ক্ষুধার্তদের পাশে ‘ত্রিপুরা রুটি ব্যাংক’

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

আগরতলায় ক্ষুধার্তদের পাশে দাঁড়িয়েছে ‘ত্রিপুরা রুটি ব্যাংক’ নামে একটি সংস্থা। ছবি: বাংলানিউজ

আগরতলা: আগরতলায় ক্ষুধার্তদের পাশে দাঁড়িয়েছে ‘ত্রিপুরা রুটি ব্যাংক’ নামে একটি সংস্থা। মনের তাড়না থেকে আট তরুণ-তরুণী এ সংস্থাটি তৈরি করেছেন।

মঙ্গলবার (২৯ মে) তাদের এ সংস্থার যাত্রা শুরু করেছে বলে সোমবার (০৪ জুন) বাংলানিউজকে জানিয়েছেন সংস্থাটির সম্পাদক দেবাশিষ চক্রবর্তী।

তিনি জানান, তারা আট সদস্যের পাশাপাশি রয়েছেন বহু স্বেচ্ছাসেবক। তারা মূলত নিজেদের পকেট থেকে টাকা দিয়ে এবং কেউ স্বেচ্ছায় তাদের দিলে এ টাকা থেকে প্রতিদিন রাতে রাজধানী আগরতলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে ক্ষধার্তদের মধ্যে খাবার বিলি করেন। এ ক’দিনে তারা প্রচুর সাড়া পেয়েছেন।

আবার কারও বাড়িতে অনুষ্ঠান বা নিজেদের ঘরের রান্না করা বাড়তি ভালো খাবার দিতে চাইলে সে খাবারও সংগ্রহ করে দুস্থ মানুষের মধ্যে বিলিয়ে দেন তারা। তবে এক্ষেত্রে খাবারের গুণগত মান ঠিক আছে কি না তা পরীক্ষা করার জন্য তারা নিজেরা আগে খেয়ে পরীক্ষা করে দেখেন বলে যোগ করেন তিনি।

দেবাশিষ চক্রবর্তী জানান, এখন ত্রিপুরা সরকারের সঙ্গে কথা বলে আগরতলার কোনও একটি জায়গায় স্টল খোলা তাদের পরবর্তী লক্ষ্য। যেখান থেকে নির্দিষ্ট সময় পুষ্টিযুক্ত খাবার পরিবেশন করা হবে।

তিনি আরও জানান, আগরতলার পাশাপাশি রাজ্যসহ ভারতের বিভিন্ন জায়গায় এ সংস্থার শাখা ছড়িয়ে দিতে চান তারা।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৪০ ঘণ্টা, জুন ০৪, ২০১৮
এসসিএন/আরবি/

শেরে বাংলানগরে নয়, সচিবালয়েই হচ্ছে ‘টুইন টাওয়ার’
ভূমিকম্পে বেরিয়ে এলো প্রাচীন মন্দির
টাঙ্গাইলে মাইক্রোবাসের সিলিন্ডার বিস্ফোরণে নিহত ৩
যেমন ছিল ‘ওৎজি’ মানবের খাবার
বদরগঞ্জের শোলার খোঁজে দূর-দূরান্তের মালিরা
যে শহরে কোটি টাকা আয় করেও গরিব!
তদবিরে বাড়তি চাল বরাদ্দ মিললেও মেলেনি বরাদ্দপত্র
বছরে ৫০ কোটি মেট্রিকটন ক্ষতিকর পোকামাকড় খায় পাখি
যেভাবে চালু করবেন জিমেইলের স্মার্ট কম্পোজ
জয়পুরহাটে ২৫ কোটি টাকা ব্যায়ে বটতলী সেতুর নির্মাণ শুরু