php glass

দেশের পর্যটন খাতে সুদিন আসছে: মেয়র নাছির

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

বক্তব্য দেন চসিক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। ছবি: সোহেল সরওয়ার

walton

চট্টগ্রাম: বাংলাদেশের পর্যটন শিল্প কাঙ্ক্ষিত গন্তব্যে পৌঁছবে এবং এ খাতে জড়িতদের সুদিন অপেক্ষা করছে বলে মন্তব্য করেছেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।

বৃহস্পতিবার (২৪ অক্টোবর) সকালে নগরের পেনিনসুলা হোটেলে ১১তম আন্তর্জাতিক পর্যটন মেলার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

পর্যটন মেলা উদ্বোধন করেন চসিক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। ছবি: সোহেল সরওয়ারমেয়র বলেন, আমাদের পর্যটন খাতে দায়িত্বে নিয়োজিতরা অতীতে সঠিকভাবে কাজ করেননি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পর্যটন খাতকে গুরুত্ব দিচ্ছেন। চট্টগ্রামে দৃশ্যমান পরিবর্তন হচ্ছে। সড়কদ্বীপ, ডিভাইডারগুলোর সৌন্দর্যবর্ধন করেছি। সব সেবা সংস্থার সঙ্গে আলাপ আলোচনা করে সমন্বয়ের চেষ্টা করছি। জনদুর্ভোগ কমে আসবে।

তিনি বলেন, চট্টগ্রামের গুরুত্ব ও সম্ভাবনা উপলব্ধি করেই মনিটর এখানে ট্যুরিজম ফেয়ার করছে। দেশের অফুরান সম্ভাবনা কাজে লাগাতে হলে নাগরিকদেরও এগিয়ে আসতে হবে। চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, রাঙামাটি, বান্দরবান, খাগড়াছড়িতে দেখার অনেক কিছু আছে। প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি বলা হয় চট্টগ্রামকে। এয়ারলাইন্সগুলোকে চট্টগ্রামের পর্যটন শিল্পকে প্রমোট করতে হবে। বিদেশি পর্যটকদের আকৃষ্ট করতে হবে। কানেকটিভিটি যত দ্রুততর করা যায় সেই চেষ্টা করতে হবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি মাহবুবুল আলম বলেন, চট্টগ্রাম থেকে প্রচুর রোগী, ব্যবসায়ী, পর্যটক যাতায়াত করেন সিঙ্গাপুর ব্যাংককে। এ রুটে ফ্লাইট চাই আমরা। চট্টগ্রাম-সিলেট ফ্লাইট দরকার। কানেকটিভিটি না থাকলে পর্যটন খাতের ডেভলপমেন্ট হবে না। পৃথিবীর সব ব্যবসায়ীর দৃষ্টি চট্টগ্রামে। এখানে হচ্ছে বঙ্গবন্ধু শিল্পনগর।

সিলেট ও চট্টগ্রামে ইকো ট্যুরিজম, রিলিজিয়ন ট্যুরিজমের বড় সুযোগ রয়েছে। চট্টগ্রামকে ট্যুরিস্ট হাব করতে হবে। দেশের উন্নয়নে ট্যুরিজম বড় ভূমিকা রাখবে।

আন্তর্জাতিক পর্যটন মেলা প্রাঙ্গণ ঘুরে দেখেন অতিথিরা। ছবি: সোহেল সরওয়ারচট্টগ্রাম ট্যুরিজম ক্যাপিটাল

দ্য বাংলাদেশ মনিটর সম্পাদক কাজী ওয়াহিদুল আলম বলেন, চট্টগ্রামে আসতে পারা আনন্দের ব্যাপার। চট্টগ্রামকে বলা হয় পর্যটনের রাজধানী। কিন্তু চট্টগ্রামকে বিশ্ববাজারে তুলে ধরার জন্য সরকারিভাবে যা করা দরকার তা হচ্ছে না। আমরা ১২ বছর ধরে চেষ্টা করছি বেসরকারিভাবে এ খাতকে এগিয়ে নিতে।

চট্টগ্রাম রিজিয়নে যে পর্যটন আকর্ষণ রয়েছে তা তুলে ধরা গেলে বিদেশি পর্যটকদের আকৃষ্ট করা সম্ভব। আমরা চাই- ভারত, সিঙ্গাপুরসহ যেখানে বেসরকারি এয়ারলাইন্স ফ্লাইট অপারেশন করে সেখানে পর্যটনকে প্রমোট করতে হবে। না দেখলে কিন্তু বলা যায় না। তাই বিদেশি পর্যটন সাংবাদিকদের এখানে নিয়ে আসতে হবে। চট্টগ্রামে এখন হোটেল মোটেল থেকে শুরু করে সবকিছু আছে কিন্তু সদিচ্ছা নেই।

