বেনাপোল দিয়ে রেলপথে খাদ্যদ্রব্য জাতীয় পণ্যের আমদানি শুরু

উপজেলা করসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: বাংলানিউজ

walton

বেনাপোল (যশোর): করোনায় ভারত সরকারের নিষেধাজ্ঞায় স্থলপথে ভারতের প্রেট্রাপোল বন্দরের সঙ্গে বেনাপোল স্থলবন্দরে আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্য বন্ধ থাকায় বিশেষ ব্যবস্থায় এই প্রথম রেলপথে শুরু হয়েছে খাদ্যদ্রব্য জাতীয় কাঁচামাল আমদানি। এতে ব্যবসায়ীদের মধ্যে ফিরেছে স্বস্তি। কাস্টমস ও রেলওয়ে বিভাগের পণ্য ছাড়করণের কার্যক্রমও চলছে।

রোববার (৩১ মে) দুপুরে ৪২টি ওয়াগানে ভারত থেকে ২ হাজার ৬০০ মেট্রিক টন শুকনা মরিচ, হলুদ ও আদা আমদানি হয়। এটি বেনাপোল রেলপথে প্রথম খাদ্যদ্রব্য জাতীয় কোনো পণ্যের আমদানি হলো। 

বেনাপোল কাস্টমস হাউজের রাজস্ব কর্মকর্তা নাইম মিরণ বাংলানিউজকে বলেন, বর্তমানে স্থলপথে আমদানি বন্ধ রয়েছে। বিশেষ ব্যবস্থায় এসব পণ্য রেলপথে আমদানি হচ্ছে। আশা করা যাচ্ছে এভাবে বাণিজ্য চালু থাকবে। ব্যবসায়ীরা যাতে দ্রুত পণ্য খালাস নিতে পারেন, তার জন্য আমরা আন্তরিকভাবে কাজ করছি।  

আমদানিকারকের প্রতিনিধি বাদশা বাংলানিউজকে বলেন, করোনা পরিস্থিতিতে স্থলপথে আমদানি বন্ধ থাকায় আমাদের এসব পণ্য দীর্ঘ আড়াই মাস যাবত ভারতের পেট্রাপোল বন্দরে আটকা থেকে অনেক লোকশান হচ্ছিল। অবশেষে কাস্টমস কর্তৃপক্ষের প্রচেষ্টায় রেলপথে এসব পণ্য ঢুকেছে। এতে আমরা কিছুটা হলেও ক্ষতির হাত থেকে বাঁচবো।  

বেনাপোল রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার সাইদুজ্জামান বাংলানিউজকে বলেন, আমদানি করা খাদ্যদ্রব্যের চালান ছাড় করাতে কাস্টমস ও রেলওয়ের আনুষ্ঠানিকতা চলছে। কাজ সম্পূর্ণ হলে চালানটি ছাড় দেওয়া হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৭০৫ ঘণ্টা, মে ৩১, ২০২০
এসআরএস

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: বেনাপোল যশোর
Nagad
সাংবাদিক লাবলুকে হারানোর এক বছর
সিলেটে দুই চিকিৎসকসহ করোনায় আক্রান্ত আরো ৭৪ জন
রাজধানীতে মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে যুবক নিহত
দুই বন্ধুকে পোড়াচ্ছে এন্ড্রু কিশোরের ফেলে যাওয়া স্মৃতি
ঈদুল আজহাকে কেন্দ্র করে সক্রিয় জালনোট প্রতারক চক্র


সিঙ্গাপুর থেকে ফিরলেন আটকে পড়া ১৬২ বাংলাদেশি
 হেফাজতের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র বরদাশত করা হবে না: আল্লামা শফী
জার্মান বিনিয়োগকারীদের গুরুত্বপূর্ণ গন্তব্য হবে বাংলাদেশ
স্বাস্থ্যসুরক্ষায় ডিআরইউর নতুন সংযোজন অক্সিজেন কনসেনট্রেটর
নোয়াখালীতে করোনায় আরো একজনের মৃত্যু, মোট ৫৩