নিয়মরক্ষার ম্যাচে টসে জিতে ব্যাটিংয়ে শ্রীলঙ্কা

ওয়ার্ল্ড কাপ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

টস। ছবি: সংগৃহীত

walton

আগেই সেমি ফাইনাল নিশ্চিত হয়ে যাওয়ায় শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচটি এখন শুধুই ভারতের জন্য নিয়মরক্ষার। বাংলাদেশ সময় বেলা সাড়ে ৩টায় শুরু হতে যাওয়া এই ম্যাচে টসে জিতে ব্যাটিং নেন লঙ্কান দলপতি।

শনিবার (৬ জুলাই) লর্ডসে এবারের বিশ্বকাপের অন্যতম সেরা দল ভারতের মুখোমুখি হবে লঙ্কানরা। নিয়মরক্ষার ম্যাচ হলেও এই ম্যাচটিকে নিজেদের সম্মান রক্ষার ম্যাচ হিসেবেই দেখছেন লঙ্কানরা। কেননা শেষটা ভাল করেই ফিরতে চান দেশে। একই সাথে ম্যাচ জিতে পয়েন্ট বাড়িয়ে এবারের আসরের শীর্ষ দল হতে চাইবে কোহলিরা। তাই ছাড় দেবেনা কেউই।

আসরে দুর্দান্ত ফর্মে থাকা ভারতীয় ওপেনার রোহিত শর্মাও চাইবেন লঙ্কানদের বিরুদ্ধেই এবারের বিশ্বকাপ আসরের ৫ম সেঞ্চুরিটি তুলে নিতে। তা করতে পারলে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষেই শ্রীলঙ্কান কিংবদন্তি কুমারা সাঙ্গাকারার এক বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ সেঞ্চুরির রেকর্ডকে পেছনে ফেলতে পারবেন তিনি।

ভারতের সঙ্গে শেষ আটবারের মোলাকাতে একটি মাত্র ম্যাচে জিতেছে শ্রীলঙ্কা। তবে ২০১৭ সালের চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে সাত উইকেটে শ্রীলঙ্কা হারায় ভারতকে। সেই জয়ের দিকেই ইঙ্গিত লঙ্কানদের। 

শ্রীলঙ্কার একাদশ:

দিমুথ করুনারত্নে (অধিনায়ক), কুশাল পেরেরা (উইকেটরক্ষক), অভিশকা ফারনান্দো, কুশাল মেন্ডিস, অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস, লাহিরু থিরিমান্নে,  ধনঞ্জয়া ডি সিলভা,  ইসুরু উদানা, লাসিথ মালিঙ্গা,  কাসুন রাজিথা ও থিসারা পেরেরা।

ভারতের একাদশ:

রোহিত শর্মা, লোকেশ রাহুল, বিরাট কোহলি (অধিনায়ক), ঋষভ পন্থ, মহেন্দ্র সিং ধোনি (উইকেটরক্ষক), দীনেশ কার্তিক, হার্দিক পান্ডিয়া, রবীন্দ্র জাদেজা, ভুবনেশ্বর কুমার, কুলদীপ যাদব ও জসপ্রিত বুমরাহ। 

বাংলাদেশ সময়: ১৫০৪ ঘণ্টা, জুলাই ০৬, ২০১৯
এমকেএম

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯ CWC19
Nagad
নালিতাবাড়ী-ঝিনাইগাতীতে ২৫ গ্রাম প্লাবিত
বিপিও উদ্যোক্তাদের বিনিয়োগের আহ্বান পলকের
বিনিয়োগ আকর্ষণে নীতিমালা সংস্কারের পরামর্শ
ভুয়া চিকিৎসকসহ ৩ জনকে কারাদণ্ড, হাসপাতাল সিলগালা
পশ্চিমবঙ্গে একদিনে করোনা আক্রান্ত ১,৫৬০ জন


নভোএয়ারে ভ্রমণ করলে ফ্রি কাপল টিকিট
‘টাউট’ শহীদুলের আইন পেশা, আছে মানবাধিকার সংগঠন!
সব বিভাগে ভারী বর্ষণের শঙ্কা, বন্যার অবনতি
অর্ধেক দামে মিলবে কৃষি যন্ত্রপাতি, একনেকে প্রকল্প
খুলনায় নতুন করোনা রোগী শনাক্ত ৭৩, মোট ৩১০৮