দোহা রুটে উড়লো ইউএস-বাংলার ফ্লাইট 

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ঢাকা: নির্ধারিত সময়ে ফ্লাইট পরিচালনার ধারাবাহিকতায় এবার নতুন আন্তর্জাতিক রুটে ফ্লাইট উড়ালো ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স। রোববার (০১ অক্টোবর) মধ্যপ্রাচ্যের অন্যতম গন্তব্য দোহার উদ্দেশে সন্ধ্যা ৬ টায় ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ত্যাগ করে ইউএস-বাংলার উদ্বোধনী ফ্লাইটটি। 

প্রতিষ্ঠানটির ডিজিএম (মার্কেটিং সাপোর্ট অ্যান্ড পিআর) মো. কামরুল ইসলাম জানান, ঢাকা-দোহা রুটের উদ্বোধনী ফ্লাইটে যাত্রী ১৬৪ জন যাত্রী ছিলেন। যাত্রা পথে চট্টগ্রামে অবতরণ করে সেখান থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় সরাসরি দোহার উদ্দেশে ছেড়ে যাবে ফ্লাইটটি। 

প্রাথমিকভাবে সপ্তাহে চারদিন ঢাকা ও চট্টগ্রাম থেকে দোহা রুটে ফ্লাইট চালানো হবে বলে জানান তিনি। 

এদিকে নতুন আন্তর্জাতিক গন্তব্যে ফ্লাইট চালানো উপলক্ষে ঢাকা-দোহা রুটে ওয়ানওয়ের জন্য সর্বনিম্ন ২৪ হাজার ৩৫০ টাকা ভাড়া নির্ধারণ করেছে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স। রিটার্ন টিকিটে ভাড়া পড়বে ৪০ হাজার ২০৩ টাকা। 

এছাড়া চট্টগ্রাম-দোহা রুটে ওয়ানওয়ের জন্য সর্বনিম্ন ২৫ হাজার ৩১৭ টাকা ও রিটার্ন ভাড়া ৪১ হাজার ১৭১ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। ভাড়ায় সব ধরনের ট্যাক্স ও সারচার্জ অন্তর্ভুক্ত। 

প্রাথমিকভাবে সোম, বুধ, শুক্র ও রোববার ঢাকা থেকে সন্ধ্যা ৬ টায় এবং চট্টগ্রাম থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় দোহার উদ্দেশে ছেড়ে কাতারের স্থানীয় সময় রাত সাড়ে ১০টায় পৌঁছাবে ফ্লাইটটি।। 

একই দিন দোহা থেকে স্থানীয় সময় রাত সাড়ে ১১টায় চট্টগ্রাম ও ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে এবং পরদিন সকাল ৮ টায় চট্টগ্রাম ও সকাল ৯টা ২০ মিনিটে ঢাকায় পৌঁছাবে ইউএস-বাংলার ফ্লাইটটি। 

ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের বহরে যুক্ত হওয়া ১৬৪ আসনের বোয়িং ৭৩৭-৮০০ এয়ারক্রাফট দিয়ে এই রুটে ফ্লাইট চালানো হবে। বোয়িং ৭৩৭-৮০০ এয়ারক্রাফটে ৮টি বিজনেস ক্লাস, ১৫৬ টি ইকোনমি ক্লাসের আসন রয়েছে।

আরও পড়ুন>>
** 
১ অক্টোবর থেকে দোহা রুটে ইউএস-বাংলার ফ্লাইট

ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স বর্তমানে অভ্যন্তরীণ রুটে ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, সিলেট, যশোর, সৈয়দপুর, বরিশাল, রাজশাহী রুটে প্রতিদিন ফ্লাইট পরিচালনা করছে। 

গত বছরের ১৫ মে ঢাকা-কাঠমান্ডু রুটে ফ্লাইট পরিচালনার মধ্যেমে আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে যাত্রা শুরু করা প্রতিষ্ঠানটি বর্তমানে ঢাকা থেকে কলকাতা, মাস্কাট, কুয়ালালামপুর, সিঙ্গাপুর, ব্যাংকক রুটে নিয়মিত ফ্লাইট চালাচ্ছে। 

এছাড়া চট্টগ্রাম থেকে কলকাতা ও মাস্কাট রুটে ফ্লাইট পরিচালনা করছে ইউএস-বাংলা। শিগগির আবুধাবী, জেদ্দা, রিয়াদ, দাম্মাম, দুবাই, হংকং, গুয়াংজুহ, দিল্লি, চেন্নাইসহ অন্যান্য রুটেও ফ্লাইট চালানোর পরিকল্পনা রয়েছে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা। 

ইউএস-বাংলা সূত্র বলছে, চলতি বছরের নভেম্বরের মধ্যে আরও দু’টি ড্যাশ ৮-কিউ ৪০০ যুক্ত হচ্ছে প্লেনের বহরে। এছাড়া আগামী বছরের শুরুতে ইউএস-বাংলা এয়ালাইন্সের বহরে যুক্ত হচ্ছে আরও দু’টি বোয়িং ৭৩৭-৮০০ এয়ারক্রাফট। 

২০১৪ সালে যাত্রা করা ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স ৯৮ দশমিক ৭ শতাংশ অনটাইম ফ্লাইট চালিয়ে রেকর্ড করেছে। সপ্তাহে প্রায় ৩০০টির বেশি ফ্লাইট পরিচালনা করে দেশের অন্যতম বেসরকারি সংস্থাটি। 

বাংলাদেশ সময়: ১৯২৫ ঘণ্টা, অক্টোবর ০১, ২০১৭
এমএ/

৩৯৮২ কোটি ব্যয়ে পায়রা বন্দরে প্রথম টার্মিনাল
মৌসুমি বায়ু দুর্বল, বর্ষার বর্ষণ নেই
ফিফার বিশ্বকাপ দলে নেইমার-এমবাপ্পে-হ্যাজার্ড
সিলেটে দুর্ঘটনায় কলেজ ছাত্রের মৃত্যু
সুনামগঞ্জে সাংবাদিকের ওপর দুর্বৃত্তের হামলা
ভোট দিয়ে যাকে খুশি তাকে নির্বাচিত করবেন ভোটাররা
মিরপুরে সেলুন ব্যবসায়ী এসিড দগ্ধ
জাতীয় শোক দিবসের কর্মসূচি ঘোষণা
শুভ জন্মদিন পৃথুলা রশিদ
হরিণাকুণ্ডে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ডাকাত নিহত