ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭, ১১ আগস্ট ২০২০, ২০ জিলহজ ১৪৪১

নির্বাচন ও ইসি

কেশবপুর উপ-নির্বাচনে জামানত হারিয়েছে বিএনপি-জাতীয় পার্টি

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২১৭ ঘণ্টা, জুলাই ১৫, ২০২০
কেশবপুর উপ-নির্বাচনে জামানত হারিয়েছে বিএনপি-জাতীয় পার্টি

যশোর: সদ্য সমাপ্ত যশোর-৬ (কেশবপুর) সংসদীয় আসনের উপ-নির্বাচনে কাঙ্ক্ষিত সংখ্যক ভোট না পাওয়ায় বিএনপি মনোনীত ধানের শীষ ও জাতীয় পার্টি মনোনীত লাঙ্গল প্রতীকের দুই প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত হয়েছে।

নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থী আবুল হোসেন আজাদ ধানের শীষ প্রতীকে পেয়েছেন ২ হাজার ১২ ভোট। তবে বিএনপি কেন্দ্রীয়ভাবে নির্বাচন বর্জন করায় শেষ পর্যন্ত মাঠে ছিলেন না আবুল হোসেন আজাদ।

অপর প্রার্থী জাতীয় পার্টির হাবিবুর রহমান লাঙল প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ১ হাজার ৬৭৮ ভোট।  

নির্বাচনী আইন অনুযায়ী, জামানত ফিরে পেতে হলে কোনো প্রার্থীকে মোট প্রদত্ত ভোটের অন্তত ৮ ভাগের এক ভাগ পেতে হয়। সেই হিসেবে মঙ্গলবারের নির্বাচনে ভোট কম পাওয়ায় ধানের শীষ ও জাতীয় পার্টির দুই প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত হয়েছে।  

এ ব্যাপারে যশোর জেলা সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা হুমায়ুন কবির বাংলানিউজকে বলেন, নির্বাচনী আইন অনুযায়ী জামানত ফিরে পেতে কোনো প্রার্থীকে মোট প্রদত্ত ভোটের অন্তত ৮ ভাগের এক ভাগ পেতে হয়। সে হিসেবে মঙ্গলবার নির্বাচনে যশোর-৬ (কেশবপুর) আসনে মোট ২ লাখ ৩ হাজার ১৮ জন ভোটারের মধ্যে ১ লাখ ২৯ হাজার ৬৭ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন। এর মধ্যে বাতিল হয়েছে ১ হাজার ৩৭৪ ভোট। আওয়ামী লীগ প্রার্থী শাহীন চাকলাদার নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন ১ লাখ ২৪ হাজার ৩ ভোট, বিএনপির প্রার্থী আবুল হোসেন আজাদ ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ২ হাজার ১২ ভোট ও জাতীয় পার্টির হাবিবুর রহমান লাঙল প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ১ হাজার ৬৭৮। তাই নির্বাচিত প্রার্থী ছাড়া অপর ২ প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত হয়েছে। নির্বাচনে ভোট পড়েছে ৬৩.৫৭ শতাংশ।

বাংলাদেশ সময়: ২০১৬ ঘণ্টা, জুলাই ১৫, ২০২০ 
ইউজি/এইচজে

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

নির্বাচন ও ইসি এর সর্বশেষ

Alexa