দয়া করে আমাকে ভুল বুঝবেন না: সাকিব

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

দয়া করে আমাকে ভুল বুঝবেন না: সাকিব

আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের ক্লাসে ফিরে যাওয়ার অনুরোধ করায় বেশ সমালোচিত হয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের তারকা ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে গতকাল তিনি এমন একটি পোস্ট দেয়ার পর তার নেতিবাচক প্রভাবই পড়ে। পরে সেই পোস্টটি এক পর্যায়ের মুছে দিতে বাধ্য হন তিনি।

আর এবার নতুন করে আরেকটি পোস্ট দিয়েছেন সাকিব। যেখানে তাকে ভুল না বোঝার অনুরোধ করেছেন।

একটি ভিডিও শেয়ার করে তার ক্যাপশনে সাকিব লিখেন, ‘আমার সকল ভক্তদের জানাচ্ছি যে আপনারা হয়তো আমার ব্যাক্ত করা কথায় আমাকে ভুল বুঝছেন। দয়া করে আমাকে ভুল বুঝবেন না, আমারও আপনাদের সবার মতো পরিবার আছে, যাদের নিরাপত্তা আমার কাছেও অনেক বেশি মুল্যবান। আমি আপনাদেরই একজন, আমি সব সময় আপনাদের সাথে ছিলাম, আছি এবং কথা দিচ্ছি ভবিষ্যতেও থাকব। আমি শুধু বলতে চাই যে আপনাদের আন্দোলনকে একটি সঠিক ফলাফলে পৌছে দেয়ার জন্যে আমাদের সরকার কে সুযোগ দেয়া উচিৎ যেন সরকার খুব দ্রুত আপনাদের দাবি বাস্তবায়ন করতে পারে।’

সেই সঙ্গে ভিডিওতে বলা হয়, ‘আসসালামুয়ালাইকুম, আমি প্রথমেই বাংলাদেশের সকল স্টুডেন্টদের ধন্যবাদ জানাতে চাই তাদের এই যুগান্তকারী আন্দোলনের জন্য। আমি তোমাদের এই আন্দোলনের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করছি, তোমাদেরকে আবারও ধন্যবাদ জানাচ্ছি। সেই সাথে আমি এটাও বলতে চাই এটা শুধু বাংলাদেশের স্টুডেন্টদের দাবি হওয়া উচিৎ না। এটা বাংলাদেশের সকল মানুষের দাবি হওয়া উচিৎ। কারণ প্রতি বছর রোড অ্যাকসিডেন্ট অনেক হচ্ছে এবং অনেক প্রাণ ঝরে যাচ্ছে সো এটা আমাদের কারোরই কাম্য নয়। আমার বাচ্চা আছে, আপনারা যারা ভিডিওটি দেখছেন তাদের অনেকেরই বাচ্চা আছে, ফ্যামিলি আছে। আমরা সবাই চাই যে বাচ্চারা নিরাপদে রাস্তায় চলাফেরা করতে পারুক। সো সেই দিক থেকে চিন্তা করলে এই দাবিটা বাংলাদেশের সকল মানুষের হওয়া উচিৎ এবং আমি এ কারণে সকল স্টুডেন্টদের ধন্যবাদ দিতে চাই যে তোমরা আমাদের রাস্তা দেখিয়ে দিয়েছো। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এই বিষয়টি সম্পর্কে খুব ভালোভাবে অবগত আছেন এবং তিনি বেশ কিছু পদক্ষেপ গ্রহন করেছেন এবং করছেন। যেটা হয়তো ইমপ্লিমেন্ট হতে সময় লাগবে। আমাদের উচিৎ হবে সকল স্টুডেন্টদের এখন বোঝানো যে তাদের ক্লাসে ফিরে যেতে, ঠিক মতো পড়াশোনায় আবার মনোনিবেশ করতে। এই দাবি যদি পূরণ না হয় এবং ভবিষ্যতে যদি আমাদের এই আন্দোলন আবার করতে হয়, তোমরা আমাকে তোমাদের পাশে সবসময় পাবে। এই প্রমিজ আমি তোমাদের করছি। আশাকরি তোমরা আমার মেসেজটি বুঝতে পেরেছো। কারণ আমরা সবাই মিলেই পারি বাংলাদেশকে একটি বেটার বাংলাদেশ করতে। ধন্যবাদ সবাইকে।

