php glass

মাস্টারকার্ডের পেমেন্ট সামিট ও গালা নাইট অনুষ্ঠিত

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

বক্তব্য রাখছেন মাস্টারকার্ডের কান্ট্রি ম্যানেজার সৈয়দ মোহাম্মদ কামাল। ছবি: ডিএইচ বাদল

walton

ঢাকা: বাংলাদেশে কার্যক্রমের ২৮ বছর উদযাপনে ‘পেমেন্ট সামিট’ স্টেক হোল্ডারদের নিয়ে গালা নাইটের আয়োজন করেছে গ্লোবাল পেমেন্ট ও প্রযুক্তি কোম্পানি মাস্টারকার্ড।

মঙ্গলবার (১৯ নভেম্বর) রাজধানীর হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে বাংলাদেশে পথচলার ২৮ বছরের কার্যক্রম তুলে ধরা হয়।

এসময় প্রায় তিন দশকের এই পথচলায় নগদ অর্থ লেনদেন ছাড়াই দেশে দক্ষ ও নিরাপদ পেমেন্ট পরিমণ্ডল গড়ে তোলার ক্ষেত্রে মাস্টারকার্ডের গুরুত্বপূর্ণ অবদানের বিষয় উপস্থাপন করা হয়।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সিনিয়র সচিব মো. আসাদুল ইসলাম বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে বর্তমান সরকার আইসিটি, আর্থিক ও অর্থ-পরিশোধ শিল্পসহ প্রতিটি ক্ষেত্রে ডিজিটালাইজেশন এবং নতুনত্ব আনতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। বিশ্বায়নের এই যুগে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ায় সরকারের এজেন্ডার সঙ্গে সামঞ্জস্য রাখে এমন যেকোনো উদ্যোগকে আমরা স্বাগত জানাই। 

মাস্টারকার্ড বাংলাদেশের কান্ট্রি ম্যানেজার সৈয়দ মোহাম্মদ কামাল বলেন, প্রথম পেমেন্ট সামিটের মাধ্যমে বাংলাদেশে মাস্টারকার্ডের ২৮ বছরের সাফল্যপূর্ণ পথচলা এবং প্রাতিষ্ঠানিক কার্যক্রমের ৬ষ্ঠ বর্ষপূর্তি উদযাপনের এই আনন্দঘন মুহূর্তটি পার্টনার প্রতিষ্ঠানগুলোর সঙ্গে ভাগাভাগি করতে পেরে আমরা খুবই আনন্দিত।

তিনি বলেন, যাত্রার শুরু থেকে আর্থিক লেনদেনকে আরও নিরাপদ ও সহজতর করে এদেশের সামগ্রিক অর্থনীতিকে আরও গতিশীল করতে কাজ করে যাচ্ছি আমরা। নতুন নতুন উদ্ভাবনীর মধ্য দিয়ে এদেশের আর্থিক লেনদেনকে আরও সহজ ও নিরাপদ করতে বাংলাদেশ ব্যাংকসহ অন্য আর্থিক প্রতিষ্ঠানের বিশ্বস্ত সহযোগী হিসেবে বিরামহীনভাবে কাজ করে যাচ্ছে মাস্টারকার্ড। ক্যাশলেস সমাজ গড়ে তোলার মাধ্যমে বাংলাদেশের আর্থিক উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখতে পেরে আমরা আনন্দিত।

পুরস্কার তুলে দিচ্ছেন আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব আসাদুল ইসলাম। ছবি: ডিএইচ বাদল

দিনব্যাপী কর্মশালা শেষে গালা নাইট অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠিত হয়। এসময় মাস্টারকার্ডের পার্টনার সেরা ব্যাংকগুলো যারা ব্যবসার বিভিন্ন ক্ষেত্রে নতুন নতুন উদ্ভাবন ও নানা সেবা দিয়ে নগদ অর্থবিহীন সমাজ গড়তে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে, তাদের পুরস্কৃত করা হয়েছে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর আহমেদ জামাল এবং অ্যাসোসিয়েশন অব ব্যাংকার্স বাংলাদেশের চেয়ারম্যান ও ঢাকা ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সৈয়দ মাহবুবুর রহমান। এছাড়া মাস্টারকার্ডের পার্টনার ব্যাংকগুলোর শীর্ষ কর্মকর্তাসহ বাংলাদেশের শীর্ষ আর্থিক প্রতিষ্ঠানের উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তারাও অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে, মাস্টারকার্ড পেমেন্ট সামিট ২০১৯-এ স্টেকহোল্ডারদের জন্য দিনব্যাপী কর্মশালার আয়োজন করা হয়। এতে মাস্টারকার্ড কার্ডহোল্ডারদের ক্রমবর্ধমান সংখ্যার পাশাপাশি নতুন নতুন উদ্ভাবনের মাধ্যমে নিরাপদে অর্থ লেনদেনের ক্ষেত্রে প্রযুক্তিগত সক্ষমতা ও দক্ষতার বিষয়ে আলোকপাত করা হয়। 

এছাড়া, বাংলাদেশের অর্থনীতির বিভিন্ন ক্ষেত্রে, বিশেষ করে আইসিটি ও ই-কমার্স শিল্পে সেরা পেমেন্ট সেবাসহ বিভিন্ন অবদান রাখার মাধ্যমে সরকারের ভিশন-২০২১ অর্জনে মাস্টারকার্ড যে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে, সে বিষয়টিও কর্মশালায় তুলে ধরা হয়।

বাংলাদেশ সময়: ২২২৭ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৯, ২০১৯
এসই/একে

তথ্য কমিশন-এটুআই’র মধ্যে চুক্তি সই
বাংলাদেশ ক্যানসার এইড ট্রাস্টের যাত্রা শুরু
জাপার সম্মেলন উপলক্ষে প্রচার উপ-কমিটির সভা
‘নারীর প্রতি সহিংসতার প্রকাশ্য প্রতিবাদ করতে হবে’
বগুড়ায় ইউপি সদস্যকে ইয়াবাসহ আটক


সালমান-ক্যাটরিনার পারফরম্যান্সে শেষ হলো বিপিএল’র উদ্বোধনী
ট্রাক্টরই এখন কৃষকের ‘গলার কাঁটা’
বাংলাদেশকে অনেক ভালোবাসি: সালমান খান
পঞ্চগড়ে শীতের তীব্রতা চরমে, দুর্ভোগে নিম্ন আয়ের মানুষ
বেগম রোকেয়ার জন্ম-মৃত্যু
ইতিহাসের এই দিনে

বেগম রোকেয়ার জন্ম-মৃত্যু