ছাত্রদের সংখ্যা বৃদ্ধিতে ভূমিকা পালন করছে সহপাঠিরা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

রতন লাল নাথ

আগরতলা: স্কুলের শিক্ষক-শিক্ষিকা ও অভিভাবকদের দ্বারা সম্ভব হয়নি তা ছাত্রছাত্রীরা সম্ভব করে দেখাচ্ছে। স্কুলে ছাত্রছাত্রীদের উপস্থিতির হার বৃদ্ধির জন্য সরকার নানা সময় বিভিন্ন কর্মসূচী হাতে নিয়েছে কিন্তু তারপরও উপস্থিতির হার আশা ব্যাঞ্জক হচ্ছিলো না। তাই স্কুলে ছাত্রছাত্রীদের উপস্থিত করাতে সহপাঠিদের ওপর দায়িত্ব দেন ত্রিপুরা রাজ্যে শিক্ষা দফতর'র মন্ত্রী রতন লাল নাথ।

তার এই পরিকল্পনা বাস্তবে কাজ দিয়েছে। এই পদ্ধতি অনুসরনের পর সম্প্রতি রাজ্যের বিভিন্ন স্কুলে ছাত্রছাত্রীদের উপস্থিতির হার ব্যাপক ভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। বৃহস্পতিবার(২ আগষ্ট) সন্ধ্যায় মহাকরণের প্রেস কনফারেন্স হলে সাংবাদিকদেরকে একথা জানা শিক্ষা দফতর'র মন্ত্রী রতন লাল নাথ। এমন কি এখন অনেক স্কুলে ছাত্রছাত্রীদের উপস্থিতির হার প্রায় ১০০শতাংশ। পাশাপাশি শিক্ষক-শিক্ষিকারাও প্রাণখুলে ছাত্রছাত্রীদের শিক্ষা দিচ্ছে। যা আগে কোনো এক অজ্ঞাত কারণে তারা তা করেননি। 

এখন শিক্ষকরা বুঝতে পেরেছেন যে রাজ্য সরকার'র প্রধান উদ্দ্যেশ হচ্ছে ছাত্রছাত্রীদের প্রকৃত শিক্ষিত করে তোলা ও রাজ্যের বৃহৎ অংশ'র সাধারণ মানুষের উন্নয়নের জন্য সরকার কাজ করছে। শুধুমাত্র শিক্ষক শিক্ষিকাদের কে শুধু পড়ানোর জন্যই দফতর বলছে এমনটা নয়। তিনি নিজে বিভিন্ন স্কুলে গিয়ে ছাত্রছাত্রীদের সমস্যার পাশাপাশি শিক্ষকদের সমস্যার বিষয়েও বিভিন্ন স্কুলে স্কুলে নিজে গিয়ে খোঁজ নিচ্ছেন বলেও জানান মন্ত্রী।

বাংলাদেশ সময়: ১৩৫০ ঘন্টা, ২ আগস্ট, ২০১৮
এসসিএন/এমএমএস

ঈদযাত্রার দ্বিতীয় দিনেও ট্রেনের শিডিউল বিপর্যয়
‘মোরা তো কফাল ঠিহা মাছ পাই’
খাগড়াছড়িতে ৬ জনকে গুলি করে হত্যা
ইতিহাস লেখার অপেক্ষায় মারিয়া-তহুরারা
ঘরে ফিরতে কমলাপুরে জনসমুদ্র
বিনিয়োগকারীদের পুঁজি বেড়েছে ৬ হাজার কোটি টাকা
কুষ্টিয়ার মিরপুরে যুবকের মরদেহ উদ্ধার
গাবতলী পশুর হাটে জমে ওঠেনি বেচাকেনা
শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ী নৌরুটে পারের অপেক্ষায় ২০০ গাড়ি
হারিয়ে যাচ্ছে ‘হলদে-পা হরিয়াল’