আফগানদের পার্থক্যটা বুঝিয়ে দিলো ইংল্যান্ড

ওয়ার্ল্ড কাপ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

আফগানদের পার্থক্যটা বুঝিয়ে দিলো ইংল্যান্ড

walton

বিশ্বকাপ ক্রিকেটে নিজেদের আধিপত্য ধরে রেখেছে ফেভারিট স্বাগতিক ইংল্যান্ড। আফগানিস্তানকে ১৫০ রানের বিশাল ব্যবধানে হারিয়ে ইংল্যান্ডে তাদের চতুর্থ জয় তুলে নিয়েছে। এই জয়ে অস্ট্রেলিয়াকে সরিয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে উঠে এসেছে ইংলিশরা।

এদিকে টানা পঞ্চম পরাজয়ে সেমিফাইনালের আশা প্রায় শেষ হয়ে গেলো আফগানিস্তানের।

এই ম্যাচে ৯ ওভারে ১১০ দিয়ে বিশ্বকাপ ইতিহাসে সবচেয়ে খরুচে বোলিং রেকর্ড গড়েছেন আফগান বোলার রশিদ খান।

অন্যদিকে ওয়ানডেতে এক ইনিংসে সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত ছয়ের রেকর্ড গড়েছেন ইংলিশ অধিনায়ক ইয়ন মরগান।

ওল্ড ট্রাফোর্ডে টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে মরগানের রেকর্ড গড়া সেঞ্চুরিতে ভর করে ৬ উইকেটে ৩৯৭ রানের বিশাল সংগ্রহ দাঁড় করায় স্বাগতিক দল। জবাবে ব্যাট করতে ৮ উইকেটে ২৪৭ রানে থেমে যায় আফগানিস্তানের ইনিংস।

৩৯৮ রানের পাহাড়সম টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই নূর আলীর উইকেটে হারায় আফগানরা। দ্বিতীয় উইকেটে ৪৮ রান যোগ করেন গুলবাদিন নাঈব ও রহমত শাহ। নাঈব ৩৭ রান করে মার্ক উডের শিকারে পরিণত হন।

এরপর তৃতীয় উইকেট জুটিতে আরও ৫২ রান যোগ করেন রহমত শাহ ও হাশমত উল্লাহ শহীদি। ৪৬ রান করে রহমত শাহ আদিল রশিদের বলে বেয়াস্টোর হাতে ধরা পড়েন।

চতুর্থ উইকেটেও শক্ত প্রতিরোধ গড়েন হাশমতউল্লাহ ও আসগর আফগান। ৯৪ রান যোগ করেন তারা। তবে রান তোলার গতি কম থাকায় ম্যাচ থেকে আগেই ছিটতে যায় আফগানিস্তান। আজগর ৪৪ রান করে আদিল রশিদের দ্বিতীয় শিকারে পরিণত হন।

এরপর আর কোর আফগান ব্যাটসম্যান রানের দেখা পাননি। হাশমতউল্লাহ ৭৬ রান করে বিদায় নেন।ইংল্যান্ডের জোফরা আর্চার ও রশিদ ৩টি এবং মার্ক উড ২টি উইকেট নেন।

এর আগে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে দলীয় ৪৪ রানে ভিন্সের উইকেট হারায় ইংল্যান্ড। দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে বেয়ারস্টোকে সঙ্গে নিয়ে ১২০ রান যোগ করেন রুট। ব্যক্তিগত ৯০ রান করে গুলবাদিন নাঈবের বলে প্যাভিলিয়নে ফেরত যান তিনি।

এরপর তৃতীয় উইকেটে আরও ১৮৯ রান যোগ করেন রুট ও অধিনায়ক ইয়ন মরগান। ৫৭ বলে তুলে নেন বিশ্বকাপের চতুর্থ দ্রুততম সেঞ্চুরি। সেই সাথে ১৭টি ছক্কা মেরে ওয়ানডে ক্রিকেটে এক ইনিংসে সর্বোচ্চ ছয় মারার রেকর্ডটিও নিজের করে নেন ইয়ন মরগান।

অন্যদিকে অর্ধশতক তুলে নেন রুট। ৮৮ রান করে গুলবাদিন নাঈবের দ্বিতীয় শিকারে পরিণত হন তিনি। একই সঙ্গে ভাঙে ১৮৯ রানের তৃতীয় উইকেট জুটি।

রুটের বিদায়ের পর বিদায় নেন মর্গ্যান। গুলবাদিন নাঈবের বলে রহমত শাহ’র হাতে ধরা পড়ার আগে খেলেন ৭১ বলে ১৪৮ রানের দুর্দান্ত এক ইনিংস। স্কোরবোর্ডে রান তখন সাড়ে তিনশ পেরিয়েছে।

শেষদিকে মঈন আলীর ৯ বলে ৩১ রানের ঝড়ো ইনিংসের কল্যাণে ৬ উইকেটে ৩৯৭ রানের বিশাল সংগ্রহ দাঁড় করায় ইংল্যান্ড। আফগানিস্তানের গুলবাদিন নাঈব ও দৌলত জাদরান ৩টি করে উইকেট নেন।

বাংলাদেশ সময়: ০০০৭ ঘণ্টা, জুন ১৮, ২০১৯
আরএআর/এএটি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: CWC19
নয়নার হাত ধরে কলকাতা পাচ্ছে বাংলাদেশের স্বাদ
‘মোবাইল ছিনতাইয়ের জেরে’ রিফাত খুন!
রিইমাজিং নেটওয়ার্কিং ও ডেটা সেন্টারস সামিট অনুষ্ঠিত
বাংলাদেশি পাসপোর্টে বিদেশে রোহিঙ্গা পাচার
রিফাত হত্যা: রাব্বি আকনের স্বীকারোক্তি


জিম্বাবুয়ে ক্রিকেটের সদস্য পদ স্থগিত করলো আইসিসি
ইঁদুরের উপদ্রবে বাঁধ ঝুঁকিতে!
টাঙ্গাইলে বাঁধ ভেঙে তলিয়ে যাচ্ছে বাড়ি-ঘর
একুশে পদকের জন্য মনোনয়ন আহ্বান
হুমায়ূন আহমেদের প্রয়াণ
ইতিহাসের এই দিনে

হুমায়ূন আহমেদের প্রয়াণ