়েড কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত ছিলেন। তবে তিনি মারা গেছেন হার্ট অ্যাটাক থেকে।

বুধবার (০৩ জুন) হেনেপিন কাউন্টি মেডিক্যাল পরীক্ষা থেকে প্রকাশিত ময়নাতদন্ত প্রতিবেদনে এ চাঞ্চল্যকর তথ্য উঠে আসে। এছাড়া গত ৩ এপ্রিলও ফ্লয়েডের শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছিল।

মার্কিন সংবাদমাধ্যমগুলো বলছে, মৃত্যুর পরে ফ্লয়েডের নাক থেকে নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষায় শরীরে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি ধরা পড়েছে।

গত ২৫ মে শ্বেতাঙ্গ পুলিশ অফিসার দেরেকের হাঁটুর চাপে শ্বাসরুদ্ধ হয়ে মারা যান নিরস্ত্র ফ্লয়েড। মারা যাওয়ার সময় শেষ বার ফ্লয়েড বলেছিলেন, ‘প্লিজ, আই কান্ট ব্রিদ’।

তার শরীরে যে করোনা ভাইরাস ছিল, এ কথা জানিয়েছেন হেনেপিন কাউন্টির শীর্ষ পরীক্ষক অ্যান্ড্রেউ বেকার। তবে তার মৃত্যুর সঙ্গে করোনা ভাইরাসের কোনো সম্পৃক্ততা ছিল না, এ কথাও স্পষ্ট জানিয়েছেন তিনি।

মৃত্যুর পর বেসরকারিভাবে তার ময়নাতদন্ত করেন মাইকেল বেডেন। তিনি জানিয়েছেন, ফ্লয়েড করোনা আক্রান্ত এটা অজানা ছিল। না হলে ময়নাতদন্তের সময় আরও সতর্কতা গ্রহণ করা হতো। ফ্লয়েড হত্যাকাণ্ডে যে চারজন পুলিশ অফিসারকে গ্রেফতার করা হয়েছে, তাদেরও করোনা পরীক্ষা করা উচিত।

বাংলাদেশ সময়: ১৪৫০ ঘণ্টা, জুন ০৪, ২০২০
টিএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: যুক্তরাষ্ট্র করোনা ভাইরাস
Nagad
ব্যবসায়ীর অর্ধগলিত মরদেহ: একজনের স্বীকারোক্তি
সাহারা খাতুনের মৃত্যুতে জাতিসংঘের আবাসিক সমন্বয়কের শোক
এটিএম কার্ড সংকটে গ্রাহকের ভোগান্তি
রাজশাহী ফিরেছেন এন্ড্রু কিশোরের মেয়ে
সাতক্ষীরায় করোনা রোগীসহ ২ জনের মৃত্যু


নগরের দৃষ্টিনন্দন স্থাপনায় পরিণত হবে সনদ দত্ত মহাশশ্মান
দিনে উন্মুক্ত স্থানে বর্জ্য না ফেলতে তাপসের অনুরোধ
তিনটি করে গাছ লাগানোর নির্দেশ নিবন্ধন অধিদপ্তরের
ভোক্তা অধিদপ্তরের অভিযান, ৫ লাখ ৬৯ হাজার টাকা জরিমানা
চলন্ত ট্রেনে ব্যাগ-ল্যাপটপ বদল, ৯৯৯-এ ফোন করে উদ্ধার