বিমানবন্দর সড়কে বাসচাপায় দুই শিক্ষার্থী নিহত হওয়ার জের ধরে নিরাপদ সড়কের দাবিতে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা আন্দোলন করেছ। মূলত, নিরাপদ সড়কসহ ৯ দফা দাবি নিয়েই রাস্তায় নামে ছাত্র-ছাত্রীরা। সরকারের পক্ষ থেকে দাবি মানার ঘোষণা দেওয়া হলেও মানছে না শিক্ষার্থীরা। তারা চাইছে দাবিগুলোর বাস্তবায়ন। আন্দোলন শুরু হওয়ার তিনদিন পর সরকারসহ বিভিন্ন মহল থেকে শিক্ষার্থীদের ক্লাসে ফিরে যাওয়ার আহবান জানিয়ে আসছে। কিন্তু দাবি আদায় না করে ক্লাসে ফিরবে না বলছে শিক্ষার্থীরা। তবে জাতীয় ক্রিকেট দলের টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক সাকিব আল হাসানও শিক্ষার্থীদের ঘরে ফেরার আহবান জানান।

শুক্রবার (৩ আগস্ট) সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নিজের ভেরিফায়েড পেজে এক পোস্টে এ আহবান জানান। মুছে দেয়া সেই পোস্টে তিনি লিখেন, আমি এখন ফ্লোরিডায় আছি। আজ এক গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্তে আমার তরুণ ফ্যানদের উদ্দেশ্যে কিছু বলতে চাই। গত ২৯ জুলাই রাজধানীর বিমানবন্দর সড়কে বাসচাপায় দুই স্কুল শিক্ষার্থী দিয়া ও আবদুল করিম নিহত হওয়ার ঘটনায় আমি প্রচণ্ড মর্মাহত ছিলাম। কিন্তু যখন দেখলাম তার সহপাঠী থেকে শুরু করে সারাদেশের ছাত্র-ছাত্রীরা দোষীদের শাস্তি দাবি ও নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলন শুরু করেছে। তখন গর্ববোধ করেছি বাংলাদেশের একজন নাগরিক হিসেবে। দেশে থাকলে আমিই তোমাদের অটোগ্রাফ নেয়ার জন্য চলে আসতাম।’

তোমাদের সাধুবাদ জানিয়ে বলতে চাই, তোমাদের দাবি কার্যকর হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী নিহত দু’জনের পরিবারকে আর্থিক সহায়তা ছাড়াও নিরাপদ সড়ক আইন করতে আন্তরিকভাবে কাজ করছেন। ইতোমধ্যে অভিযুক্ত পরিবহনের রুট পারমিট বাতিলসহ পাঁচ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ অবস্থায় তোমাদের কাছে বিনীত অনুরোধ করবো, ক্লাসে ফিরে পড়াশোনায় মনোনিবেশ করতে। তোমরা যা করেছ তা এদেশে ইতিহাস হয়ে থাকবে।’

‘এ অর্জন সফল হবে তোমাদের পড়ার টেবিলে ফিরে যাওয়ার মাধ্যমে। তোমাদের দাবি পূরণ হয়েছে এবং হচ্ছে। ব‍্যত‍্যয় ঘটলে আমাকে পাবে তোমাদের সাথে।’

এর আগে গত ২৯ জুলাই জাবালে নূর পরিবহনের দু’টি বাসের পাল্লাপাল্লিতে বিমানবন্দর সড়কে রাস্তার পাশে দাঁড়ানো একদল শিক্ষার্থীর উপর উঠে যায়। তাতে শহীদ রমিজউদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দুই শিক্ষার্থী নিহত হলে ক্ষোভে ফেটে পড়া তাদের সহপাঠীরা সড়ক অবরোধ করে বেশ কয়েকটি বাস ভাঙচুর করে। পরে এ ঘটনায় গোটা দেশ উত্তাল হয়।

এ ঘটনায় জাবালে নূর পরিবহনের মালিক, চালক ও হেলপারকে আটক করেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা।

বাংলাদেশ সময়: ১১৫৭ ঘণ্টা, আগস্ট ০৪, ২০১৮
এমএমএস

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: ক্রিকেট সাকিব আল হাসান
স্ত্রীর ধাক্কায় নদীতে তলিয়ে যাওয়া স্বামীর মরদেহ উদ্ধার
পেশাজীবীদের যারা বিএনপি থেকে মনোনয়ন চান
কবি শহীদ কাদরীর জন্ম
ইতিহাসের এই দিনে

কবি শহীদ কাদরীর জন্ম

ঢাকা মেডিকেলে ভর্তি অভিনেত্রী নওশাবা
কটিয়াদীতে কুকুরের কামড়ে আহত ২৬
বঙ্গবন্ধু হত্যার ষড়যন্ত্রকারীদের খুঁজে বের করতে হবে
ডোমারে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু
উদ্ভিদ সূর্যালোকে আকৃষ্ট হয় কেন?
মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক রাজনীতিবিদ ফজলে এলাহী আর নেই
দেড় লাখ টাকা মুক্তিপণে ফেরত অপহৃত ইউপি সদস্য