php glass

পলিটেকনিকে ‘বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ’ শীর্ষক স্থাপনা

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

চট্টগ্রাম পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট ক্যাম্পাসে ‘বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ’ শীর্ষক স্থাপনার উদ্বোধন করেন মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন

walton

চট্টগ্রাম:  মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের স্মৃতি অম্লান করে রাখতে চট্টগ্রাম পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট ক্যাম্পাসে স্থাপন করা হয়েছে ‘বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ’ শীর্ষক স্থাপনা।

রোববার (১৯ মে) এ স্থাপনার ফলক উন্মোচন করেন মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।

ইনস্টিটিউট প্রাঙ্গণে ৮০০ বর্গফুট জায়গায় সাতটি ত্রিভুজ আকৃতির মিনারের শিখর বাংলাদেশের মুক্তি সংগ্রামের সাতটি পর্যায় তুলে ধরা হয়েছে। এ সাতটি পর্যায়ের প্রতিটি সূচিত হয় বায়ান্নের ভাষা আন্দোলনের মাধ্যমে। পরবর্তীতে চুয়ান্ন, ছাপান্ন, বাষট্টি, ছেষট্টি ও ঊনসত্তরের গণঅভ্যুত্থানের মধ্য দিয়ে অগ্রসর হয়ে একাত্তরের সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে স্বাধীনতা সংগ্রামের চূড়ান্ত বিজয় অর্জিত হয়। এ স্থাপনায় বঙ্গবন্ধুর সাতই মার্চের ভাষণ এবং বঙ্গবন্ধু জন্ম ও শাহাদতবরণের ইতিহাস সন্নিবেশিত করা হয়েছে।

স্থাপনার মূল পরিকল্পনা ও বাস্তবায়নের দায়িত্বে ছিলেন চট্টগ্রাম পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের সাবেক অধ্যক্ষ প্রকৌশলী নুরুল কবির। এ স্মৃতিসৌধের উচ্চতা ১৬ ফুট।

মেয়র বলেন, বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ অবিচ্ছেদ্য অংশ। বঙ্গবন্ধুকে বাদ দিয়ে বাংলাদেশ কল্পনা করা যায় না। তার ত্যাগ আন্দোলন সংগ্রামের ফল আজকের স্বাধীন বাংলাদেশ। হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে দীর্ঘ নয় মাস রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের মধ্য দিয়ে বাঙালি জাতি পৃথিবীর মানচিত্রে বাংলাদেশ রাষ্ট্রের জন্ম দিয়েছে। এর পেছনে রয়েছে ৩০ লাখ শহীদদের আত্মদান, আড়াই লাখ মা-বোনের সম্ভ্রম হারানোর বেদনা। এদের আত্মত্যাগের বিনিময়ের পর ১৬ ডিসেম্বর বিজয় অর্জিত হয়েছে।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষ আবদুর রহমান। সভায় সাবেক অধ্যক্ষ নুরুল কবীর, বঙ্গবন্ধু প্রজন্ম লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এএম মহিউদ্দিন, চট্টগ্রাম চেম্বারের সাবেক পরিচালক মাহফুজুল হক শাহ বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন।

আইডিইবি'র সাধারণ সম্পাদক মো. জসিম উদ্দিন, ইলেকট্রিক্যাল বিভাগীয় প্রধান স্বপন কুমার নাথ, পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট ছাত্রলীগ সভাপতি একরামুল কবীর, কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের সাধারণ সম্পাদক আরমান চৌধুরী প্রমুখ বক্তব্য দেন।

বাংলাদেশ সময়: ২০৫০ ঘণ্টা, মে ১৯, ২০১৯
এআর/টিসি

 

 

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: চট্টগ্রাম
অবশেষে দেশে ফিরলেন নির্যাতিত সুমিসহ ৯১ নারী
‘নার্স ভিসার কথা বলে সৌদি পাঠানো হয় সুমিকে’
‘জীবদ্দশায় শতবার্ষিকী উদযাপন বিরল সুযোগ’
 এখনো ফিরে পাওয়ার স্বপ্ন দেখে উপকূলবাসী
টেকনাফে ১০ হাজার পিস ইয়াবাসহ রোহিঙ্গা যুবক আটক


বরিশালে নবান্ন উৎসব ১৪২৬ বাতিল
রাজধানীতে মাদকসহ আটক ৮
মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধরে রাখার আহ্বান
চুয়াডাঙ্গায় ট্রাক্টরের ধাক্কায় ভ্যানচালক নিহত
ক্ষেতলালে ৩ জনের কারাদণ্ড