ঢাকা, বুধবার, ২১ শ্রাবণ ১৪২৭, ০৫ আগস্ট ২০২০, ১৪ জিলহজ ১৪৪১

তথ্যপ্রযুক্তি

ফিউচার অব ওয়ার্ক ল্যাব উদ্বোধন

ডিপ্লোম্যাটিক করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০৭-০৩ ০৩:০৩:০৪ পিএম
ফিউচার অব ওয়ার্ক ল্যাব উদ্বোধন

ঢাকা: ব্যক্তি, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও সরকারকে ভবিষ্যতের কর্মক্ষেত্র সুনির্দিষ্ঠ করতে সহযোগিতার লক্ষ্যে ও সাউথ-সাউথ কো-অপারেশনের সুবিধার্থে ‘ফিউচার অব ওয়ার্ক ল্যাব’ নামের একটি অনলাইন ল্যাব চালু করা হয়েছে। ইউএনডিপি ব্যাংকক রিজিওনাল হাব, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের বাস্তবায়নাধীন ও ইউএনডিপি বাংলাদেশের সহযোগীতায় পরিচালিত অ্যাক্সেস টু ইনফরমেশন’র (এটুআই) যৌথ উদ্যোগে এটি উদ্বোধন করা হয়। 

বৃহস্পতিবার (২ জুলাই) জাতিসংঘের অ্যাসিস্ট্যান্ট সেক্রেটারি জেনারেল এবং ইউএনডিপির এশিয়া প্যাসিফিক রিজিওনাল ব্যুরোর পরিচালক ও অ্যাসিস্ট্যান্ট অ্যাডমিনিস্ট্রেটর কান্নি উইনিরাজা এ ল্যাব উদ্বোধন করেন।  

এটুআই অফিস থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, সারাবিশ্বের দক্ষিণের রাষ্ট্রগুলোর মধ্যে অংশীদারীত্বের ভিত্তিতে সফল উদ্যোগ বিনিময়ের জন্য এবং দক্ষিণ-দক্ষিণ সহযোগিতার সুবিধার্থে ‘ফিউচার অব ওয়ার্ক ল্যাব’ ভবিষ্যত কর্মপরিধির এজেন্ডা নির্ধারণে কাজ করবে।

ভবিষ্যত কাজের ধরণ, কর্মক্ষম জনশক্তি এবং কর্মক্ষেত্র নিয়ে গবেষণার মাধ্যমে বিভিন্ন পরীক্ষা চালিয়ে যথাযথ সমাধান বের করে প্রয়োজন অনুযায়ী তা বাস্তবায়ন করবে এই ল্যাব। এর মধ্য দিয়ে কর্মক্ষম জনশক্তি এবং যুবসমাজকে প্রশিক্ষণের মাধ্যমে ডিজিটাল প্রযুক্তিতে দক্ষ করে গড়ে তোলার পাশাপাশি ডাটা নির্ভর পলিসি তৈরির জন্য দক্ষতা বৃদ্ধি এবং পলিসি তৈরি- মূলত এ দু’টি বিষয়ের ওপর জোর দেওয়া হবে।

উদ্বোধনের পর ফিউচার অব ওয়ার্ক ল্যাব-এর মিশন, মূল্যবোধ, ফ্রেমওয়ার্ক এবং পরিচালনা মডেল সম্পর্কে বিস্তারিত একটি উপস্থাপনা প্রদান করা হয়। ইউএনডিপি ব্যাংকক রিজিওনাল হাবের এসডিজি ইন্টিগ্রশন লিড ক্রিস্টিনা ওয়েলিংটন এবং এটুআই পলিসি স্পেশালিস্ট ও ফিউচার অব ওয়ার্ক লিড আসাদুজ্জামান ফিউচার অব ওয়ার্ক ল্যাব নিয়ে এ উপস্থাপনা করেন।  

এটুআই-এর পলিসি অ্যাডভাইজর আনীর চৌধুরীর সঞ্চালনায় প্যানেল আলোচনায় উপস্থিত ছিলেন- বাংলাদেশ সরকারের মন্ত্রী পরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম ও ইউএনডিপি বাংলাদেশের আবাসিক প্রতিনিধি সুদীপ্ত মুখার্জী।

ল্যাবের উদ্বোধন করে কান্নি উইনিরাজা বলেন, বর্তমান পরিস্থিতিতে কাজের প্রকৃতি, পরিধি ও কর্মক্ষেত্রের ধরনে অনেক পরিবর্তন হয়েছে এবং জীবিকা নির্বাহের জন্য ভবিষ্যতের বিভিন্ন কাজকে দ্রুত চিহ্নিত করা প্রয়োজন। পরিবেশের সাথে ভারসাম্যপূর্ণ এবং টেকসই কাজগুলোকে সামনে এনে নতুন জব সেক্টর তৈরি করতে হবে পাশাপাশি সম্মিলিত ইন্টেলিজেন্স টুল ব্যবহারের মাধ্যমে শিখন, পরীক্ষা ও নিরীক্ষণের কৌশল ব্যবহার করতে হবে এবং লিঙ্গ বৈষম্য কমিয়ে আনতে হবে।

মন্ত্রী পরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, চলমান করোনা পরিস্থিতি আমাদের উন্নয়নের গতিতে প্রভাব ফেললেও টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জনে দেশ দ্রুতগতিতে এগিয়ে চলেছে। আমরা আমাদের ভালো উদ্যোগগুলো সহযোগী রাষ্ট্রের সঙ্গে বিনিময় করতে সবসময় প্রস্তুত এবং একে অপরের সঙ্গে সব ধরনের সহযোগিতা বিনিময় করার ক্ষেত্রে উৎসাহের সঙ্গে কাজ করতে প্রস্তুত থাকবো।  

ইউএনডিপি বাংলাদেশের আবাসিক প্রতিনিধি সুদীপ্ত মুখার্জি বলেন, ফিউচার অব ওয়ার্ক ল্যাবের কার্যক্রমকে এগিয়ে নেওয়ার ক্ষেত্রে ইউএনডিপি কার্যকর ভূমিকা রাখবে। আমরা এমন একটি ইকোসিস্টেম তৈরি করতে চাই, যেখানে ছোট-বড় সব অংশীদার দক্ষ জনশক্তি বৃদ্ধিতে সমান সুযোগ পাবে। প্রান্তিক নারী ও যুবসমাজের জন্য সুরক্ষা নিশ্চিত করে বাংলাদেশের ভবিষ্যত কর্মক্ষেত্র রূপান্তর প্রক্রিয়ায় আমরা সহযোগিতা করতে চাই। আমরা ভবিষ্যত কর্মক্ষেত্র তৈরিতে সরকারি-বেসরকারি খাতকে নিবিড়ভাবে সহযোগিতা দেবো।  

অনুষ্ঠানে মুক্ত আলোচনায় অন্যদের মধ্যে অংশ নেন- জাতিসংঘের সাউথ-সাউথ অপারেশন অফিসের এশিয়া প্যাসিফিক রিজিওনাল কো-অর্ডিনেটর ডেনিস নকালা, ইউএনডিপি ভুটানের আবাসিক প্রতিনিধি আজুসা কুবোটা, ইউএনডিপি মালদ্বীপের আবাসিক প্রতিনিধি আকিকো ফুজি ও সংবাদমাধ্যম কর্মীরা।  

বাংলাদেশ সময়: ১৫০২ ঘণ্টা, জুলাই ০৩, ২০২০ 
টিআর/এইচজে

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

তথ্যপ্রযুক্তি এর সর্বশেষ

Alexa