Alexa

ভারতের শক্তির জায়গায় আঘাত করবে পাকিস্তান

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: সংগৃহীত

ক্রিকেটে ভারত-পাকিস্তান মুখোমুখি হওয়া মানেই রুদ্ধশ্বাস উত্তেজনা। ম্যাচের আগে কিংবা পড়ে উত্তেজনা ছড়িয়ে যায় পুরো ক্রিকেট-বিশ্বে। এবার চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ফাইনালে মুখোমুখি হতে যাচ্ছে ক্রিকেটের সব সময়ের চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী এই দেশ দুটি।

এই আসরে পাকিস্তানকে ১২৪ রানে হারিয়ে শুরু হয়েছিল ভারতের অভিযান। তবে পরাজয়ের স্বাদ সে-ই শেষ। এরপর ঘুরে দাঁড়িয়ে দক্ষিণ আফ্রিকা, শ্রীলঙ্কা আর স্বাগতিক ইংল্যান্ডকে উড়িয়ে দিয়ে ফাইনালের টিকিট কেটেছে পাকিস্তান। অথচ, ‘বি’ গ্রুপ থেকে যে পাকিস্তান সেমিফাইনালে উঠবে, সেটা টুর্নামেন্ট শুরুর আগে ভাবা কঠিন ছিল।

এখন তাই কোনোভাবেই ভারতকে একতরফা ফেভারিট বলার উপায় নেই।

পাকিস্তানের কোচ মিকি আর্থারও তাই মনে করেন। প্রোটিয়া এই কোচের মতে, ‘আমরা যেভাবে এগিয়ে চলেছি তাতে একক কোনো দলকে এগিয়ে রাখা যাবে না। ভারত শিরোপার অন্যতম ফেভারিট। তবে, আমরা শিরোপা জেতার জন্যই এসেছি। ওদের ওপর চাপ তৈরি করবে আমার বোলাররা। কারণ, ওদের ব্যাটসম্যানরাই দলের শক্তির জায়গা। আর আমার বোলাররা ওখানেই আঘাত করতে চায়। আমাদের একটাই লক্ষ্য ভারতের ব্যাটসম্যানদের বিপক্ষে আক্রমণাত্মক থাকা।’

এবারে ভারত শেষ ১০ ওভার থেকে ১১৮ রান সংগ্রহ করেছে। যেখানে পাকিস্তান করেছে ৮১। শেষ ১০ ওভারে ভারতের বোলিং ইকোনোমি ৫.৭৪। তবে পাকিস্তান ছিল কম খরুচে, তাদের ইকোনোমি ৫.৩৪।

পাকিস্তানের এই কোচ আরও যোগ করেন, ‘ভারতের টপঅর্ডার দুর্দান্ত, কিন্তু মিডলঅর্ডার চাপের মধ্যে পারফর্ম করতে পারেনা। এই আসরেও তাদের মিডলঅর্ডাররা ভালো কিছু করেনি। তাই আমার বোলাররা এই সুযোগটি লুফে নেবে। ওদের রোহিত শর্মা, বিরাট কোহলি, শিখর ধাওয়ানরা আমাদের ব্যাট হাতে আক্রমণে নামবে নিশ্চিত, তবে আমার বোলাররা জানে ওদের ব্যাটসম্যানদের আক্রমণ করা ছাড়া কোনো উপায় নেই। যেভাবে আমরা নতুন বলে সাফল্য পাচ্ছি সেভাবেই ভারতকে চাপের মুখে রাখবো। আর ওদের মিডলঅর্ডার চাপের মুখে ভেঙে পড়ে বিগ হিট নিতে ভুলে যায়।’

চলতি আসরে পাকিস্তানের বোলিং গড় ভালোই। একটি উইকেট পেতে দলটি ৩৪ রানের কিছু বেশি দিয়েছে। যেখানে ভারতের ওপরেই রয়েছে তারা (৩৯.৮২)। এই টুর্নামেন্টে ভারতের ব্যাটিং স্ট্রাইক রেট সবচেয়ে বেশি (১০১.৩)। ৭৯.৮ নিয়ে নিচ থেকে তাদের পরেই রয়েছে পাকিস্তান। এই আসরে সবচেয়ে বেশি ডট বল (৫৮৪টি) দিয়েছে পাকিস্তানি বোলাররা। আর ৫২১টি ডট বল দিয়ে দ্বিতীয়স্থানে রয়েছে ভারত।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৩৩ ঘণ্টা, ১৭ জুন ২০১৭
এমআরপি


সিসি ক্যামেরার আওতায় উপমহাদেশের সর্ববৃহ‍ৎ ঈদগাহ মিনার
আসছে ‘মিস্টার ইন্ডিয়া টু’!
শিমুলিয়া নৌ-রুটে চাপ বেড়েছে ঘরমুখো মানুষের
ঈদের নামাজের নিয়ম
ঈদ যাত্রায় স্বস্তি

Alexa