হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে সমতায় ফিরলো তামিমরা

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

পাকিস্তান ও বিশ্ব একাদশের খেলোয়াড়

পাকিস্তান জাতীয় দলের বিপক্ষে তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে জয় তুলে নিয়েছে তামিম-ডু প্লেসিস-তাহির-মিলার-আমলাদের বিশ্ব একাদশ। সমতায় (১-১) ফিরতে বিশ্ব একাদশের টার্গেট ছিল ১৭৫ রান। ১ বল হাতে রেখে জয়ের বন্দরে পৌঁছে ৭ উইকেটের জয় পায় তামিমরা।

প্রথম ম্যাচে সরফরাজ-বাবর-ফখর-মালিকদের নিয়ে সাজানো পাকিস্তানের বিপক্ষে ২০ রানে হেরেছিল বিশ্ব একাদশ। লাহোরের গাদ্ধাফি স্টেডিয়ামে স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৭টা ও বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায় ইন্ডিপেন্ডেন্ট কাপ তিন ম্যাচ সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচে খেলতে নামে দু’দল। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে পাকিস্তান ১৭৪ রান সংগ্রহ করে। জবাবে, ১৯.৫ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে জয়ের বন্দরে পৌঁছে বিশ্ব একাদশ।
 
সিরিজে সমতায় ফেরার ম্যাচে বিশ্ব একাদশ আগে ফিল্ডিং করে। টস জিতে আগে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন পাকিস্তানের দলপতি সরফরাজ আহমেদ। ব্যাটিংয়ে ওপেন করেন ফখর জামান এবং আহমেদ শেহজাদ। ফখর জামান ব্যক্তিগত ২১ রানে বিদায় নেন। তার ১৩ বলের ইনিংসে ছিল চারটি চারের মার। আরেক ওপেনার শেহজাদের ব্যাট থেকে আসে ৪৩ রান। ৩৪ বল মোকাবেলা করে এই ওপেনার ৫টি বাউন্ডারির সাথে একটি ওভার বাউন্ডারিও হাঁকান।
 
তিন নম্বরে নামা আগের ম্যাচের নায়ক বাবর আজম ইনিংসের ১৭তম ওভারে বিদায় নেন। আউট হওয়ার আগে ৩৮ বলে ৫টি চারের সাহায্যে করেন ৪৫ রান। ১৯তম ওভারে বিদায় নেন ১১ বলে ১৫ রান করা ইমাদ ওয়াসিম। একই ওভারে থিসারা পেরেরা ফেরান পাকিস্তানের দলপতি সরফরাজকে। শোয়েব মালিক ২৩ বলে একটি চার আর দুটি ছক্কায় করেন ৩৯ রান। ইনিংসের শেষ বলে আউট হন তিনি।
 
বিশ্ব একাদশের লঙ্কান পেসার পেরেরা দুটি, ওয়েস্ট ইন্ডিজের স্পিনার স্যামুয়েল বদ্রি দুটি, দক্ষিণ আফ্রিকার স্পিনার ইমরান তাহির একটি, পেসার বেন কাটিং একটি করে উইকেট দখল করেন।
 
১৭৫ রানের টার্গেটে বিশ্ব একাদশের ব্যাটিংয়ে ওপেন করেন তামিম-হাশিম আমলা। ব্যক্তিগত ২৩ রানের মাথায় বিদায় নেন তামিম। সোহেল খানের বলে শোয়েব মালিকের তালুবন্দি হওয়ার আগে তার ব্যাট থেকে ১৯ বলে দুটি চার আর একটি ছক্কা আসে। তিন নম্বরে নামা টিম পেইন করেন ১০ রান। দলপতি ফাফ ডু প্লেসিস করেন ২০ রান। তার ১৪ বলের ইনিংসে ছিল দুটি ছক্কার মার। দলীয় ১০৬ রানের মাথায় টপঅর্ডারের তিন ব্যাটসম্যানকে হারানোর পর জুটি গড়েন থিসারা পেরেরা আর ওপেনার হাশিম আমলা।
 
১৯তম ওভারে ২০ রান তুলে নেন তারা। শেষ ওভারে জয়ের জন্য বিশ্ব একাদশের দরকার হয় ১২ রানের। পঞ্চম বলে ছক্কা হাঁকিয়ে পাকিস্তানকে হারান পেরেরা। আমলা-পেরেরা জুটিতে ৩৫ বলে আসে অবিচ্ছিন্ন ৬৯ রান। আমলা ৫৫ বলে ৫টি চার আর দুটি ছক্কায় ৭২ রানে অপরাজিত থাকেন। পেরেরা ১৯ বলে ৫টি ছক্কায় ৪৭ রানে অপরাজিত থাকেন।
 
সিরিজের প্রথম ম্যাচে মঙ্গলবার (১২ সেপ্টেম্বর) বাবর আজমের ৮৬ রানে ভর করে আগে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৯৭ রান তোলে স্বাগতিক পাকিস্তান। জবাবে, ৭ উইকেট হারিয়ে ১৭৭ রানে থামে বিশ্ব একাদশের ইনিংস। আইসিসি তিনটি ম্যাচকেই আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টির মর্যাদা দিয়েছে।
 
বাংলাদেশ সময়: ২৩২৬ ঘণ্টা, ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭
এমআরপি


সেই ভিক্ষুক মাকে দেখতে হাসপাতালে ডিআইজি
গাংনীতে মেয়েকে হত্যার পর মায়ের ‘আত্মহত্যা’
রাজনগরে ট্রাকচাপায় নারী নিহত
‘নীল নকশা সব ধরা পড়ছে’
রোহিঙ্গা গণহত্যার প্রতিবাদে কুষ্টিয়ায় মানববন্ধন

Alexa