ওয়ার্নার, সমর্থক ও মিডিয়া থেকে সতর্ক ব্রড

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি:সংগৃহীত

আর ক’দিন পরই অ্যাশেজের লড়াইয়ে মাঠে নামবে অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ড। তবে মাঠে বল পড়ার আগেই শুরু হয়ে গেছে দু’দলের কথার যুদ্ধ। এরই মাঝে ইংলিশ পেসার স্টুয়ার্ট ব্রড সতীর্থদের সতর্ক করে দিয়েছেন প্রতিপক্ষের ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার সম্পর্কে। 

ব্রডের মতে বর্তমান অস্ট্রেলিয়া দলের সবচেয়ে বিপজ্জনক সদস্য হচ্ছেন ওয়ার্নার। কারণ তার ব্যাট হাতে পারফরম্যান্স করার পাশাপাশি খেপাটে আচার-আচরণে প্রতিপক্ষের আত্মবিশ্বাসে চিড় ধরিয়ে দেওয়ার ক্ষমতা রয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন ব্রড। তবে ওয়ার্নের বিরুদ্ধে মাঠের ভেতর এবং বাইরের চ্যালেঞ্জ নিতে তিনিও প্রস্তুত বলেই দাবি করেছেন ইংল্যান্ডের তারকা পেসার। 

ব্রডের কথায়, ‘অস্ট্রেলিয়া দলে এই মুহূর্তে সবচেয়ে ভয়ঙ্কর ক্রিকেটারটির নাম হল ডেভিড ওয়ার্নার। নতুন বলে ওকে দ্রুত ফেরাতে না পারলে মুশকিল। আর যদি প্রথম লক্ষ্যে আপনি সফলও হন, তবু ওর হাত থেকে আপনি নিস্কৃতি পাবেন না, যদি না মাঠের বাইরেও ওর চোখে চোখ রেখে চলতে পারেন। ওর বেয়াড়া মনোভাবই একটা দলের মনোবল চুরমার করে দিতে পারে। সত্যি বলতে কী, প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে ওয়ার্নার যতটা ঘৃনার পাত্র, সতীর্থ হিসেবে ও আপনার থেকে ততটাই ভালোবাসা আদায় করে নেবে। তবে এবার ওর বিরুদ্ধে মাঠ ও মাঠের বাইরের সেই কঠিন চ্যালেঞ্জ মোকাবিলার জন্য আমি তৈরি হয়েই এসেছি।’

এদিকে বছর তিনেক আগের অস্ট্রেলিয়া সফরের স্মৃতি এখনও ভুলে যাননি ৩১ বছর বয়সী ব্রড। তাই এবার সিরিজ শুরুর আগেই প্রতিপক্ষকে রীতিমতো সতর্ক করে দিয়েছেন যে তারাও প্রস্তুত হয়েই এসেছেন। 

২০১৩-১৪ মৌসুমে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে শেষবার অ্যাশেজ লড়াইয়ে নেমেছিল ইংল্যান্ড। সিরিজের প্রথম টেস্টে অ্যাস্টন অ্যাগারের একটি বল ব্রডের ব্যাটের কানায় লাগার পর স্লিপে তা তালুবন্দি করেন মাইকেল ক্লার্ক। কিন্তু আম্পায়ার আলিম দার আউট দেননি। ব্রডও থেকে যান উইকেটে। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে নিন্দার ঝড় ওঠে অস্ট্রেলিয়ায়। অজিদের সমর্থকদের তোপের মুখেও পড়তে হয় ব্রডকে। 

ডানহাতি এ পেসারকে ‘স্টুয়ার্ট ফ্রড’ বলে উল্লেখ করে অস্ট্রেলিয়ান মিডিয়া। ব্রডের ধারণা এবারও অস্ট্রেলিয়ার সমর্থক ও মিডিয়ার কাছে একই রকম সমালোচনার শিকার হতে পারেন তিনি। তাই আগেভাগেই সেটিকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছেন তিনি, ‘আমি এটার জন্য নিজেকে প্রস্তুত করেছি। আর এ বিষয়ে কেউ আমাকে কিছু না বললে আমি অবাক হব।’

ব্রিসবেনে ২৩ নভেম্বর শুরু হবে অ্যাশেজ সিরিজের প্রথম টেস্ট। তার আগে অবশ্য বেশ আত্মবিশ্বাসী ব্রড। অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে শেষ অ্যাশেজ সিরিজে ঘরের মাঠে ট্রেন্ট ব্রিজ টেস্টে ১৫ রানে ৮ উইকেট নিয়ে ম্যাচে নাটকীয় মোড়ের জন্ম দিয়েছিলেন তিনি। এবারও কী এমন কোনো নাটকীয়তা হবে কিনা? জবাবে ব্রড বলেন, ‘আমি মনে করি, আমার মধ্যে ম্যাচ উইনিং স্পিরিট এখনও আগের মতোই আছে। আগে যা করেছি তা পুনরায় করতে পারব না, এটা আমি মানি না। আমি আবারও ওই রকম একটা স্পেল মেলে ধরার জন্য উন্মুখ হয়ে রয়েছি।’

বাংলাদেশ সময়: ১৩৩৯ ঘণ্টা, ১০ নভেম্বর, ২০১৭
এমএমএস


পিএসসিতে কমেছে প্রতিষ্ঠান-পরীক্ষার্থীর সংখ্যা
১০ম রাউন্ড শেষে শীর্ষে তিন দাবাড়ু
দৌলতপুরে প্রতারণার দায়ে ২ ব্যবসায়ীর জরিমানা
গণপূর্ত অধিদপ্তরে ৩৬৫ প্রকৌশলীর পদ শূন্য
ফ্লাইট সেফটি অফিসার্স কোর্সের সনদ বিতরণ

Alexa