ভুল বোঝাবুঝিতে সাজঘরে সৌম্য

ওয়ার্ল্ড কাপ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

সৌম্য সরকার

walton

অজিদের ছুড়ে দেওয়া বিশাল টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে নড়বড়ে শুরু হলো বাংলাদেশের। দুই ওপেনার তামিম-সৌম্য উইকেটে থিতু হওয়ার চেষ্টা করছিলেন। কিন্তু প্যাট কামিন্সের করা চতুর্থ ওভারে অজি অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চের সরাসরি থ্রোতে রান আউট হয়ে ফিরেছেন টাইগার ওপেনার সৌম্য সরকার। মূলত তামিম আর সৌম্য’র ভুল বোঝাবুঝিতেই এই সর্বনাশ। ২৩ রান তুলতেই ১ উইকেট নেই বাংলাদেশের।

এর আগে বৃহস্পতিবার (২০ জুন) নটিংহ্যামে টসে জিতে ব্যাটিং বেছে নিয়েছেন অজি অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ। ব্যাটিংয়ে নেমে রানের বন্যা বইয়ে দিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। ডেভিড ওয়ার্নার হাঁকিয়েছেন চলতি বিশ্বকাপে নিজের দ্বিতীয় ও ১৬তম ওয়ানডে সেঞ্চুরি। চার-ছক্কার বন্যা বইয়ে দিয়ে ছাড়িয়ে যান চলতি বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ ইনিংস খেলে জেসন রয়ের গড়া কীর্তি।

ইংলিশ ওপেনারের ১৫৩ ছিল এতদিন সর্বোচ্চ, যা ছাড়িয়ে ডাবল সেঞ্চুরির দিকে ধাবিত হচ্ছিলেন ওয়ার্নার। তবে তার ১৪৪ বলে ১৬৬ রানের ঝড় থামান সৌম্য। ১৪ চার ও ৫ ছক্কায় সাজানো এই ইনিংসটি অবশ্য সাকিব আল হাসানের কীর্তিও ম্লান করে দিয়েছে। চলতি বিশ্বকাপের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক (৪৪৭ রান) এখন অজি ওপেনার।

দুর্দান্ত সেঞ্চুরির পরও ব্যাট হাতে বাংলাদেশের বোলারদের কচুকাটা করছিলেন অজি ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার। তবে ব্যক্তিগত ১৬৬ রানের মাথায় সৌম্য সরকারের বলে রুবেল হোসেনের হাতে ক্যাচ দিয়ে বিদায় নিয়েছেন। কাকতালীয় ব্যাপার হলো, এর আগে অজিদের প্রথম উইকেটও (ফিঞ্চ) তুলে নিয়েছিলেন সৌম্য, আর ক্যাচ নিয়েছিলেন রুবেল।

এর আগে ৪ বাউন্ডারিতে সাজানো নিজের ১১তম ফিফটি তুলে নিয়েছেন উসমান খাজা। ঠিক ৫০ বলে এসেছে তার এই ফিফটি। ফিফটির দেখা পেয়েছিলেন অজি অধিনায়ক ও ওপেনার অ্যারন ফিঞ্চও। অর্থাৎ, অস্ট্রেলিয়ার টপ অর্ডারের প্রথম তিন ব্যাটসম্যান ৫০ ছাড়ানো ইনিংস খেলেছেন। 

৫১ বলে ৫ চার ও ২ ছক্কায় ৫৩ রান করে সৌম্য সরকারের বলে রুবেল হোসেনের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরেছেন ফিঞ্চ। আউট হওয়ার আগে ওয়ার্নারের সঙ্গে তার জুটিতে এসেছে ১২১ রান। এরপর উসমান খাজা আর ওয়ার্নারের জুটিতে আসে ১৯২ রান। ওয়ার্নারের বিদায়ের পর ক্রিজে এসে মাত্র ১০ বলে ৩২ রানের টর্নেডো ইনিংস খেলেন গ্ল্যান ম্যাক্সওয়েল। ২ চার আর ৩ ছক্কায় সাজানোর এই ইনিংসটি শেষ হয় রুবেল হোসেনের রান আউটের শিকার হয়ে। তবে আউট হওয়ার আগে তিন আর খাজা মিলে রুবেলের এক ওভারে নেন ২৫ রান।

ম্যাক্সওয়েল বিদায় নিলেও ক্রিজে বিপদ হয়ে ছিলেন খাজা। সৌম্য সরকারের করা ইনিংসের ৪৭তম ওভারের পঞ্চম বলে অর্থাৎ কিন্তু ম্যাক্সওয়েল বিদায় নেওয়ার ঠিক ২ বল পরেই মুশফিকুর রহিমের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন ৭২ বলে ৮৯ রান করা খাজা। এরপর স্টিভ স্মিথকে লেগ বিফোরের ফাঁদে ফেলে দ্রুত বিদায় করেন মোস্তাফিজুর রহমান।

এক সময় ৩১৩ রানে ২ উইকেট হারানো অস্ট্রেলিয়া ৩৫৪ রান তুলতেই হারায় আরও ৩ উইকেট। বিশেষ করে ৩৫২ রানে ম্যাক্সওয়েলের বিদায়ের পর মাত্র ২ রান যোগ করতেই আরও ২ উইকেট হারায় পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। তবে শেষ পর্যন্ত মোস্তাফিজের করা শেষ ওভারে ১৩ রান নিয়ে বিশ্বকাপে নিজেদের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড গড়েছে অজিরা। ২০১৫ বিশ্বকাপে আফগানদের বিপক্ষে ৪১৭ রান বিশ্বকাপে তাদের সেরা স্কোর, যা আবার বিশ্বকাপ ইতিহাসেও সর্বোচ্চ।

বল হাতে টাইগার বোলারদের মধ্যে সেরা বোলিং করেছেন সৌম্য সরকার। ৮ ওভারে ৫৮ রানে ৩ উইকেট নিয়েছেন এই পার্ট-টাইম বোলার। ১ উইকেট ঝুলিতে পুরলেও ৯ ওভারে ৬৯ রান খরচ করেছেন মোস্তাফিজুর রহমান। 

বাংলাদেশ সময়: ২০৩৫ ঘণ্টা, জুন ২০, ২০১৯
এমএইচএম

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯ CWC19
মৌলভীবাজারে উদ্ধার বিপন্ন ‘সন্ধি কাছিম’
বালিশকাণ্ড: ৩৬ কোটি ৪০ লাখ টাকার অনিয়মের তথ্য
বিয়ের ৭ দিনের মাথায় তরুণীর মরদেহ উদ্ধার, ভগ্নিপতি আটক
‘ছুরি নিয়ে আসামি কীভাবে এজলাসে ঢোকে?’
বন্যার পানিতে ভেসে উঠলো নিখোঁজ শিশুর মরদেহ


পশ্চিম রামপুরায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ২ শ্রমিকের মৃত্যু
চাঁদ অভিমুখে মানুষের যাত্রা
ক্রসিংয়ে বিয়ের গাড়িতে ট্রেনের ধাক্কা, নিহত বেড়ে ১০
ইয়াবা মামলার ৩ আসামির জামিন বাতিল, গ্রেপ্তারের নির্দেশ
কোনো বিশৃঙ্খলা সহ্য করা হবে না: তথ্যমন্ত্রী