এয়ার এরাবিয়ার কান্ট্রি ম্যানেজার সৈয়দ মুবিন রশীদ বলেন, এয়ার এরাবিয়া বিশ্বাস করে ইনোভেশনে। স্কাই টাইমে যাত্রীদের নানা সুযোগ সুবিধা দিয়ে থাকে। বাংলাদেশ থেকে শারজাহ ৫টি ফ্লাইট অপারেশন করছে। আমি মনে করি, বাংলাদেশ ট্যুরিজমে সমৃদ্ধি অর্জন করছে।

পর্যটন মেলায় রিজেন্ট এয়ারওয়েজের স্টল।ছবি: সোহেল সরওয়াররিজেন্ট এয়ারওয়েজের চিফ কমার্শিয়াল অফিসার হানিফ জাকারিয়া বলেন, ২০০৫ সাল থেকে দেশের সব ট্রাভেল ফেয়ারে অংশ নিয়েছি। রিজেন্ট এয়ারওয়েজ নিরাপত্তাকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে থাকে। চট্টগ্রাম-ব্যাংকক ফ্লাইট সাময়িকভাবে বন্ধ রেখেছি। এটিসহ চট্টগ্রাম থেকে নতুন নতুন আন্তর্জাতিক গন্তব্যে ফ্লাইট পরিচালনার পরিকল্পনা রয়েছে।

ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্সের মহাব্যবস্থাপক শফিকুল ইসলাম বলেন, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের পরই আমরা সর্বোচ্চ যাত্রীসেবা দিচ্ছি। আমরা অভ্যন্তরীণ ৮টি, আন্তর্জাতিক ৮টি গন্তব্যে ফ্লাইট অপারেট করছি। আমরা চাই দেশের পর্যটন শিল্পের ব্রান্ডিং করতে। চট্টগ্রাম-চেন্নাই ফ্লাইট পরিচালনা করছি রোগীদের সুবিধার্থে। চট্টগ্রাম-ঢাকা ১০টি ফ্লাইট অপারেট করছি। পাঁচ বছরে আমাদের প্রাপ্তি অনেক। আমাদের হলিডেস বিভাগের মাধ্যমে বিদেশিদের আনছি। আমরা উদ্বুদ্ধ করছি। সরকার যেভাবে পর্যটন খাতে বিনিয়োগ করছে তাতে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে বিশেষ জায়গা দখল করবে।

তিনি বলেন, সিলেট-চট্টগ্রাম, সিলেট-কক্সবাজার ফ্লাইট আগামী বছর চালু হবে। যশোর থেকে চট্টগ্রাম ফ্লাইট অপারেশনের পরিকল্পনা রয়েছে। চট্টগ্রামে ২টি বোয়িং থাকবে। আগামী বছর ২টি বোয়িং যুক্ত হবে আমাদের বহরে। চট্টগ্রাম থেকে বৃহত্তর চট্টগ্রামের জেলা শহরের সড়কগুলো আধুনিকায়ন করতে না পারলে পর্যটন শিল্পের দ্রুত অগ্রগতি হবে না।

উল্লেখ্য, ২৬ অক্টোবর পর্যন্ত পেনিনসুলার ডালিয়া হলে (লেভেল ৩) এ মেলা চলবে।

বাংলাদেশ সময়: ১২২২ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৪, ২০১৯
এআর/এসি/টিসি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: চট্টগ্রাম
বিরলে ট্রেনে কাটা পড়ে বৃদ্ধের মৃত্যু
রেইনবো ডায়েট আবার কী, কেন খেতে বলা হয়?
ঢাকা মহানগর আ’লীগের উত্তর-দক্ষিণে আলোচনায় যারা
টি-১০ ক্রিকেটে রেকর্ড ইনিংস খেললেন ক্রিস লিন
সাতক্ষীরা সীমান্তে ১১৫ কেজি ইলিশসহ আটক ১


মেহেরপুরে চলছে দ্বিতীয় দিনের মতো বাস ধর্মঘট, ভোগান্তি 
মারাত্মক ঝুঁকিতে উন্নয়নশীল দেশের স্যানিটেশন শ্রমিকরা
পাথরঘাটায় বিস্ফোরণে ক্ষতিগ্রস্তদের সান্ত্বনা দিলেন নওফেল
বৈষম্য বিলোপের লক্ষ্যে মঙ্গলবার বিশ্ব পুরুষ দিবস
মালিতে জঙ্গি হামলায় ২৪ সেনা নিহত