বাইরের কথায় নয়, নিজেদের পর্যবেক্ষণে জোর মাশরাফির

ওয়ার্ল্ড কাপ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

মাশরাফি বিন মর্তুজা-ছবি: সংগৃহীত

walton

সোমবার (১৭ জুন) টন্টনে মহাগুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। এই ম্যাচের আগে সতীর্থদের এক বিশেষ বার্তা দিয়ে রাখলেন টাইগার ওয়ানডে দলপতি মাশরাফি বিন মর্তুজা। তিনি চান, বাইরের কারো মতামতে কান না দিয়ে পিচ নিয়ে নিজেদের পর্যবেক্ষণে জোর দিক দল।

অনেকের মনে প্রশ্ন জাগতে পারে, হঠাৎ এমন কথা কেন বলছেন মাশরাফি? আসলে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচটিতে জয় হাতছাড়া হওয়া নিয়ে কথা বলতে গিয়ে এমন মন্তব্য। ওই ম্যাচে উইকেট পর্যবেক্ষণে ভুল হয়েছিল বলেই জানালেন তিনি। সেই ভুলের খেসারত দিয়ে ম্যাচটাই হারতে হয়েছে। 

তবে এজন্য বাইরের মতামতকে গুরুত্ব দেওয়াকেই দুষছেন মাশরাফি। মাশরাফির কথায় সেই ম্যাচে ধারাভাষ্যকারদের কথা উইকেট এসেস করার প্রসঙ্গ উঠে এসেছে। মাশরাফি খুলে না বললেও ক্রিকইনফোর অনুসন্ধানে জানা গেছে, টিম ম্যানেজমেন্টের কেউ কেউ ধারাভাষ্য শুনে প্রভাবিত হয়ে ভুল বার্তা দিয়েছিলেন। এমনকি মাঝের ওভারগুলোতে (৩১-৩৮ ওভার) ক্রিজে থাকা ব্যাটসম্যানদের মেরে খেলার বার্তাও দেওয়া হয়েছিল। 

তবে মাশরাফির তাতে সায় ছিল না। তার মতে, ধারাভাষ্যকারদের কথা শুনে সিদ্ধান্তে আসা ঠিক নয়। বললেন, 'রেডিও শুনে পিচ পর্যবেক্ষণ করা কঠিন। তারা শুধু ধারণা দেবে এবং সামনে যা ঘটবে তাই বর্ণনা করবে। ম্যাচের এগিয়ে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে পিচের আচরণেও পরিবর্তন আসবে। আপনি যখন ওভালের মতো মাঠে খেলতে যাবেন আপনার মনে ৩৩০-৩৫০ রানের চিন্তা আসবেই।'

রোববার (১৬ জুন) ম্যাচের আগে সংবাদ সম্মেলনে অধিনায়ক মাশরাফি  বলেন, ‘আমি মনে করি দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে আমাদের হিসাব ঠিক ছিল। কিন্তু নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে যদি ওই সময় সাকিব আল হাসান আউট না হতো, নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে একই পথে যেতে পারতাম। যখন মোহাম্মদ মিঠুন এবং মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ব্যাটিং করছিল, আমরা ঠিক পথেই এগুচ্ছিলাম। তখন ২৭০ টার্গেট করেছিলাম। কিন্তু রেডিও’র কথা শুনে পিচ নিয়ে সিদ্ধান্তে আসা কঠিন।'

তবে যা হয়ে গেছে তা তো ফিরিয়ে আনা সম্ভব নয়। তাই এখন সামনের ম্যাচের দিকেই সব নজর দিতে চান মাশরাফি। পরের ম্যাচের ভেন্যু টন্টন নিয়ে বেশ বিভ্রান্তি আছে। পিচ সবুজ হলেও এটা বরাবরই ব্যাটিং-বান্ধব। এই বিভ্রান্তি দূর করতে যারা মাঝের ওভারে ব্যাটিং করবেন তাদের ওপরই ছেড়ে দিচ্ছেন।

মাশরাফি বলেন, ‘যে দল ঠিকঠাক পিচ পর্যবেক্ষণ করতে পারবে, তারাই ম্যাচে এগিয়ে থাকবে। আমি মনে করি আমরা (ওভালে) নিউজিল্যান্ড ম্যাচে পিচ পড়তে ভুল করেছিলাম। আমরা যদি পিচ ঠিকভাবে পড়তে পারতাম তাহলে আমরা ৩০০ নয়, ২৬০-২৭০ রান টার্গেট করতাম।'

টন্টনের পিচ নিয়ে তিনি বলেন, ‘টন্টনের পিচ নিয়েও বিভ্রান্তি আছে। আমরা শুনেছি এটা সবুজ কিন্তু অনেকে বলছেন এটা সাধারণত ফ্ল্যাট উইকেট হয়ে থাকে। আমি মনে করি যারা মাঝে যাবে তারাই দ্রুত বুঝতে পারবে।'

এরপরই বাইরের মতামতের প্রসঙ্গে কথা বলেন মাশরাফি। তিনি জানালেন, রেডিও ধারাভাষ্যের কারণে দল বড় সংগ্রহের পথে ছুটতে চেয়েছিল। আর তাতে আগ্রাসী খেলতে গিয়ে উইকেট ছুড়ে এসেছেন ব্যাটসম্যানরা। এর ফলে ১৫১ রানে ৩ উইকেট থেকে ধস নামতে শুরু করে আর শেষে হারতে হয় ২ উইকেটে। অথচ একই ভেন্যুতে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে আগের ম্যাচেই ৬ উইকেটে ৩৩০ রান সংগ্রহ করেছিল বাংলাদেশ।

মাশরাফি জানান ক্যারিবীয়দেব বিপক্ষে ম্যাচ জয়ে মূল ভুমিকা রাখতে হবে বোলরদের। তিনি বলেন, ‘বোলাদের জন্য চ্যালেঞ্জটা বেশি থাকবে। মাঠ ছোট থাকায় ব্যাটসম্যানরা শট খেললে সেগুলো ফিফটি ফিফটি চান্স থাকে। ছয়ও হতে পারে আবার আউটও হতে পারে। আমার মনে হয় যতো পজেটিভ ভাবে চিন্তা করা যায় ততোই ভালো। বোলারদের কোনো না কোনো পথ খুঁজে বের করতে হবে কীভাবে ওদের বিপক্ষে সফল হতে পারি।’

বাংলাদেশ সময়: ০৭০৮ ঘণ্টা, জুন ১৭, ২০১৯
এমএইচএম

‘জীবদ্দশায় শতবার্ষিকী উদযাপন বিরল সুযোগ’
 এখনো ফিরে পাওয়ার স্বপ্ন দেখে উপকূলবাসী
টেকনাফে ১০ হাজার পিস ইয়াবাসহ রোহিঙ্গা যুবক আটক
বরিশালে নবান্ন উৎসব ১৪২৬ বাতিল
রাজধানীতে মাদকসহ আটক ৮


মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধরে রাখার আহ্বান
চুয়াডাঙ্গায় ট্রাক্টরের ধাক্কায় ভ্যানচালক নিহত
ক্ষেতলালে ৩ জনের কারাদণ্ড
ভোলায় ১০ জেলে নিহত: যেভাবে ডুবলো ট্রলারটি
গাংনীতে কুখ্যাত সন্ত্রাসী আব্দুর রহমান গ্রেফতার