অপরাজেয় থাকা হলো না বার্সার

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

লেভান্তের বিপক্ষে পরাজয়ে হতাশ ইনিয়েস্তা-কুতিনহো

প্রতিপক্ষ যখন লেভান্তে, সবাই ধরেই নিয়েছিলো চলতি মৌসুমে অপরাজিত থেকেই লা লিগা অভিযান শেষ করবে বার্সেলোনা। কিন্তু প্রায় অর্ধশত বছর আগে যে দলটি প্রথম বার্সাকে হারিয়েছিলো, সেই লেভান্তে কাল যেন পণ করেই মাঠে নেমেছিলো দ্বিতীয়বারের মতো কাতালান জায়ান্টদের পরাস্ত করবেই।

ফলাফল লা লিগায় ‘ইনভিনসিবল’ বা অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হওয়া হলো না কাতালান জায়ান্টদের। লা লিগার মৌসুম শেষের ম্যাচে লেভান্তের কাছে ৫-৪ গোলে হেরে গেছে মেসিবিহীন বার্সা।

রোববার রাতে প্রতিপক্ষ পয়েন্ট টেবিলের ১৬ নম্বর দল লেভান্তে বলেই কিনা দলের প্রাণভোমরা মেসিকে ছাড়াই মাঠে নামে বার্সা। তাছাড়া শিরোপা তো আগেই নিশ্চিত। কিন্তু অপরাজিত থেকে লা লিগা শেষ করার মিশন তো ছিল। সেই মিশনের ইতিটা মোটেই সুখকর হলো না। লেভান্তের মাঠ থেকে হতাশা বয়ে নিয়ে ফিরতে হলো ইনিয়েস্তাদের। 

বার্সা কোচ আরনেস্তো ভালভার্দে হয়তো ভুলেই গিয়েছিলেন যে, এই লেভান্তে গত ৬ ম্যাচের ৫ টিতেই জয়ী হয়েছে। আর তাই মেসিকে ছাড়াই মাঠে নামার খেসারত তাকে হেরেই দিতে হলো।

ম্যাচের মাত্র ৯ মিনিটের মাথায় বার্সা রক্ষণকে স্তব্ধ করে দিয়ে লেভান্তে গোল উদ্বোধন করে। মোরালেসের ক্রস থেকে পুরো ম্যাচেরই নায়ক ইমানুয়েল বোয়েটাং করেন ম্যাচের প্রথম গোল। গোল খেয়ে পাল্টা আক্রমণ দূরের কথা প্রতিপক্ষের ডি বক্সে আক্রমণ শানাতেই ব্যর্থ হচ্ছিলেন সুয়ারেজরা।

অন্যদিকে একের পর এক আক্রমণে বার্সা রক্ষণকে কাঁপিয়ে দিচ্ছিলেন বোয়েটাংরা। ৩০ মিনিটে বোয়েটাং আবারও বার্সার জালে দুর্দান্ত শটে নিজের দ্বিতীয় গোল করেন। প্রথমার্ধের ৩৮ মিনিটে সুয়ারেজের পাস থেকে বুলেটগতির শটে ব্যবধান কমান ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড কুতিনহো (২-১)।

দ্বিতীয়ার্ধে খেলার গতি আরও বেড়ে যায়। উভয় দলই গোল পেতে মরিয়া চেষ্টা করতে থাকে। কুতিনহোর গোলের পর যারা নড়েচড়ে বসেছিলেন তাদের জন্য আরও একটা চমক নিয়ে হাজির হন লেভান্তের বার্ধি। দ্বিতীয়ার্ধের খেলা কেবলই শুরু হয়েছে তখন। ৪৬ মিনিটে করা তার গোলের পর ৪৯ মিনিটে নিজের হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেন বোয়েটাং (৪-১)। গোল উৎসবে নিজের নাম দ্বিতীয়বারের মতো যুক্ত করেন লেভান্তের বার্ধি। ৫৬ মিনিটে করা তার গোলে ৫-১ ব্যবধানে পিছিয়ে পড়ে বার্সা।

খেলার ফলাফল নিশ্চিত হয়ে গেছে ভেবে যারা টেলিভিশনের পর্দা থেকে চোখ ফিরিয়ে নিয়েছিলেন তাদের জন্য একরাশ চমক নিয়ে অপেক্ষা করছিলো। ম্যাচের ৫৯ মিনিটে নিজের দ্বিতীয় গোল করেন বার্সার কুতিনহো (৫-২)। ম্যাচে ফিরতে মরিয়া বার্সা পাঁচ মিনিট পর আবারও গোল পায়। এবার ২০ গজ দূর থেকে গোল করে নিজের হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেন কুতিনহো (৫-৩)।

বার্সার হয়ে চতুর্থ গোল আসে পুরো ম্যাচে নিষ্প্রভ লুইস সুয়ারেজের পা থেকে। শেষ বাঁশি বাজার ২০ মিনিট আগে লেভান্তের ডি বক্সে ফাউলের শিকার হন বুসকেটস। পেনাল্টি পায় বার্সা। আর তা থেকে গোল তুলে নেন সুয়ারেজ (৫-৪)। ম্যাচের আরও খানিকটা সময় থাকায় অন্তত ড্র করার সুযোগ তো ছিলই বার্সার হাতে। কিন্তু লেভান্তের আঁটোসাঁটো রক্ষণ আর কোনো গোল হজম করবে না বলে পণ করেই খেলেছে বাকি সময়।

মৌসুমের শেষ ম্যাচে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়লেই লা লিগার ইতিহাসে প্রথমবারের মতো অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হতে পারতো বার্সা। কিন্তু কোনটাই হলো না। স্কোয়াডে মেসি থাকবেন না সেটা ম্যাচের আগেই ইঙ্গিতে জানিয়ে রেখেছিলেন বার্সা কোচ আরনেস্তো ভালভার্দে।

আগামী বুধবার (১৬ মে) দক্ষিণ আফ্রিকায় মামেলোডি সানডাউন্সের বিপক্ষে এক প্রীতি ম্যাচে অংশ নেবেন বলে তাকে ছাড়াই দল সাজান বার্সা কোচ। কিন্তু তার সিদ্ধান্ত যে এমন বুমেরাং হবে কে জানতো? চলতি মৌসুমে বার্সার দুই শিরোপা জয়ের আনন্দ অনেকটাই ম্লান হয়ে গেলো গতরাতের হারে।

বাংলাদেশ সময়: ১২০২ ঘণ্টা, ১৪ মে, ২০১৮
এমএইচএম/এমজেএফ

মুক্তামনি আর নেই
দুই প্রজাতির মিষ্টি বাঙ্গি উদ্ভাবনে অভাবনীয় সাফল্য
দু’দেশের ঐতিহাসিক বন্ধন-মৈত্রীর প্রতীক ‘বাংলাদেশ ভবন’
মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার সিন্ডিকেট মুক্ত করার দাবি
বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তিতে শিক্ষার্থীদের সতর্ক করলো ইউজিসি
কিমের সঙ্গে ১২ জুনের বৈঠক নিয়ে ট্রাম্পের সংশয়
ঘুমধুমে পাহাড় ধসের ঘটনায় ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা
কুষ্টিয়ায় বন্দুকযুদ্ধে ২ মাদক ব্যবসায়ী নিহত
কিশোরগঞ্জে ভ্রাম্যমাণ আদালতে ৪ মাদক বিক্রেতার জেল
নির্ধারিত কক্ষপথে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১