জহুরুলের পোলার্ড বন্দনা

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: শোয়েব মিথুন / বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

খুলনা টাইটান্সের বিপক্ষে কাইরন পোলার্ড যখন ব্যাটিংয়ে নেমেছেন তখন রান চাপে পিষ্ট ঢাকা ডায়নামাইটসের বাজে অবস্থা। ৪১ রানে ফিরে গেছে তাদের টপ অর্ডারের ৫ ব্যাটসম্যান। ১৫৭ রানের লক্ষ্যে খেলতে থাকা দলটির আস্কিং রান রেট তখন ১৪’রও উপরে।

ঠিক তখনই ব্যাট হাতে মিরপুরে ঝড় তুললেন ক্যারিবীয় এই ব্যাটিং দানব। প্রতিপক্ষের বোলারদের ওপর দিয়ে স্টিমরোলার চালিয়ে ১৯ বলে তুলে নিলেন ফিফটি। 

তবে দাপুটে ব্যাটিংয়ে অর্ধশতক হাঁকিয়ে বেশিক্ষণ উইকেটে থাকতে পারেননি পোলার্ড। ১৫তম ওভারে শফিউল ইসলামের বলে ফেরেন। ২৪ বলে খেলেন ৫৫ রানের এক বিস্ফোরক ইনিংস। তাতে ছিল ৩টি চার ও ৬টি ছক্কার মার।ছবি: শোয়েব মিথুন / বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কমএমন ইনিংস উপহার দেয়ার পর সতীর্থের প্রশংসা না করে পারলেন না জহুরুল ইসলাম অমি। মঙ্গলবার (১৪ নভেম্বর) ম্যাচ পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে এসে বললেন, ‘মূল কাজ করে দিয়েছে পোলার্ড। তখন রানরেট ছিল (আস্কিং) সাড়ে ১৪। আমাদের জন্য কাজটি খুবই কঠিন। আমরা হয়তো ক্যালকুলেশন করে ৮-৯ করে করতে পারব। পোলার্ডের ইনিংসটিই ম্যাচে আসলে আমাদের এত দূর নিয়ে এসেছে। পরে আমি আর সৈকত ঠিক করেছিলাম শেষ পর্যন্ত খেলব।’

যা ঠিক করেছিলেন তাই করে দেখালেন ঢাকার এই দুই ব্যাটসম্যান। ব্যক্তিগত ৫৫ রানে পোলার্ড ফিরে যাওয়ার পর দলটির জয়ের জন্য প্রয়োজন ছিলো আরও ৪৩ রান। আর হাতে বল ছিল ৩২টি। যা মোসাদ্দেককে সঙ্গী করে এক বল বাকি থাকতেই সংগ্রহ করে ঢাকা ডায়নামাইটসকে বিপিএলের তৃতীয় জয় উপহার দেন জহুরুল ইসলাম।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৪০ ঘণ্টা, ১৪ নভেম্বর ২০১৭
এইচএল/এমআরপি


চিটাগংকে হারালো খুলনা
সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে নাগরিক সমাবেশ শনিবার  
রাজধানীতে সড়ক দুর্ঘটনায় শিশুর মৃত্যু
আসামিদের অবস্থান নিশ্চিতে কাজ করছে পুলিশ
এইচএসবিসি এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ডস পেলো ৫ প্রতিষ্ঠান  

Alexa