শেবাচিম হাসপাতালের অর্থপেডিক বিভাগ লকডাউন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল

walton

বরিশাল: বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের অর্থপেডিক বিভাগের চিকিৎসক-নার্সসহ ১১ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ায় অর্থপেডিক্স বিভাগকে লকডাউন করা হয়েছে। একই সঙ্গে ওই বিভাগের দায়িত্বরত অন্য চিকিৎসক-নার্সদের আইসোলেশনে পাঠানো হয়েছে। 

করোনা পজেটিভ রোগী তথ্য গোপন করে সেবা নিতে যাওয়ায় ওই বিপর্যয় হয়েছে বলে জানিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

শের-ই বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের অর্থপেডিক বিভাগের সার্জন সুদীপ হালদার বাংলানিউজকে বলেন, করোনা পজেটিভ দুই রোগী তথ্য গোপন করে অর্থপেডিক বিভাগে ভর্তি হন। তারা কয়েকদিন ওই বিভাগে চিকিৎসা নেন। বিষয়টি জানতে পেরে অর্থপেডিক বিভাগের সব ডাক্তার, নার্স ও রোগীদের নমুনা সংগ্রহ করে মেডিক্যাল কলেজের পিসিআর ল্যাবে পাঠানো হয়।

শনিবার রিপোর্টে ওই বিভাগের ডাক্তার ও নার্সসহ ১১ জনের করোনা পজেটিভ হয়। এ কারণে পুরো অর্থপেডিক বিভাগ লকডাউন করা হয়েছে। স্বল্প পরিসরে অর্থপেডিক বিভাগ চালু রাখতে মেডিসিন বিভাগের সঙ্গে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। তথ্য গোপন করে ভর্তি হওয়া দুই রোগীকে করোনা ওয়ার্ডে পাঠানোর কথা জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

বাংলাদেশ সময়: ২০০০ ঘণ্টা, জুন ০৬, ২০২০
এমএস/এনটি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: করোনা ভাইরাস
Nagad
করোনা আক্রান্তের ঝুঁকির মধ্যেই স্বাভাবিক হচ্ছে নগরজীবন!
ভিয়েতনামে আটকে পড়া ২৭ বাংলাদেশি নিয়ে মন্ত্রণালয়ের ব্যাখ্যা
ক্ষেতলালে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে যুবকের মৃত্যু
এবার ফ্লোরিডায় মানুষের মগজখেকো অ্যামিবার হানা! 
পিরোজপুরে মতানৈক্যের কারণে উন্নয়নে বরাদ্দকৃত টাকা ফেরত   


হাতিয়ায় ৩ হাজার মানুষ পানিবন্দি
সারা দেশে একটি ‘সাইবার পুলিশ স্টেশন’ করবে সিআইডি
স্ত্রীসহ ক্রেস্ট সিকিউরিটির চেয়ারম্যান আটক
যশোরে ছাত্র নির্যাতনের অভিযোগ: বিচারিক তদন্তের নির্দেশ
বাজেট পেশের ১ মাসের মধ্যেই খাদ্যখাতে মূল্যস্ফীতি বাড়লো