বাফুফের সাধারণ সম্পাদক সোহাগের অপসারণ দাবি

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

সংবাদ সম্মেলনে হাসানুজ্জামান খান বাবলু। ছবি: শাকিল আহমেদ

ঢাকা: বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) সাধারণ সম্পাদক আবু নাঈম সোহাগকে অবিলম্বে অপসারণের দাবি জানিয়েছেন প্রাক্তন জাতীয় দলের ফুটবলাররা।

শনিবার (২৮ জুলাই) দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে এক সংবাদ সম্মেলনে তারা এ দাবি জানান।

সংবাদ সম্মেলনে সাবেক জাতীয় দলের ফুটবলারদের পক্ষে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন হাসানুজ্জামান খান বাবলু।

বাবলু বলেন, বাফুফের বেতনভুক্ত সাবেক সাধারণ সম্পাদক আবু নাঈম সোহাগ যার পুনর্নিয়োগ এখনো চূড়ান্ত হয়নি। আইনগতভাবে তিনি এখন অবৈধ। তারপরও বাফুফে তাকে আগের পদে বহাল রেখে সব কাজ করাচ্ছে। যা সম্পন্ন অবৈধ। বিশ্বকাপের পূর্বে বাফুফের বেতনভোগী এ সাধারণ সম্পাদক সোহাগ বাফুফের তিন বারের নির্বাচিত সাবেক সহ-সভাপতি জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কারপ্রাপ্ত ফুটবলার, যিনি সারাক্ষণ দেশের তৃণমূল ফুটবলের উন্নয়নে কাজ করছেন। ফুটবলের নিবেদিত প্রাণ ফুটবলার বাদল রায়ের স্ত্রীকে টেলিফোনে হুমকি দেন ও অসৌজন্যমূলক আচরণ করেন সোহাগ। বাদল রায়কে বাফুফেতে আসতে নিষেধ করেন। অথচ এ বাদল রায় যখন অসুস্থ ছিলেন তখন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরে পাঠানোর ব্যবস্থা করেছিলেন।

তিনি বলেন, বাফুফের সাধারণ সম্পাদকের ওই আচরণে উদ্বিগ্ন হয়ে বাদল রায়ের স্ত্রী বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিনকে ফোনে ঘটনাটি অবগত করলে জবাবে সালাউদ্দিন বলেন বাদল রায়ের বিরুদ্ধে মামলা করা হবে বলে উল্টো হুমকি দেন। এমন পরিস্থিতিতে বাদল রায়ের স্ত্রী আতঙ্কিত হয়ে পরিবারের নিরাপত্তা চেয়ে রাজধানীর ওয়ারি থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন। বাফুফের সব প্রশিক্ষককে নিজেদের সোনালী অতীত ক্লাবে না আসার জন্য বলা হয়েছে। এ ধরণের আদেশ কীভাবে দেওয়া হয়। যা দেশের শাসনতন্ত্র ও মানবাধিকার লঙ্ঘন। বাফুফের এ ধরণের স্বেচ্ছাচারিতা স্বৈরাশাষককেও হার মানায়। এসব ঘটনা প্রমাণ করে গত ১০ বছরে দেশ-বিদেশ সফরে স্বেচ্ছাচারিতা হয়েছে। সেই সঙ্গে ফিফা ও এএফসি থেকে প্রাপ্ত অর্থের প্রতিবেদন কখনও প্রকাশ্যে বাফুফে প্রকাশ করে না। আমরা সাবেক ফুটবলার বাদল রায়কে টেলিফোনে হুমকির বিষয়ে অপমানিত বোধ করছি। হুমকিদাতা সোহাগকে অতিদ্রুত বহিষ্কার করার দাবি জানাচ্ছি। এজন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। সেই সঙ্গে দেশের ফুটবলকে ধ্বংসের হাত থেকে রক্ষার আবেদন করছি।

সংবাদ সম্মেলনে স্বাধীনবাংলা ফুটবল দলের অধিনায়ক জাকারিয়া পিন্টু অত্যন্ত ক্ষোভের সঙ্গে বলেন, এ ঘটনায় আমরা মর্মাহত। দুঃখ লাগে আমি বাফুফের প্রেসিডেন্টকে একটি চিঠি দিয়ে ছিলাম। তিনি আমার চিঠির কোনো জবাব দেননি। 
একজন বেতনভূক্ত কর্মচারী কীভাবে বাদল রায়কে হুমকি দিতে পারেন। বাদল রায়কে অপমান করা সব ফুটবলারকে অপমান করা একই কথা। আমরা তার অপসারণের দাবি করছি।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন প্রতাপ সংকর হাজরা, গোলাম সরওয়ার টিপু, শেখ মো. আসলাম, কায়সার হামিদ, আসরাফ উদ্দিন চুন্নু, ইমতিয়াজ সুলতান জনি, আবুল হোসেন প্রমুখ।
 
বাংলাদেশ সময়: ২১৫১ ঘণ্টা, জুলাই ২৮, ২০১৮
এমএইচ/আরআইএস/

রাজশাহীতে ইয়াবা-গাঁজাসহ দুই মাদক বিক্রেতা আটক
১৫ আগস্টে সুনির্দিষ্ট কোন হুমকি নেই
আট ব্যাংকের নিয়োগ পরীক্ষা ৩১ আগস্ট
সড়ক দুর্ঘটনায় সকালেই ঝরে গেলো ৮ প্রাণ
রাজধানীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ১, আহত ২
উপস্থাপক মাওলানা ফারুকী হত্যার প্রতিবেদন ৩ অক্টোবর
সুস্থ হয়ে ওঠা রোনালদো বাড়ি ফিরছেন
ঢাকার মানহানির এক মামলায় হাইকোর্টে খালেদার জামিন
বসুন্ধরা গ্রুপে নিয়োগ
ফটিকছড়িতে সুচিন্তার জঙ্গিবাদবিরোধী সমাবেশ