ত্রিপুরায় স্ত্রী হত্যা, স্বামীর আত্মসমর্পণ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: প্রতীকী

আগরতলা: ভারতের ত্রিপুরার সিপাহীজলা জেলায় এক গৃহবধূকে হত্যা করেছেন তারই স্বামী পঙ্কজ বর্ধন। এ ঘটনায় পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণও করেছেন তিনি।

বুধবার (১৩ জুন) স্থানীয় সময় সকাল ১০টায় জেলার খামারহাটি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।  

স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, সকালে গৃহবধূ অনিমা বর্ধন তার ছেলেকে স্কুলের গাড়িতে তুলে দেওয়ার জন্য রাস্তার পাশে গিয়ে দাঁড়ান। এ সময় পঙ্কজ তার পিছু নেন। পরে স্কুল গাড়ির চালক সুমন আসতেই পঙ্কজ তার সঙ্গে ঝগড়া শুরু করেন। আর এতে স্বামীকে বাধা দেওয়ার চেষ্টা করলে অনিমাকে দা দিয়ে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে আহত করেন পঙ্কজ। এরপর স্থানীয়রা অনিমাকে মধুপুর প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে যায়। সেখানে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

মধুপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পলাশ দত্ত বাংলানিউজকে বলেন, ঘটনাটি পুলিশ তদন্ত শুরু করছে। ঘটনার পরই পঙ্কজ মধুপুর থানায় আত্মসমর্পণ করেছেন। এই মুহুর্তে পুলিশের পক্ষে এর বেশি কিছু বলা সম্ভব নয়।

বাংলাদেশ সময় ঘন্টা: ১৭৪৮ ঘণ্টা, জুন ১৩, ২০১৮
এসসিএন/এএইচ/টিএ

শেরে বাংলানগরে নয়, সচিবালয়েই হচ্ছে ‘টুইন টাওয়ার’
ভূমিকম্পে বেরিয়ে এলো প্রাচীন মন্দির
টাঙ্গাইলে মাইক্রোবাসের সিলিন্ডার বিস্ফোরণে নিহত ৩
যেমন ছিল ‘ওৎজি’ মানবের খাবার
বদরগঞ্জের শোলার খোঁজে দূর-দূরান্তের মালিরা
যে শহরে কোটি টাকা আয় করেও গরিব!
তদবিরে বাড়তি চাল বরাদ্দ মিললেও মেলেনি বরাদ্দপত্র
বছরে ৫০ কোটি মেট্রিকটন ক্ষতিকর পোকামাকড় খায় পাখি
যেভাবে চালু করবেন জিমেইলের স্মার্ট কম্পোজ
জয়পুরহাটে ২৫ কোটি টাকা ব্যায়ে বটতলী সেতুর নির্মাণ শুরু