Alexa

আদৌ কি আসল 'প্রস্তুতি' শুরু করতে পেরেছে বাফুফে?

জাহিদ হাসান, স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম (ফাইল ফটো)

প্রায় 'শূন্য' থেকে শুরু করা বাফুফের সামনে তিনটি চ্যালেঞ্জ যোগ হয়েছিল আগেই। এএফসি কাপের বয়সভিত্তিক তিনটি জায়ান্ট টুর্নামেন্ট। অনূর্ধ্ব-১৬, ১৯ ও ২৩। কতদূর এগুলো এসব প্রস্তুতি। আদৌ কি আসল 'প্রস্তুতি' শুরু করতে পেরেছে বাফুফে?

নাকি দায়সাড়া টুর্নামেন্ট অংশ নিয়ে নিজের দায়িত্ব সেরে ফেলতে চায় দেশের ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা! 

এএফসি অনূর্ধ্ব-২৩ চ্যাম্পিয়নশিপ মাঠে গড়াবে পরের মাস জুলাইয়ে। একমাসও নেই হাতে। এসময়ের মধ্যে কখন দল গঠন, কখনইবা প্রস্তুতি শেষ করবে বাফুফে? একমাসে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে বয়সভিত্তিক প্রতিযোগিতার জন্য কতটুকু যথেষ্ট? 

ঘরোয়া ফুটবলের তরুণদের নিয়ে ট্রায়াল শেষে দল গঠনে খেলোয়াড়দের তালিকা করা হয়েছে। দল গঠন করে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলানোর চিন্তা করছে ফেডারেশন। নব্য নিয়োগপ্রাপ্ত কোচ অ্যান্ড্রু ওর্ডের ঘাড়ে এএফসি কাপের জন্য দল গঠন ও প্রস্তুতির দায়ভার পড়েছে। অনূর্ধ্ব-২৩ ছাড়াও অন্য বয়সভিত্তিক দলগুলোও দেখবেন তিনি।   

সবচেয়ে কঠিন টুর্নামেন্ট হতে পারে এই টুর্নামেন্ট। পাইপলাইন শক্ত না থাকায় এই টুর্নামেন্ট থেকে ভালো কিছু আশা কঠিন। আর জাতীয় দলে তরুণ খেলোয়াড়ের অভাব। ঠিকমতো জাতীয় দলও গঠন করতে পারেনি বাফুফে। সবমিলে এই টুর্নামেন্টটি সবচেয়ে কঠিন হতে যাচ্ছে। এএফসির অনূর্ধ্ব-২৩ এই টুর্নামেন্ট মাঠে গড়াচ্ছে জুলাইয়ে। বাংলাদেশ আছে ‘ই’ গ্রুপে। একই গ্রুপে আছে প্যালেস্টাইন (আয়োজক), তাজিকিস্তান ও জর্ডান। গ্রুপের তিন দলের র্যাংকিং বাংলাদেশের উপরে। যদিও কোচ আশাবাদী। কিছু ভালো অভিজ্ঞ খেলোয়াড় মনে ধরেছে তার। 

এদিকে অনূর্ধ্ব-১৯ চ্যাম্পিয়নশিপ আছে অক্টোবরে। ‘বি’ গ্রুপে আছে বাংলাদেশ। একই গ্রুপে বাংলাদেশ মুখোমুখি হবে তাজিকিস্তান, উজবেকিস্তান, মালদ্বীপ এবং শ্রীলঙ্কার। তাজিকিস্তান এই টুর্নামেন্টের আয়োজন করছে। টুর্নামেন্টটি শুরু হবে চলতি বছরের ৩১ অক্টোবর থেকে। গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন দল পরের রাউন্ডে চলে যাবে।

তুলনামূলক সহজ প্রতিপক্ষ পেলেও দল গঠন নিয়ে সমস্যায় আছে বাফুফে। দীর্ঘ এক দশক পর মাঠে গড়ানো যুব ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপ শেষ হয়েছে সেই গত মাসের ৪ তারিখ। কিন্তু এই দেড় মাসেও নেই যুবাদের কোনও হালনাগাদ। টুর্নামেন্টের সেরা ফুটবলারদের নিয়ে কখন, কি করা হবে তার নির্দিষ্ট কোনও কর্মপরিকল্পনাও নেই দেশের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থার!

এএফসি কাপের আসন্ন অনূর্ধ্ব-১৯ টুর্নামেন্টের জন্য সেরা খেলোয়াড় বাছাইয়ের অন্যতম সিড়ি এই যুব চ্যাম্পিয়নশিপ। টুর্নামেন্টের সেরা ফুটবলারদের যাছাই-বাছাইয়ের মাধ্যমে দল গঠন করে এএফসির এই টুর্নামেন্টের প্রস্তুতি নিতে হবে এই বাফুফেকে। কিন্তু সেই প্রস্তুতিই শুরু করতে পারেনি বাফুফে। শুধু খেলোয়াড় বাছাই পর্যায়েই পড়ে আছে ফেডারেশন। 

এদের প্রশিক্ষণের জন্য বিকেএসপিতে নেয়ার ব্যাপারে কোনও চেষ্টাও দেখা যাচ্ছে না। যদিও যুব টুর্নামেন্টের সময় বাফুফের সহসভাপতি বাদল রায় বাংলানিউজকে বলেছিলেন, সেই লক্ষ্যে এগুচ্ছি। দুটি চ্যাম্পিয়নশিপের জন্য দল গঠন করতে পারবো। যদিও খুব ভালো মানের উদীয়মান খেলোয়াড় খুঁজে পাইনি।
 
অন্যদিকে অনূর্ধ্ব-১৬ চ্যাম্পিয়নশিপের টুর্নামেন্ট শুরু হবে চলতি বছরের সেপ্টেম্বর মাসে। বাংলাদেশ আছে ‘ই’ গ্রুপে। এই গ্রুপে বাংলাদেশ কাতার, ইয়েমেন ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিপক্ষে মাঠে নামবে। কাতার টুর্নামেন্টটির আয়োজন করছে। এখানেও গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন দল পরের রাউন্ডে যাবে। চলমান টুর্নামেন্ট পাইওনিয়ার ফুটবল লিগ থেকেই অনূর্ধ্ব-১৬ দলের জন্য খেলোয়াড় যাচাই-বাছাই করবে ফেডারেশন। লিগের এখন সুপার লিগ চলছে।  

যদিও হঠাৎ করে ব্যাকফুটে থাকা বাফুফেকে দীর্ঘমেয়াদী বয়সভিত্তিক চিন্তা করতে হবে। ঠাসা কর্মসূচি সাজালেও দায়সাড়া টুর্নামেন্ট না করে ভালোমানের খেলোয়াড় তৈরিতে মনোযোগ দেয়া উচিত দেশের ফুটবলের সর্বোচ্চ অভিবাবক বাফুফেকে। যদিও ন্যাশনাল টিমস কমিটির প্রধান কাজী নাবিল বলছেন, 'ধীরে ধীরে সবকিছু হবে। তবে, শুরুটাতো করতে হবে।'

বাংলাদেশ সময়: ১৯২৫ ঘণ্টা, ১৬ জুন, ২০১৭
জেএইচ/এমআরপি


দুই শাকিবের মুখোমুখি এক জিৎ
সূর্যকে ঘিরে কিসের বলয়?
ছবিতে তারকা ক্রিকেটারদের ঈদ
মোসাদ্দেকের অন্যরকম ঈদ
সাভারের বিভিন্ন স্থানে ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত

Alexa