php glass

পাথরঘাটায় হতাহতের ঘটনায় শোকাহতদের পাশে মেয়র

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

চমেক হাসপাতালে হতাহতদের দেখতে যান চসিক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।

walton

চট্টগ্রাম: পাথরঘাটায় গ্যাসের লাইনে বিস্ফোরণে দেয়াল ধসে হতাহতের ঘটনায় আহতদের সর্বোচ্চ চিকিৎসার ব্যবস্থা করার ঘোষণা দিয়েছেন চসিক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।

রোববার (১৭ নভেম্বর) সকাল সোয়া ১১টায় মেয়র দুর্ঘটনাস্থলে ছুটে যান।

এসময় তিনি বলেন, আহতদের সর্বোচ্চ চিকিৎসার ব্যবস্থা করবো। তাদের যাবতীয় খরচ সিটি করপোরেশন বহন করবে।৭ জনের প্রাণহানি হয়েছে। ফায়ার সার্ভিস, আমাদের দুজন কাউন্সিলর যথেষ্ট কষ্ট করেছেন। জনগণকে সচেতন হতে হবে।

মেয়র বলেন, একটি দুর্ঘটনা অপূরণীয় ক্ষতি। সব কর্তৃপক্ষের পাশাপাশি ভবন মালিক ও ভাড়াটিয়াদের গ্যাস, বিদ্যুতের লাইনে লিকেজ আছে কিনা নিয়মিত তদারকি করতে হবে। ব্যবহারকারীরা সচেতন হলে দুর্ঘটনা এড়ানো সম্ভব।

তিনি বলেন, শহরটা পরিকল্পিত না। সিডিএ নকশা অনুমোদন করে। নকশা অনুযায়ী ভবন হচ্ছে না। নজরদারির জন্য প্রয়োজনীয় জনবল সেবা সংস্থার নেই। চসিক, ফায়ার সার্ভিস, সিডিএ, জেলা প্রশাসন, কর্ণফুলী গ্যাসের প্রতিনিধি নিয়ে কমিটি গঠন করা হবে।

এসময় শোকাহত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান মেয়র। পরে তিনি চমেক হাসপাতালে যান। সেখানে নিহতদের আত্মীয়-স্বজনকে সান্ত্বনা দেন এবং আহতদের সুচিকিৎসার ব্যাপারে চিকিৎসকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

মেয়রের একান্ত সচিব রায়হান ইউসুফ বাংলানিউজকে বলেন, নিহতদের মরদেহ গ্রামের বাড়িতে পাঠাতে মেয়রের পক্ষ থেকে গাড়ি ভাড়া ও দাফনের জন্য ২০ হাজার টাকা করে দেওয়া হচ্ছে। ৭টি পরিবারকে পরবর্তীতে আরও ১ লাখ টাকা করে দেওয়া হবে। এছাড়া আহত সবার সুস্থ হওয়া পর্যন্ত চিকিৎসার সব খরচ বহন করবে চসিক।

বাংলাদেশ সময়: ১৩৩০ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৭, ২০১৯
এআর/এসি/টিসি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: চট্টগ্রাম
সৌম্যের ফিফটিতে ভুটানকে উড়িয়ে দিল বাংলাদেশ
শ্রীনগরে বাসচাপায় চাচা নিহত, ভাতিজা আহত 
চড়া দামেই বিক্রি হচ্ছে সবজি, মাছেও নেই স্বস্তি
‘ঘি’ মানসম্মত না হওয়ায় মামলা
উত্তর জেলা আ’লীগের সম্মেলন ঘিরে চাঙা নেতা-কর্মীরা


শীত জেঁকে বসতেই খুলনায় হাঁস খাওয়ার মহোৎসব!
পুরোনো লাইনেই ইন্টারনেটের স্পিড বাড়বে! 
মেঘনার পাড় কেটে ইট তৈরি, ভাঙন আতঙ্ক!
সন্ধ্যায় বিয়ের পিঁড়িতে বসছেন মিথিলা-সৃজিত!
রাউজানে প্রাথমিক শিক্ষার্থীদের মাঝে টিফিন বক্স বিতরণ